শনিবার ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৫ আগস্ট ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

রোহিঙ্গাদের আর বসিয়ে খাওয়াতে পারব না ॥ পররাষ্ট্রমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার সিলেট অফিস ॥ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন বলেন, সব প্রস্তুতি চূড়ান্ত করা সত্ত্বেও আমরা রোহিঙ্গাদের ফেরাতে পারিনি। তবে তাদের ফিরে যেতেই হবে। তাদের আর বসিয়ে বসিয়ে আমরা খাওয়াতে পারব না। শুক্রবার সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে ব্যর্থতা প্রসঙ্গে বলেন, ওদের জন্যে মিয়ানমার শান্তিতে ও নিরাপদে থাকার ব্যবস্থা করেছে। সেটা তাদের বুঝাতে পারিনি। এজন্য খারাপ লাগছে। আমি সবসময় আশাবাদী। আমি মনে করি রোহিঙ্গাদের পাঠাতে পারব। এজন্য সময় লাগবে। শুক্রবার বিকেলে মন্ত্রী দুদিনের সফরে সিলেট যান।

মিয়ানমারের ওপর আরও চাপ সৃষ্টি প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, তাদের ওপর চাপ সৃষ্টি করেছি বলেই তারা নিতে রাজি হয়েছে। যথেষ্ট চাপ সৃষ্টি করেছি। যারা এতদিন তাদের পক্ষে কথা বলত তারাও এখন আমাদের পক্ষে কথা বলছে। তারপরও রোহিঙ্গারা যায়নি। মিয়ানমার আমাদের কাছে অঙ্গীকার করেছে ফিরয়ে নেয়ার। এখন আরও চাপ সৃষ্টি করতে হবে। আমরা তাদের ওপর চাপ সৃষ্টির জন্য যা যা করার করব। মন্ত্রী বলেন, আমরা এখন মিয়ানমারকে বলব, তোমরা এখন বিশ্বস্ততা অর্জন করতে পারোনি। রোহিঙ্গা নেতাদের রাখাইন নিয়ে তাদের জন্য কি ব্যবস্থা করা হয়েছে ঘুরিয়ে দেখানোর প্রস্তাব দেব। সেখানে ১০০ বাড়ি বানিয়ে দিয়েছে চীন। ২৫০ বাড়ি বানিয়ে দিয়েছে ভারত। সেটা নেতাদের দেখালে তারা হয়তো ফিরে যেতে রাজি হবে। মিডিয়াকর্মীদেরও রাখাইন গিয়ে সেখানকার তথ্য সংগ্রহ করে প্রচারের আহ্বান জানান মন্ত্রী। ড. মোমেন বলেন, রোহিঙ্গারা যে দাবিগুলো আমাদের কাছে করেছে, সেটা তাদের দেশে গিয়ে তাদের নিজেদেরই অর্জন করতে হবে। রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবসনে রাজি করাতে না পারা কূটনৈতিক ব্যর্থতা, বিএনপির এমন মন্তব্য প্রসঙ্গে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমরা রোহিঙ্গাদের ফেরাতে পারিনি, এটা সত্য। তবে এদের ফেরানো হবে। কবে যাবে জানি না। তবে বিএনপির যদি ভাল কোন আইডিয়া থাকে তবে তাদের আমরা স্বাগত জানাই।

শীর্ষ সংবাদ:
মুখোশ উন্মোচিত হোক         জিয়া আমাকে মন্ত্রী হওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিল         মাত্র সাড়ে ৩ বছরেই শূন্য অর্থনীতির দেশকে প্রতিষ্ঠিত করে যান বঙ্গবন্ধু         বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডে পরোক্ষ মদদ ছিল জিয়ার         শনাক্ত বিবেচনায় করোনায় মৃত্যু হার ১.৩২ শতাংশ         ’৭৫ পরবর্তী দেশকে পাকিস্তান বানাতে চেয়েছিলেন জিয়া         যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে পাঁচ কর্মকর্তার নেতৃত্বে চলে পৈশাচিক নির্যাতন         আইনের ফাঁক-ফোকরে অধিকাংশই এখন জামিনে মুক্ত         কোভিড ভ্যাকসিন ॥ দেশে দেশে তোড়জোড়         প্রদীপের প্রতিহিংসার বলি সিনহা, আজ গণশুনানি         বঙ্গবন্ধুকে অস্বীকার করা দেশের অস্তিত্ব ও মুক্তিযুদ্ধকে অস্বীকার         জাতির পিতাকে মেনে নিয়েই সকলের রাজনীতি করা উচিত         বিচার বিভাগ বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ধারণ করে কাজ করছে         বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নপূরণে কাজ করাই তাঁর প্রতি শ্রদ্ধার প্রকাশ         উপকূলীয় অঞ্চলে ৮০ কিলোমিটার বেগে আসছে ঝড়         বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদন         টুঙ্গিপাড়ায় প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে জাতির জনকের সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন         দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ৩৪ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২৬৪৪         হত্যাকারীরা বাংলাদেশকে একটি ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করতে চেয়েছিল ॥ নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী         বঙ্গবন্ধু হত্যার মূল পরিকল্পনাকারীরা ধরাছোঁয়ার বাইরে রয়ে গেছে ॥ মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী