রবিবার ৫ আশ্বিন ১৪২৭, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

বেসরকারী খাতে ঋণ প্রবাহ ৬ বছরের মধ্যে সর্বনিম্ন

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ ব্যাংকের তারল্যের টানাটানি, ঋণের উচ্চ সুদহারসহ নানা কারণে ভাটা পড়েছে বেসরকারী খাতের ঋণে। প্রবৃদ্ধি ধারাবাহিক কমে বিগত ছয় বছরের সর্বনিম্ন পর্যায়ে নেমেছে। গত জুনে বেসরকারী খাতে ঋণ প্রবৃদ্ধি নেমেছে ১১ দশমিক ২৯ শতাংশে। এ হার ২০১৩ সালের জুনের পর সর্বনিম্ন। ওই সময়ে ঋণ প্রবৃদ্ধি ছিল ১১ দশমিক শূন্য ৪ শতাংশ।

সংশ্নিষ্টরা বলছে, বেসরকারী বিনিয়োগ কমে যাওয়ার অন্যতম কারণ ব্যাংকগুলোর কাছে এখন পর্যাপ্ত তারল্য নেই। ঋণ আমানত অনুপাতের (এডিআর) সমন্বয়ের চাপ রয়েছে। এছাড়া আর্থিক খাতের নানা কেলেঙ্কারি ও সঞ্চয়পত্রে সুদ বেশি হওয়ায় ব্যাংকে আমানত প্রবৃদ্ধি কমে গেছে। ফলে একদিকে চাহিদা থাকা সত্ত্বেও ঋণ দিতে পারছে না ব্যাংকগুলো। অন্যদিকে উচ্চ সুদহারের কারণে ঋণ নিতেও আগ্রহী না উদ্যোক্তা ব্যবসায়ীরা। সব মিলিয়ে বেসরকারী খাতে ঋণ প্রবৃদ্ধি কমছে।

তথ্য বিশ্লেষণে দেখা যায়, ২০১৭ সা?লের মাঝামাঝি সময়ে বেসরকারী খাতের ঋণ হু হু করে বাড়ছিল। ফ?লে ঋণপ্রবাহ নিয়ন্ত্র?ণে গতবছরের শুরুতেই ঋণ-আমানত অনুপাত (এডিআর) কিছুটা কমিয়ে আনে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। তারপর থেকে ঋণ প্রবৃদ্ধি কমতে থাকে। এরপর ক?য়েক দফা এডিআর সমন্ব?য়ের সীমা বাড়া?নো হলেও নানা কারণে ঋণ প্রবৃদ্ধি বাড়?ছে না। নিম্নমুখী ধারা অব্যাহত আছে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পরিসংখ্যান বলছে, ২০১৮ সালের জুনের তুলনায় চল?তি বছরের জুনে বেসরকারী ঋণ প্রবৃদ্ধি হয়েছে ১১ দশমিক ২৯ শতাংশ। মে মাসে যা ছিল ১২ দশমিক ১৬ শতাংশ। এর আগের মাস এপ্রিলে ছিল ১২ দশমিক শূন্য ৭ শতাংশ, মার্চে প্রবৃদ্ধি ছিল ১২ দশমিক ৪২ শতাংশ। ফেব্রুয়ারিতে ছিল ১২ দশমিক ৫৪ শতাংশ এবং জানুয়ারিতে ১৩ দশমিক ২০ শতাংশ।

গত জুন মাস শেষে বেসরকারী খাতে বিতরণ করা ঋণস্থিতি দাঁড়িয়েছে ১০ লাখ ৯৯ হাজার ৮৮৩ কোটি টাকা। গতবছরের একই সময় শেষে ঋণ ছিল ৯ লাখ ৭৫ হাজার ৩১৬ কোটি টাকা। এ হিসাবে এক বছরে ঋণ বেড়েছে এক লাখ ২৪ হাজার ৫৬৭ কোটি টাকা।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের দ্বিতীয়ার্ধের মুদ্রানীতিতে জুন নাগাদ বেসরকারী খাতে ঋণ প্রবৃদ্ধির প্রাক্কলন করা হয়েছে ১৬ দশমিক ৫০ শতাংশ। কিন্তু এর বিপরীতে ঋণ প্রবৃদ্ধি হয়েছে মাত্র ১১ দশমিক ২৯ শতাংশ। যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে অনেক কম। এর আগে প্রথমা?র্ধে গত ডিসেম্বর পর্যন্ত ১৬ দশমিক ৮০ শতাংশ প্রবৃদ্ধি ধরা হলেও অর্জিত হয় মাত্র ১৩ দশমিক ৩০ শতাংশ।

এ বিষ?য়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সাবেক গবর্নর ড. সালেহ উদ্দিন আহমেদ বলেন, বেড়েই চলছে খেলাপীর ঋণ। যার কারণে সঞ্চিতি হিসাবে বাড়তি টাকা জমা রাখতে হচ্ছে। চাহিদা অনুযায়ী নতুন আমানত পাচ্ছে ব্যাংকগুলো। ফলে নগদ অর্থের টান থাকায় ঋণ দেয়ার মতো পর্যাপ্ত অর্থ পাচ্ছে না। এছাড়া অবকাঠামোগত সমস্যা আছে। ব্যবসা শুরুর খরচ বেশি। এসব বিবেচনায় ব্যাংক যে হারে ঋণের সুদ অফার করছে তাতে বিনিয়োগের আগ্রহী না উদ্যোক্তরা।

তিনি বলেন, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির অন্যতম চালিকাশক্তি দেশের বেসরকারী খাতে বিনিয়োগ। টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনে এ খাতের বিনিয়োগ বাড়ানোর কোন বিকল্প নেই। তাই ঋণ প্রবৃদ্ধি বাড়াতে সরকার ও কেন্দ্রীয় ব্যাংকের যুগোপযোগী পদক্ষেপ নিতে হবে।

এ?দি?কে নতুন সরকারের অর্থমন্ত্রী হিসেবে আ হ ম মুস্তফা কামাল দায়িত্ব নেয়ার পরই ঘোষণা দেন খেলাপী ঋণ এক টাকাও বাড়বে না। এ রকম ঘোষণা সত্ত্বেও গত মার্চ প্রান্তিক শেষে রেকর্ড পরিমাণে খেলাপী ঋণ বেড়ে এক লাখ ১০ হাজার ৮৭৪ কোটি টাকা হয়েছে।

গত ডিসেম্বর শেষে ব্যাংক খাতের খেলাপী ঋণ ছিল ৯৩ হাজর ৯১১ কোটি টাকা। তিন মাসে বেড়েছে ১৬ হাজার ৯৬৩ কোটি টাকা। এর আগে এক প্রান্তিকে এত বেশি খেলাপী ঋণ বাড়েনি।

শীর্ষ সংবাদ:
ব্যাংক যেন ভালোভাবে চলে সেদিকে বিশেষ দৃষ্টি দেওয়ার আহবান প্রধানমন্ত্রীর         ‘বিএনপি নেতাদের কারণেই খালেদা জিয়াকে জেলে পাঠানোর দাবি ওঠতে পারে’         করোনা ভাইরাসে আরও ২৬ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৫৪৪         ঢাবি শিক্ষার্থী ধর্ষণ ॥ আসামি মজনুর বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিলেন বাবা         করোনা ভাইরাসমুক্ত হলেন অ্যাটর্নি জেনারেল         দুদকের মামলায় বরখাস্ত ওসি প্রদীপের জামিন নামঞ্জুর         ‘বিএনপির আন্দোলনের তর্জন গর্জনই শোনা যায়, কিন্তু বর্ষণ দেখা যায় না’         সৌদি এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট বাতিল করল বেবিচক         শুরু হওয়ার একদিনের মাথায় আবারও পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করলো ভারত         ২৮ সেপ্টেম্বর সাহেদের অস্ত্র মামলার রায় ঘোষণা         সীতাকুণ্ডে ট্রাকের চাপায় এসআই নিহত         বুয়েটের আবরারের বাবা অসুস্থ, সাক্ষ্য গ্রহণ ৫ অক্টোবর         সংক্রমণ ছাড়াল ৫৪ লাখ ॥ জরুরি বৈঠক ডেকেছেন মোদি         করোনা ভ্যাকসিনের তথ্য চুরি করেছে চীনা হ্যাকাররা ॥ স্পেন         বাংলাদেশ ছাড়লেন ড. বিজন কুমার শীল         থাইল্যান্ডে রাজতন্ত্রের ক্ষমতা খর্ব করার দাবিতে বিশাল মিছিল         খালেদা জিয়ার আরও চার মামলার স্থগিতাদেশ আপিলে বহাল         স্বাস্থ্য অধিদফতরের গাড়ি চালক মালেককে আটক করেছে র‌্যাব         লকডাউনের পর উহানে দেখা দিয়েছে ভরসার নতুন সূর্য         সিরিয়ায় বাড়তি সেনা মোতায়েন ॥ ফের উত্তেজনা রাশিয়া-যুক্তরাষ্ট্রের