শুক্রবার ২৫ আষাঢ় ১৪২৭, ১০ জুলাই ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

কিংবদন্তির বিদায়...

  • অয়ন কান্তি সেন

পঞ্চাশ ও ষাটের দশকের হলিউডের পর্দা কাঁপানো সঙ্গীতশিল্পী এবং অভিনেত্রী ছিলেন ডরিস ডে। তখনকার আমলে বেশ সুনাম কুড়িয়েছেন। একটি গান তাকে নিয়ে গিয়েছিল সফলতার চূড়ায়। গানটি ছিল কু সারা সারা..(যা হবার তাই হবে)।

গানের রচয়িতা জে লিভিংস্টোন ও রে ইভান্সের নাম ছাপিয়ে গানটি বেশ সাড়া ফেলে দিয়েছিল। ১৯৫৬ সালে গানটির মুক্তির পর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে। সেই ষাটের দশকের জনপ্রিয় হলিউড অভিনেত্রী, সঙ্গীতশিল্পী ডরিস ডে চলে গেলেন না ফেরার দেশে। গত সোমবার ডরিস ডে এ্যানিমাল ফাউন্ডেশনের তরফে এক বিবৃতিতে তার মৃত্যুর খবর জানানো হয়। তারা আরও জানায় বয়স হিসাবে তাঁর স্বাস্থ্য যথেষ্ট ভাল ছিল, তবে শেষ কয়েকদিন নিউমোনিয়ায় ভুগে কষ্ট পাচ্ছিলেন ডরিস। মৃত্যুর সময় তার পাশে ছিলেন ঘনিষ্ঠ বন্ধুরা।

বেশকিছু কারণে ভক্তদের হৃদয় কাড়তে পেরেছিলেন ডরিস। ডরিসের নিষ্পাপ মুখ, মিষ্টি হাসি আর সুরেলা কণ্ঠস্বরে মোহিত হয়েছেন পঞ্চাশ, ষাটের দশকের ভক্তনুরাগীরা। সবচেয়ে বড় কথা হলো নায়ক রক হাডসনের সঙ্গে তাঁর জুটি বক্স অফিসে বেশ সাড়া ফেলে দিয়েছিল। খুব সাদা সিদে মিষ্টি হাসির ডরিস আনকোরা সেক্স এ্যাপিল মিশিয়ে দিতে তিনি বিশেষ দক্ষ ছিলেন। খুব তাড়াতাড়ি মানুষের হৃদয় জয় করার বিশেষ এক ক্ষমতা ছিল এ হলিউড সুন্দরীর। যে তখন তাকে দেখত এক নজরে চেয়ে থাকত তার দিকে। যেন প্রেমময় এক নতুন কাব্যের সন্ধান।

ডরিস কোন একাডেমিক পুরস্কার না পেলেও তাঁর অভিনয় আর গানের জন্য শ্রোতাদর্শকের মন পেয়েছেন। তবে সারা জীবনের কীর্তির জন্য ২০০৪ সালে তিনি ‘প্রেসিডেন্সিয়াল মেডেল অফ ফ্রিডম’ সম্মানে ভূষিত হন। জনপ্রিয় এ হলিউড অভিনেত্রীর মৃত্যুর খবরে গোটা বিশ্বে এখন শোকের ছায়া বিরাজ করছে।

ষাটের দশক কাঁপানো ডরিস আশির দশকেই অবসরে যান। তখন তিনি পশু অধিকার আন্দোলনে যোগ দেন। শেষ পর্যন্ত এসব নিয়েই ব্যস্ত ছিলেন তিনি। অবশেষে নিজ বাস ভবনে ৯৭ বছর বয়সী ডরিস মৃত্যুর কাছে মাথা নত করেন। যেন অনেকটা সুরের আকাশে সূর্যাস্তের মতোই।

শীর্ষ সংবাদ:
বিনিয়োগে রুট বদল ॥ করোনা মহামারীর ধাক্কা         দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান চলবে ॥ প্রধানমন্ত্রী         রিজেন্টের আইটি প্রধান গ্রেফতার, আটক সাহেদের ভায়রা         স্বাস্থ্য খাতে অনিয়মের বিরুদ্ধে শুদ্ধি অভিযান চলবে         এই প্রথম সুস্থতার হার শনাক্তের চেয়ে বেশি         পাপুল কুয়েতের নাগরিকত্ব পাননি         তিন মাসের জন্য রোমে নিষিদ্ধ বাংলাদেশী যাত্রী ও ফ্লাইট         দীর্ঘমেয়াদী বন্যার শঙ্কা         বর্ষায়ও ভ্যাপসা গরমে অতীষ্ঠ নগরবাসী         এখন ফখরুল ও পুরো বিএনপি হোম আইসোলেশনে         শিক্ষার্থীদের হাতে ডিজিটাল ডিভাইস ও ইন্টারনেট দিতে হবে         ডিসেম্বর পর্যন্ত সরকারী প্রতিষ্ঠানে সব ধরনের গাড়ি কেনা বন্ধ         আধিপত্য ও চাঁদাবাজির কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠায় রক্ত ঝরছে পাহাড়ে         কেন্দ্রীয় ব্যাংক গবর্নরের বয়সসীমা বাড়ল দু’বছর         চট্টগ্রামে করোনা সংক্রমণ ছাড়াল ১১ হাজার         ১৪ প্রতিষ্ঠানকে কালো তালিকাভুক্ত করেছে স্বাস্থ্য অধিদফতর         করোনা: শনাক্তের তুলনায় সুস্থ হওয়ার সংখ্যা বেড়েছে         ক্ষুধায় প্রতিদিন ১২ হাজার মানুষের মৃত্যু হবে : অক্সফাম         গরুর ধাক্কায় আন্তঃনগর কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস বিকল         ডা. জাফরুল্লাহর ফুসফুসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে        
//--BID Records