বৃহস্পতিবার ৭ মাঘ ১৪২৮, ২০ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

এক ইনজেকশনেই হার্টের অসুখ নির্মূল

  • মার্কিন বিজ্ঞানীর আবিষ্কার

বিশ্বব্যাপী হার্টের অসুখে সবচেয়ে বেশি মানুষ মারা যায়। মার্কিন বিজ্ঞানীর এক আবিষ্কার মৃত্যুর এই হার বহুলাংশে হ্রাস করতে পারে। হার্ভার্ড মেডিক্যাল স্কুলের এক বিজ্ঞানী একটি ইনজেকশন আবিষ্কার করেছেন, যা দিয়ে সহজেই হার্টের অসুখ নির্মূল হবে। যেসব শিশু হার্ট এ্যাটাকের ঝুঁকি নিয়ে জন্মগ্রহণ করে, যেসব শিশুকে জন্মের সময়ই এই ইনজেকশনের সাহায্যে জিন থেরাপি দেয়া হলে তাদের ৩০ অথবা ৪০ বছর বয়সে হার্ট এ্যাটাকে মৃত্যুর সম্ভাবনা হ্রাস পাবে। আগামী তিন বছরের মধ্যে বিজ্ঞানীরা মানুষের শরীরে এই ইনজেকশন প্রয়োগের কথা ভাবছেন।

প্রথমে যেসব শিশু বিরল জিনগত ত্রুটি নিয়ে জন্মাবে তাদের শরীরে এই ইনজেকশন প্রয়োগ করা হবে। তারপর এই পদ্ধতিটিকে নিরাপদ মনে হলে বিশ্বব্যাপী আরও বড় পরিসরে মানুষের শরীরে প্রয়োগ করা হবে। এই গবেষণা দলের প্রধান হার্ভার্ড মেডিক্যাল স্কুলের হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ও জিন বিজ্ঞানী শেখর কাথিরেসান বলেন, যেসব মানুষ হার্ট এ্যাটাকের ঝুঁকি নিয়ে জন্মায় তাদের জন্য এই চিকিৎসা খুবই উপযোগী হবে। তিনি বলেন, যেসব শিশু বিরল জেনেটিক ত্রুটি নিয়ে জন্মায় ৩০ অথবা ৪০ বছর বয়সের মধ্যে তাদের হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার প্রবণতা থাকে। তাদের জন্য এই পদ্ধতি বিশেষভাবে কার্যকর হবে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে হার্টের অসুখই সবচেয়ে বেশি মানুষের মৃত্যুর কারণ। এই অসুখে প্রতি বছর বিশ্বব্যাপী এক কোটি ৮০ লাখ মানুষ মারা যায়। আর এর মধ্যে ৮৫ শতাংশ মানুষ মারা যায় হার্ট এ্যাটাক ও স্ট্রোকে। যেসব মানুষ হার্ট এ্যাটাকের ঝুঁকিতে রয়েছে তাদের সাধারণত ব্লাড থিনার, কোলেস্টেরল ও ব্লাড প্রেসার নিয়ন্ত্রণে রাখতে নানা ধরনের ওষুধ দেয়া হয়। এসব ওষুধ রোগীকে আজীবন ব্যবহার করতে হয়। কিন্তু এই জিন থেরাপি মানুষকে চিরতরে হার্টের অসুখ থেকে মুক্তি দিতে পারে। মার্কিন বিজ্ঞানীদের এই আবিষ্কার মানুষকে চিরতরে হার্টের রোগ থেকে মুক্তি দেয়ার পাশাপাশি চিকিৎসা ব্যয় নাটকীয় হারে কমিয়ে আনতে পারে। অপর এক গবেষণায় বলা হয়েছে, প্রতি বছর ইংল্যান্ডে যেসব লোক মারা যায়, তার এক চতুর্থাংশ মৃত্যুর কারণ হৃদরোগ। বছরে দেশটির স্বাস্থ্যখাতের সাতশ পাউন্ড ব্যয় হয় হৃদরোগের চিকিৎসায়। এ বিষয়ে কাথিরেসান আরও বলেন, তবে আশা করছি আমরা জীবনে মাত্র একবার চিকিৎসা দিয়ে হৃদরোগ পুরোপুরি সারিয়ে তুলতে সক্ষম হবো। এই চিকিৎসা পদ্ধতিকে আরও যুগোপযোগী করতে কাথিরেসান সম্প্রতি হার্ভার্ড মেডিক্যাল স্কুল ছেড়ে গুগলের সহযোগী প্রতিষ্ঠান এ্যালফাবেট থেকে ৪ কোটি ৫০ লাখ পাউন্ড অর্থ সংগ্রহ করেন। এই অর্থ দিয়ে তিনি গবেষণা অব্যাহত রাখতে চান। শেখর কাথিরেসান তার এই চিকিৎসা পদ্ধতির নাম দিয়েছেন ‘ভার্ব থেরাপিটিক্স’। দ্য গার্ডিয়ান অবলম্বনে।

শীর্ষ সংবাদ:
বিধিনিষেধে তোয়াক্কা নেই ॥ করোনা সংক্রমণ বেড়েই চলেছে         অগ্রযাত্রা কেউ থামিয়ে দিতে পারবে না         চিকিৎসার নামে অপচিকিৎসা         ঢাকা, রাঙ্গামাটির পর ঝুঁকিপূর্ণ আরও ১০ জেলা         বিএনপি-জামায়াতের লবিস্ট নিয়োগ তদন্তে গোয়েন্দারা         লাভজনক থেকে রুগ্ন ॥ গাজী ওয়্যারসের আধুনিকায়ন প্রকল্পে ২০ কোটি টাকা লোপাট         বিএনপি জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টির পাঁয়তারা চালাচ্ছে ॥ কাদের         ওমক্রিন প্রতেিরাধে ডসিদিরে র্সবােচ্চ সর্তক থাকার নর্দিশে         শিমুকে সরিয়ে দেয়ার সুযোগ খুঁজতে থাকে ঘাতক স্বামী         দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত অনশন চলবে         কেটে গেছে শৈত্যপ্রবাহ তিনদিনের মধ্যে বৃষ্টি হতে পারে         অস্ট্রেলিয়ায় চাকরির নামে বিপুল অর্থ আত্মসাত         খাস জমির অর্ধেক উদ্ধার করে ১০ লাখ ভূমিহীনকে আশ্রয় দেয়া সম্ভব         ‘বাংলাদেশের অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রা কেউ থামাতে পারবে না’         একদিনে করোনায় ১২ মৃত্যু, শনাক্ত ৯৫০০         ‘মাসুদ রানা’খ্যাত কাজী আনোয়ার হোসেন আর নেই         গ্যাসের দাম বাড়ানোর বিরুদ্ধে ব্যবসায়ীরা         বাংলাদেশ ব্যাংকের ৪ কর্মকর্তাকে দুদকে তলব         ই-কমার্সে আস্থা ফেরাতে ফেব্রুয়ারিতে চালু হচ্ছে নিবন্ধন : পলক         করোনার সংক্রমণের উচ্চ ঝুঁকিতে ১২ জেলা