রবিবার ৯ কার্তিক ১৪২৮, ২৪ অক্টোবর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

পাট খাতের উদ্যোক্তাদের বিশেষ ছাড়

  • বকেয়া ঋণ ব্লক এ্যাকাউন্টে রেখে ১০ বছরে পরিশোধের সুবিধা

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ এবার পাট খাতের উদ্যোক্তাদের বিশেষ ছাড় দিল সরকার। এক্ষেত্রে এ খাতের সব বকেয়া ব্যাংকঋণ সুদবিহীন ব্লক এ্যাকাউন্টে রেখে দুই বছরের মরাটরিয়াম সুবিধাসহ ১০ বছরে পরিশোধের সুযোগ পাবেন উদ্যোক্তারা। সোমবার বাংলাদেশ ব্যাংকের এক সার্কুলারে এ সুবিধা দেয়া হয়েছে। অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এ সার্কুলার জারি করা হয়েছে। সার্কুলারে বলা হয়েছে, পাট খাতে প্রতিটি কেসের গুণাগুণ বিবেচনায় নিয়ে ব্যাংকার-কাস্টমার সম্পর্কের ভিত্তিতে ব্যাংক ঋণের সুদ ও আবশ্যকীয় ক্ষেত্রে আসল বা এর অংশ বিশেষ ব্লক এ্যাকাউন্টে স্থানান্তর করে দুই বছরের মরাটরিয়াম সুবিধাসহ ১০ বছরে পরিশোধের সুবিধা প্রদান করতে হবে। এর আগে যারা ব্লক সুবিধা নিয়েছেন এবং ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন, যাদের ঋণ অনিয়মিত ও শ্রেণীবিন্যাসিত হয়েছে তাদেরও এ সুবিধার আওতায় আনার বিষয়টি বিবেচনা করতে হবে। তবে পাট খাতের জন্য প্রবর্তিত বাংলাদেশ ব্যাংকের পুনঃঅর্থায়ন স্কিমের আওতায় দেয়া ঋণসহ বিশেষ সুবিধা সংবলিত ঋণের জন্য ব্লক সুবিধা প্রযোজ্য হবে না এবং সুবিধা সংবলিত ঋণ বকেয়া থাকা অবস্থায় কোন ঋণের জন্য ব্লক সুবিধা বিবেচনা করা যাবে না। সার্কুলার অনুযায়ী, ব্লক এ্যাকাউন্টে স্থানান্তরিত ঋণের ওপর কস্ট অব ফান্ড হারে সুদ আরোপের কথা বলা হয়েছে। ঋণ ঝুঁকি নিরসণে ব্যাংক-গ্রাহক সম্পর্কের ভিত্তিতে জামানত গ্রহণ বা পুনর্মূল্যায়ন করতে হবে। ব্লক সুবিধা পাওয়া গ্রাহক পরপর চারটি কিস্তির অর্থ পরিশোধে ব্যর্থ হলে সুবিধা বাতিল করে প্রচলিত সুদহারে ও প্রচলিত নিয়মে ঋণ আদায়যোগ্য হবে। এছাড়া পাট খাতের ঋণগ্রহীতাদের ঋণ হিসাবের জন্য ব্লক সুবিধা দেয়ার ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ব্যাংকের বিআরপিডি সার্কুলার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১২ অনুসারে ডাউন পেমেন্ট গ্রহণ এবং নতুন ঋণ মঞ্জুরির ক্ষেত্রে ন্যূনতম জমা গ্রহণের বিষয়টি ব্যাংকার-গ্রাহক সম্পর্কের ভিত্তিতে ব্যাংক নিজেই নির্ধারণ করবে। ঋণ হিসাবগুলো ব্লক এ্যাকাউন্টে স্থানান্তর হয়ে গেলে বিচারাধীন মামলাগুলো সোলেনামার মাধ্যমে উভয় পক্ষ মিলে নিষ্পত্তি করার বিধান রাখতে হবে বলেও সার্কুলারে উল্লেখ করা হয়।

শীর্ষ সংবাদ:
‘সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্টকারীদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি’         করোনা : গত ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু ৯         ‘সাম্প্রদায়িক হামলার দায় এড়াতে পারে না ফেসবুক কর্তৃপক্ষ’         নারীরা উদ্যোক্তা হিসেবেও অনেক ভূমিকা রাখছেন ॥ শিল্পমন্ত্রী         রাজধানীতে নজরদারি বাড়ানো হয়েছে : ডিএমপি         ডেঙ্গু : আরও ১ জনের মৃত্যু, হাসপাতালে ১৭৯         ইউপি নির্বাচন : ঢাকা ও ময়মনসিংহ বিভাগের নৌকার টিকিট পেলেন যারা         ২৬ অক্টোবর আসছে নতুন রাজনৈতিক দল ‘বাংলাদেশ গণ অধিকার পরিষদ’         কৃষিপ্রযুক্তি কাজে লাগিয়ে সারা বছরই আম পাওয়া সম্ভব ॥ কৃষিমন্ত্রী         শেখ হাসিনার সরকার হলো সবচেয়ে বেশি নারীবান্ধব ॥ পররাষ্ট্রমন্ত্রী         আবরার হত্যা মামলা ॥ ২৫ আসামির মৃত্যুদণ্ড চায় রাষ্ট্রপক্ষ         বিপর্যস্ত তিস্তা অববাহিকা পরিদর্শনে বাপাউবোর প্রতিনিধি দল         অপরাধী যেই দলেরই হোক তার বিচার হবে ॥ আইনমন্ত্রী         বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের সহায়তায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলো ঘুরে দাঁড়াবে ॥ শিক্ষামন্ত্রী         পায়রা সেতু উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী         আমিরাত গেলেন অর্ধলক্ষাধিক যাত্রী         নোয়াখালীতে মন্দিরে হামলা ॥ ৩ আসামির ‘স্বীকারোক্তিমূলক’ জবানবন্দি         চাঁদা না দেওয়ায় মোটরসাইকেল শো-রুমে ডাকাতি করেন চক্রটি         শক্তিশালী ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল তাইওয়ান         যুক্তরাষ্ট্রসহ ১০ দেশের রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কার করল তুরস্ক