বৃহস্পতিবার ১৩ মাঘ ১৪২৮, ২৭ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

খালেদার বিরুদ্ধে জিয়া চ্যারিটেবল মামলার রায় আজ

  • আপীল খারিজ হলে রায় ঘোষণা সম্ভব ॥ এ্যাটর্নি জেনারেল

স্টাফ রিপোর্টার ॥ জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াসহ চার আসামির বিরুদ্ধে আজ সোমবার রায় ঘোষণা করা হবে। ১৬ অক্টোবর রায় ঘোষণার জন্য এ তারিখ ধার্য করেন পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারের ভেতরে স্থাপিত অস্থায়ী ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫ এর বিচারক ড. মোঃ আখতারুজ্জামান। এটি হবে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দ্বিতীয় দুর্নীতি মামলার রায়। এর আগে ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় তাকে ৫ বছরের কারাদন্ড প্রদান করে আদালত। এদিকে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতিতে বিচার চলবে বলে হাইকোর্টের দেয়া আদেশের বিরুদ্ধে করা খালেদা জিয়ার আপীল আবেদনের বিষয়ে

আদেশের জন্য আজ সোমবার দিন ঠিক করেছে আপীল বিভাগ। অন্যদিকে নিম্ন আদালতে রায় হওয়া জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় একজন সাক্ষীর অধিকতর সাক্ষ্যগ্রহণের আবেদন খারিজ বা নথিভুক্ত করার আবেদনের ওপর শুনানি শুরু হয়েছে। প্রথম দিনের শুনানি শেষে আজ এ বিষয়ে শুনানির জন্য ঠিক করেছে আপীল বিভাগ। রাষ্ট্রদ্রোহের একটি ও নাশকতার ১০টিসহ মোট ১১ মামলায় বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার হাজির হওয়ার জন্য আগামী ২৫ নবেম্বর দিন ধার্য করেছে আদালত। রবিবার আপীল বিভাগ ও বিচারিক আদালত এ আদেশগুলো প্রদান করেছে।

এ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেছেন, খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতিতেই চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলার বিচার চলবে বলে বিচারিক আদালতের দেয়া আদেশের বিরুদ্ধে করা আপীল আবেদনের রায় হবে আজ সোমবার। রায়ে খালেদা জিয়ার আপীল খারিজ হলে ঢাকার সাবেক কেন্দ্রীয় কারাগারে স্থাপিত অস্থায়ী বিশেষ জজ আদালতে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় রায় ঘোষণা সম্ভব হবে। তিনি আরও বলেন, জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলা শুনানির সময় খালেদা জিয়ার পক্ষ থেকে প্রায় ৪০বার সময় নেয়া হয়েছে। তারপর যখন আসামিপক্ষের বক্তব্য শোনার জন্য তারিখ নির্ধারণ করা হলো তখন তিনি প্রায় ৩২বার সময় নিয়েছেন। অন্যদিকে খালেদা জিয়ার আইনজীবী ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে হাসপাতালে রেখে রায় ঘোষণা করা হলে তা পৃথিবীর ইতিহাসে নজিরবিহীন হবে। আসামি জেল কাস্টডিতে অথবা জেল কর্তৃপক্ষের কাছে আছে, হাসপাতালে আছে, তারপরও তার অনুপস্থিতিতে বিচার করা পৃথিবীর ইতিহাসে নজিরবিহীন। এমন কোন নজির নেই। এটি হবে উদাহরণ।

পূর্ব নির্ধারিত দিন অনুয়ায়ী আজ সোমবার ঘোষণা করা হবে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায়। এ মামলার আসামিরা হলেন- সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া, বিএনপি নেতা হারিছ চৌধুরী ও তার তৎকালীন একান্ত সচিব জিয়াউল ইসলাম মুন্না এবং ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার একান্ত সাচিব মনিরুল ইসলাম খান। আসামি হারিছ চৌধুরী মামলার শুরু থেকে পলাতক রয়েছেন। মামলাটিতে খালেদা জিয়া আদালতে না আসায় গত ২০ সেপ্টেম্বর তার অনুপস্থিতিতে বিচার চলবে বলে আদেশ দেন আদালত। গত ২৭ সেপ্টেম্বর জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়া আদালতে না আসায় তার অনুপস্থিতিতে বিচার চলবে বলে বিশেষ জজ আদালত যে আদেশ দিয়েছেন তার বিরুদ্ধে হাইকোর্টে রিভিশন আবেদন করা হয়। গত ১৪ অক্টোবর জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়া আদালতে না আসায় তার অনুপস্থিতিতে বিচার চলবে বলে বিশেষ জজ আদালত যে আদেশ দিয়েছেন তার বিরুদ্ধে করা রিভিশন আবেদন খারিজ করে দেয় হাইকোর্ট। পরে হাইকোর্টের এই আদেশের বিরুদ্ধে আবেদন করেন খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা। ওই আবেদনের ওপর রবিবার (২৮ অক্টোবর) শুনানি হয়। এ বিষয়ে আজ সোমবার আদেশ দেবে আপীল বিভাগ।

আপীল খারিজ হলে রায় ঘোষণা সম্ভব ॥ খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতিতেই চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলার বিচার চলবে বলে বিচারিক আদালতের দেয়া আদেশের বিরুদ্ধে করা আপীল আবেদনের রায় হবে আজ সোমবার। রায়ে খালেদা জিয়ার আপীল খারিজ হলে ঢাকার সাবেক কেন্দ্রীয় কারাগারে স্থাপিত অস্থায়ী বিশেষ জজ আদালতে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় রায় ঘোষণা সম্ভব হবে বলে জানিয়েছেন এ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। রবিবার নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এই কথা বলেন তিনি। তিনি বলেন, জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলা শুনানির সময় খালেদা জিয়ার পক্ষ থেকে প্রায় ৪০ বার সময় নেয়া হয়েছে। তারপর যখন আসামিপক্ষের বক্তব্য শোনার জন্য তারিখ নির্ধারণ করা হলো তখন তিনি প্রায় ৩২বার সময় নিয়েছেন।

এরপর বেশ কিছুদিন জেলে থাকা অবস্থায় খালেদা জিয়া আদালতে যেতে পারেননি। বলা হলো তিনি অসুস্থ। তারপর একদিন তিনি বলেন আদালতে যাবেন না। এমন পরিস্থিতিতে বিচারক তার অনুপস্থিতিতেই এ মামলার যুক্তিতর্ক শুনানির দিন ধার্য করেন। কিন্তু সে সময়ও তার ১২৬ জন আইনজীবীর কেউ আদালতে যাননি। এ অবস্থায় মামলার রায় ঘোষণার জন্য সোমবার (২৯ অক্টোবর) দিন ধার্য রয়েছে। মাহবুবে আলম বলেন, চ্যারিটেবল মামলায় খালেদা জিয়া বারবার সময় নিয়েছেন। এক পর্যায়ে তিনি আদালতে আসবেন না বলে জানিয়ে দেন। এ অবস্থায় আদালত বসে থাকতে পারে না। আদালতকে তো বিচার কার্যক্রম এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। সে হিসেবে আমি আশাবাদী বিচারিক আদালত মামলার বিচার শেষ করতে পারবে।

খালেদা জিয়াকে হাসপাতালে রেখে রায় ঘোষণা করা হলে তা নজিরবিহীন হবে ॥ বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে হাসপাতালে রেখে রায় ঘোষণা করা হলে তা পৃথিবীর ইতিহাসে নজিরবিহীন হবে বলে মনে করছেন খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা। রবিবার খালেদা জিয়ার আইনজীবী ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন সাংবাদিকদের এ কথা বলেন। খোকন বলেন, আসামি জেল কাস্টডিতে অথবা জেল কর্তৃপক্ষের কাছে আছে, হাসপাতালে আছে, তারপরও তার অনুপস্থিতিতে বিচার করা পৃথিবীর ইতিহাসে নজিরবিহীন। এমন কোন নজির নেই। এটি হবে উদাহরণ। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় কারাগারে নতুন নজির সৃষ্টি করতে চাচ্ছে সরকার।

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার আপীলের আদেশ আজ ॥ জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতিতে বিচার চলবে বলে হাইকোর্টের দেয়া আদেশের বিরুদ্ধে করা বেগম খালেদা জিয়ার আপীল আবেদনের বিষয়ে আদেশ আজ সোমবার দেয়া হবে। প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে সাত সদস্যের আপীল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার নথিভুক্ত আবেদনের শুনানি অব্যাহত ॥ নিম্ন আদালতে রায় হওয়া জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় একজন সাক্ষীর অধিকতর সাক্ষ্যগ্রহণের আবেদন খারিজ বা নথিভুক্ত করার আবেদনের ওপর শুনানি শুরু হয়েছে। রবিবার প্রথম দিনের শুনানি শেষে আজ সোমবার এ বিষয়ে শুনানির জন্য ঠিক করেছে আপীল বিভাগ। প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে সাত সদস্যের আপীল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চ রবিবার এ আদেশ প্রদান করেন। আদালতে বেগম খালেদার পক্ষে শুনানি করেন এ্যাডভোকেট এজে মোহাম্মদ আলী। অন্যদিকে, দুদুকের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন এ্যাডভোকেট খুরশিদ আলম খান। এর আগে গত ২৪ অক্টোবর চেম্বারজজ আদালত খালেদার আপীল আবেদনটি শুনানির জন্য রবিবার আপীল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে দিন ধার্য করে আদেশ দেয়। এর আগে গত ৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছর কারাদ-াদেশ দেয় বিচারিক আদালত। রায় ঘোষণার পরপরই খালেদা জিয়াকে ওই দিন বিকেলে নাজিম উদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়। বর্তমানে তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব চিকিৎসা বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসাধীন।

রাষ্ট্রদ্রোহসহ ১১ মামলার হাজিরা ২৫ নবেম্বর ॥ রাষ্ট্রদ্রোহের একটি ও নাশকতার ১০টিসহ মোট ১১ মামলায় বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার হাজির হওয়ার জন্য আগামী ২৫ নবেম্বর দিন ধার্য করেছে আদালত। রবিবার রাজধানীর বকশীবাজার আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে অবস্থিত ঢাকা মহানগর দায়রা জজ ইমরুল কায়েশ আসামিপক্ষের সময়ের আবেদন মঞ্জুর করে এ দিন ধার্য করেন।

শীর্ষ সংবাদ:
অবশেষে অনশন ভঙ্গ ॥ শাহজালালের ঘটনায় কিছুটা স্বস্তি         শিক্ষার্থীদের সব দাবি বাস্তবায়নের আশ্বাস শিক্ষামন্ত্রীর         দেশ অপ্রতিরোধ্য গতিতে উন্নয়নের পথে এগিয়ে যাচ্ছে         বিএনপি ৮ লবিস্ট নিয়োগ দিয়েছিল         ওমিক্রন মোকাবেলায় আসছে নতুন গাইডলাইন         রাজধানীসহ কোন কোন এলাকায় ভারি বৃষ্টি, জনদুর্ভোগ         অপরাধ দমনে কাজের স্বীকৃতি পেল পুলিশের বিভিন্ন ইউনিট         অর্থ পাচার রোধে দক্ষিণ কোরিয়ার মতো কঠোর আইন প্রয়োজন         এগিয়ে চলাকে স্তব্ধ করতে নানা ষড়যন্ত্র চলছে         অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে আরও তিন বছর লাগবে         তদন্ত এগোনোর পর এখনও এজাহার জটিলতার নেপথ্যে -         বগুড়ায় বাসের ধাক্কায় অটোরিক্সার ৫ যাত্রী নিহত         আসছে নতুন শিক্ষাক্রম, সময়মতো চালুর বিষয়ে শঙ্কা         নগ্ন ছবি, ভিডিও ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে টাকা দাবি         বাংলাদেশের গ্রামীণ হাসপাতাল পেল বিশ্ব সেরার স্বীকৃতি         ওমিক্রনরোধে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নতুন গাইডলাইন         শাবিপ্রবি সংকট : শিক্ষার্থীদের সব দাবি বাস্তবায়ন হবে ॥ শিক্ষামন্ত্রী         জামিন পেলেন শাবিপ্রবির সাবেক ৫ শিক্ষার্থী         করোনা : গত ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু ১৭, শনাক্ত ১৫৫২৭         ‘শাবির ঘটনায় পুলিশের দায় থাকলে ব্যবস্থা’