শুক্রবার ৮ মাঘ ১৪২৮, ২১ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

খালেদার মুক্তিই এখন বিএনপির একমাত্র লক্ষ্য ॥ ফখরুল

  • বিএনপি অফিসের সামনে মানববন্ধন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ কারাবন্দী খালেদা জিয়ার মুক্তিই এখন বিএনপির একমাত্র লক্ষ্য বলে মন্তব্য করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। বুধবার দুপুরে নয়াপল্টন বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে দলের চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে আয়োজিত মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

ফখরুল বলেন, এত বলার পরও খালেদা জিয়াকে তার ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের সঙ্গে দেখা করতে দেয়া হচ্ছে না। তার পছন্দমতো হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে দেয়া হচ্ছে না। এটা অত্যন্ত দুঃখজনক। আমাদের উচ্চপর্যায়ের একটি প্রতিনিধিদল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেছেন। এরপরও কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি সরকার। আমরা জানি সরকার কেন খালেদা জিয়াকে আটকে রেখেছে। একমাত্র কারণ হচ্ছে তারা আতঙ্কিত। যদি তিনি বাইরে থাকেন, তাহলে গণতন্ত্রকে মুক্ত করার জন্য যে আন্দোলন তা কোনভাবেই প্রতিরোধ করতে পারবে না সরকার। আর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তাদের পরাজয় হবে অবশ্যম্ভাবী।

মির্জা ফখরুল বলেন, বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য সৃষ্টি করে কারাবন্দী বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া ও গণতন্ত্রকে মুক্ত করব। আবারও সব রাজনৈতিক দল, ধর্ম, বর্ণ, ব্যক্তি সবাইকে গণতন্ত্রের জন্য ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের আহ্বান জানাচ্ছি। আর বর্তমান সরকারকে জানাতে চাই, অন্যায়ের বিরুদ্ধে সবাই ঐক্যবদ্ধ।

ফখরুল বলেন, সরকার নির্বাচনের কথা বলছে। নির্বাচন করতে হলে প্রথমে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি করতে হবে। তার জন্য খালেদা জিয়াসহ সব রাজবন্দীকে মুক্তি দিতে হবে। আর মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করতে হবে। সংসদ ভেঙ্গে দিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে পদত্যাগ করতে হবে। তাহলে নিরপেক্ষ পরিবেশ সৃষ্টি হবে।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, আজ মানববন্ধনে পুলিশের আচরণ আপনারা দেখেছেন। কী রকম আচরণ তারা আমাদের সঙ্গে করছেন। তাই দলের নেতাকর্মীদের বলব, সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থেকে আন্দোলন করতে হবে। সেই আন্দোলনের মাধ্যমে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে। কারাগারে প্রতিদিনই খালেদা জিয়ার অসুস্থতা বাড়ছে অভিযোগ করে তিনি বলেন, ক্রমান্বয়ে তার স্বাস্থ্য ভেঙ্গে পড়ছে।

ফখরুল বলেন, মঙ্গলবার খালেদা জিয়ার সঙ্গে তার পরিবারের সদস্যরা দেখা করেছেন। আমরা জানতে পেরেছি খালেদা জিয়া এতই অসুস্থ হয়ে পড়েছেন যে দ্বিতীয়তলা থেকে নিচতলায় নামতে পারেননি। আমরা বারবার বলছি, তার ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের দিয়ে পরীক্ষা করিয়ে বিশেষায়িত হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হোক। বিশেষ করে ইউনাইটেড হাসপাতালে তাকে চিকিৎসা দেয়া অত্যন্ত প্রয়োজন। কারণ, তার যে ধরনের পরীক্ষা বা এমআরআই করা দরকার তা অন্য হাসপাতালে করা সম্ভব নয়। একমাত্র ইউনাইটেড হাসপাতালে এর ব্যবস্থা আছে। তার দুই হাঁটুতে মেটাল প্রতিস্থাপন করা আছে। সে কারণে অন্য কোথাও তার এমআরআই করানো সম্ভব না।

ফখরুল বলেন, তারেক রহমানের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। তিনি কোনভাবেই বাংলাদেশের নাগরিকত্ব বর্জন করেননি। তিনি সম্পূর্ণভাবে বাংলাদেশের নাগরিকই আছেন। কিন্তু সরকার তারেক রহমানের নাগরিকত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুলে নিজেরাই নিজেদের গহ্বরে পড়েছে। কারণ, ব্রিটিশ আইনে কোথাও পাসপোর্ট জমা দেয়ার মধ্যে নাগরিকত্ব বর্জনের কথা নেই। সব সময় পাসপোর্ট রেখেই আশ্রয় প্রার্থনা করা হয়। অথচ সরকার এ নিয়ে মিথ্যাচার করছে।

শীর্ষ সংবাদ:
‘১৫ ফেব্রুয়ারি বইমেলা শুরু’         ঢাবির হল খোলা, ক্লাস চলবে অনলাইনে         করোনারোধে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের ৫ জরুরি নির্দেশনা         আগামী ৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বন্ধ স্কুল-কলেজ         ভরা মৌসুমে চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে সব ধরনের সবজি         মাদারীপুরে সেতুর পিলারে মোটরসাইকেলের ধাক্কা, ২ শিক্ষার্থী নিহত         বিপিএম-পিপিএম পাচ্ছেন পুলিশের ২৩০ সদস্য         অভিনেত্রী শিমু হত্যা : ফরহাদ আসার পরেই খুন করা হয়         দিনাজপুরে মাদক মামলায় নবনির্বাচিত ইউপি সদস্য গ্রেফতার         শাবিপ্রবিতে গভীর রাতে শিক্ষার্থীদের মশাল মিছিল         ঘানায় ভয়াবহ বিস্ফোরণে ৫শ’ ভবন ধস, নিহত ১৭         করোনায় রেকর্ড সাড়ে ৩৫ লাখ শনাক্ত, মৃত্যু ৯ হাজার         রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে বাসের ধাক্কায় এক পরিবারের ৩ জন নিহত         তিন পণ্য দ্রুত আমদানির পরামর্শ         শতবর্ষী কালুরঘাট সেতুর আরও বেহাল দশা         ঐক্য সুদৃঢ় আওয়ামী লীগের বিএনপি হতাশ         ইসি নিয়োগ আইন চলতি অধিবেশনেই পাসের চেষ্টা থাকবে         শান্তিরক্ষা মিশনে র‌্যাবকে বাদ দিতে ১২ সংগঠনের চিঠি         মাদকসেবীর সঙ্গে মাদকের বাজারও বাড়ছে