রবিবার ৪ আশ্বিন ১৪২৭, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

দাবি আদায়ের নামে কেউ যেন ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করতে না পারে ॥ নাসিম

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য, কেন্দ্রীয় ১৪ দলের মুখপাত্র এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, দাবি আদায়ের নামে কেউ যেন ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করতে না পারে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। যে কোন যুক্তিসঙ্গত দাবি নিয়ে আন্দোলন হতে পারে, তবে তা সহিংস হওয়া সমর্থনযোগ্য নয়।

সোমবার বিকেলে সচিবালয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে কেন্দ্রীয় ১৪ দলের বৈঠক শেষে আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি আরও বলেন, দাবি আদায়ের নামে নিরীহ ছাত্রদের লেলিয়ে দেয়া হয়েছে। কেউ যেন ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করতে না পারে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। নিজেরা আন্দোলন করতে না পেরে তারা ছাত্রদের লেলিয়ে দিচ্ছে। কোটা সংস্কার সরকারের কাজ। কিন্তু এই দাবিতে ভিসির বাড়িতে হামলা অন্য অর্থ বহন করে।

কোটা সংস্কারের আন্দোলন নামে কোন ধরনের নৈরাজ্য সহ্য করা হবে না জানিয়ে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, যে কোন দাবি নিয়ে আন্দোলন করা যেতে পারে। তবে কোন সহিংসতা সমর্থনযোগ্য নয়। আন্দোলনের নামে মহাসড়ক বন্ধ করা হচ্ছে এটা কোনভাবেই সমর্থনযোগ্য নয়। আমরা এর নিন্দা জানাই। আন্দোলনের নামে নৈরাজ্য সহ্য করা হবে না।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আমরা যে কোন গণতান্ত্রিক ও যুক্তিসঙ্গত আন্দোলনকে সমর্থন করি, কিন্তু গণতন্ত্রের অভিযাত্রাকে থামিয়ে দিতে এ ধরনের সহিংসতাকে পছন্দ করি না। তিনি বলেন, মুখোশ পরে কোন আন্দোলন হয় না। মুখোশ পরে কেউ যদি আন্দোলন করে, তাদের ইন্ধনদাতাদের খুঁজে বের করতে হবে।

বৈঠকে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ) সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, জাসদের সাধারণ সম্পাদক শিরিন আক্তার এমপি, ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা এমপি, কমিউনিস্ট কেন্দ্রের আহ্বায়ক ডাঃ অসীত বরণ রায়, বনানী থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মীর মোশারফ হোসেন, ন্যাপের নেতা ইসমাইল হোসেন প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

ভিসির বাসভবনে হামলা একাত্তরের তাণ্ডবকেও হার মানায় ॥ নানক, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছেন, কোটা সংস্কারের দাবিতে দুষ্কৃতিকারীরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বাসভবনে যেভাবে হামলা করা হয়েছে, তা একাত্তরের তা-বকেও হার মানিয়েছে। এটি সত্যিই দুঃখজনক। মুখোশ-হেলমেট পড়ে হামলাকারীরা কারা? গোয়েন্দা সংস্থা তদন্ত করছে, তাদের পরিচয় অবশ্যই বেরিয়ে আসবে।

সোমবার বিকেলে ধানম-ির আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে আওয়ামী লীগের এ নেতা আরও বলেন, উপাচার্যের বাসভবনে হামলা করে এমনভাবে তছনছ করা হয়েছে যে, সকালে কাপড় পরিবর্তন করবে এমন একটা কাপড় ছিল না। খাবার খাবে এমন কোন কিছু ছিল না, সবই ফেলে দেয়া হয়েছে। কোন শিক্ষার্থী ভিসির বাড়িতে এ রকম তা-ব চালাতে পারে বলে আমরা বিশ্বাস করি না।

নানক বলেন, কোটা সংস্কারের দাবি নিয়ে উদ্ভূত পরিস্থিতি সবাই জানেন। ঢাবি ভিসির বাসভবনে হামলা করে যে তা-ব ও ধ্বংসযজ্ঞ চালান হয়েছে তা প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টিগোচর হলে তিনি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে আলোচনার জন্য দায়িত্ব দেন। ওবায়দুল কাদেরের নির্দেশে রবিবার মধ্যরাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে গিয়েছিলাম। আমি স্বচক্ষে সব দেখলাম। একপর্যায়ে তাদের (আন্দোলনকারীদের) আলোচনার জন্য প্রস্তাব করি। মিডিয়াকেও বিষয়টি জানিয়েছি। আমি মধ্যরাতেই জানিয়েছি আলোচনা হবে। আলোচনার মধ্য দিয়ে শিক্ষাঙ্গনে একটি সুষ্ঠু পরিবেশ ফিরে আসবে। শিক্ষার্থীরা সবাই শিক্ষাঙ্গনে ফিরে যাবে।

সাবেক এই প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, কোটা পদ্ধতির সংস্কার করতে হলে সরকার ছাড়া কোন বিকল্প জায়গা নেই। তাই আলোচনায় বসতে হবে। আশা করি কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনকারীরা আলোচনায় বসলে সমাধান হবে। শিক্ষাঙ্গনে ফিরে আসবে সুষ্ঠু পরিবেশ। কোটা পদ্ধতি কোন স্থায়ী পদ্ধতি নয়, চিরস্থায়ী বন্দোবস্তও নয়। মুক্তিযোদ্ধা ও অন্যান্য যেসব কোটা আছে এসব কোটা যেসব পরিপূর্ণ হয় না তখন জেনারেল পদ্ধতিতে চলে যায়, সেটা আর থাকে না। এই পদ্ধতিতে একসঙ্গে দুটি স্টেজ পার হয়ে আসতে হয়। মেধার পরীক্ষা ও ভাইভা পার হয়ে আসতে হয়। খাতায় কোটা লেখা থাকে না।

প্রেস ব্রিফিংকালে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম এমপি, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এমপি, এ কে এম এনামুল হক শামীম, উপদফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়াসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।

শীর্ষ সংবাদ:
নির্দিষ্ট এলাকার বাইরে কল কারখানা নয়         তিন বন্দর দিয়ে ভারতে আটকে থাকা পেঁয়াজ আসা শুরু         দুর্নীতির বিরুদ্ধে শুদ্ধি অভিযান অব্যাহত রয়েছে ॥ কাদের         কওমি বড় হুজুর আল্লামা শফীকে চিরবিদায়         ওষুধ খাতের ব্যবসা রমরমা         করোনার নমুনা পরীক্ষা ১৮ লাখ ছাড়িয়েছে         করোনা সংক্রমণ বাড়ছে ॥ ফের লকডাউনে যাচ্ছে ইউরোপ         বিশেষ মহলের ইন্ধন-ভাসানচরে যাবে না রোহিঙ্গারা         তুলা উৎপাদনে গুরুত্ব দিচ্ছে সরকার         দগ্ধ আরও দুজনের মৃত্যু, তিতাসের গ্রেফতার ৮ জন দুদিনের রিমান্ডে         শিক্ষার ক্ষতি পোষাতে বিশেষ প্রকল্প আগামী মাস থেকেই ॥ করোনায় সব লণ্ডভণ্ড         আর কোন জিকে শামীম নয় ॥ গণপূর্তের দৃশ্যপট পাল্টেছে         ব্যক্তিগত ও পারিবারিক দ্বন্দ্বই অধিকাংশ খুনের কারণ         এ্যাটর্নি জেনারেলের অবস্থার উন্নতি         বর্তমান সরকারের আমলে রেলপথে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে : রেলপথমন্ত্রী         ইউএনও ওয়াহিদা জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে বদলী, স্বামী স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে         সোহরাওয়ার্দী হাসপাতাল পরিচালকের রুম ঘেরাও         চিরনিদ্রায় শায়িত হেফাজত আমির আল্লামা আহমদ শফী         সবচেয়ে কঠিন সময় পার করছি ॥ মির্জা ফখরুল         করোনা ভাইরাস ॥ ভারতে একদিনে ১২৪৭ জনের মৃত্যু