ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০ আশ্বিন ১৪২৯

দুই দারোগাকে কামড়ে আহত করল মাদক বিক্রেতা

প্রকাশিত: ০৫:৪৩, ২৫ নভেম্বর ২০১৭

দুই দারোগাকে কামড়ে আহত করল মাদক বিক্রেতা

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ ইয়াবাসহ এক মাদক বিক্রেতাকে আটকের পর পুলিশের হাত থেকে পালানোর জন্য তার কামড়ে থানার দুই দারোগা আহত হয়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে জেলার আগৈলঝাড়া উপজেলার তালবাজার এলাকায়। আটককৃত মাদক বিক্রেতা হাসানাত সন্যামাতকে শুক্রবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। জানা গেছে, তালবাজার এলাকায় ইয়াবার বড় একটি চালান হাতবদল হওয়ার গোপন খবরে থানার এসআই দেলোয়ার হোসেন, এএসআই নেছার উদ্দিন, এএসআই মনির ও এএসআই জাহিদ সাদা পোশাকে ওই এলাকায় অবস্থান নেন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তালবাজার এলাকায় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে দৌড়ে পালানোর চেষ্ঠা করে। এ সময় পুলিশ ধাওয়া করে বরিয়ালি গ্রামের আফজাল মাস্টারের ছেলে হাসানাত সন্যামাতকে দেড় শ’ ইয়াবাসহ গ্রেফতার করে। এ সময় অপর দুই বিক্রেতা পালিয়ে যায়। গ্রেফতারকৃত হাসানাত পুলিশের হাত থেকে পালিয়ে যাওয়ার জন্য এএসআই মনির ও জাহিদের হাতে কামড় দিয়ে আহত করে। সৈয়দপুরে স্কুলছাত্রী ধর্ষিত ॥ বখাটে পলাতক সংবাদদাতা, সৈয়দপুর, নীলফামারী, ২৪ নবেম্বর ॥ সৈয়দপুরে নবম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ নিয়ে বৃহস্পতিবার রাতে সৈয়দপুর থানায় ধর্ষিতার মা নিলুফার বেগম বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে কাশিরাম বেলপুকুর ইউপির মাঝাপাড়া এলাকায়। জানা গেছে, উপজেলার কাশিরাম বেলপুকুর ইউনিয়নের মাঝাপাড়ায় প্রতিবেশী সামসুল হকের ছেলে টাইলস মিস্ত্রি রুবেল (২৫) দীর্ঘদিন ওই স্কুলশিক্ষার্থীকে নজরে রাখে। মঙ্গলবার ওই ছাত্রীকে বাড়িতে একা পেয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এ ঘটনার দুদিন পেরিয়ে গেলে সে তার মাকে ঘটনা খুলে বলে। পরে নিলুফার বেগম কোন উপায় না পেয়ে সৈয়দপুর থানায় ন্যায়বিচার চেয়ে আইনের আশ্রয় নেন। মামলা দায়েরের পর টাইলস মিস্ত্রি রুবেল পলাতক রয়েছে। নওগাঁর সেই বৃদ্ধা অবশেষে মুক্ত নিজস্ব সংবাদদাতা, নওগাঁ, ২৪ নবেম্বর ॥ জনকণ্ঠে সংবাদ প্রকাশের পর অবশেষে শিকলবন্দী জীবন থেকে মুক্তি পেলেন আদিবাসী বৃদ্ধা সুরবালা রানী পাহান (৬৭)। বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে তাকে শিকলমুক্ত করা হয়। সেইসঙ্গে তার বয়স্কভাতার কার্ডের ব্যবস্থাও করা হয়। মহাদেবপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (অতিরিক্ত দায়িত্বপ্রাপ্ত) এসএম হাবিবুর রহমান বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন। এ সময় তিনি বলেন, এটি একটি মানবিক বিষয়। সুরবালার সন্তানদের সঙ্গে আমরা কথা বলেছি।