মঙ্গলবার ৪ কার্তিক ১৪২৮, ১৯ অক্টোবর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

বাগেরহাটে বৃষ্টিতে মাছের ঘের ভেসে যাওয়ায় দিশেহারা চাষী

বাবুল সরদার, বাগেরহাট ॥ অধিকাংশ মাছের ঘের ও পুকুর ভেসে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। শত শত মৎস্যচাষী অপূরণীয় ক্ষতিতে দিশাহারা হয়ে পড়েছেন। ঋণ ও দাদনগ্রস্ত এসব চাষী হাপিত্যেশ করছেন। গত আমাবস্যার গোনে অস্বাভাবিক জোয়ার, নিম্নচাপ ও তিন দিনের প্রবল বৃষ্টিতে চিংড়ি ও মৎস্য চাষপ্রধান এ জেলার অধিকাংশ মাছের খামার ভেসে যায়। জেলা মৎস্য দফতরের হিসাবমতে, তিন হাজার পুকুর ও মাছের ঘের ভেসে প্রায় ৫শ’ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে।

জেলা চিংড়ি চাষী সমিতির আহ্বায়ক ফকির মহিতুল ইসলাম সুমন জানান, নিম্নচাপ, ভারি বর্ষণ ও জোয়ারে জেলার অধিকাংশ মাছের ঘের ভেসে গেছে। এতে অপূরণীয় ক্ষতি হয়েছে। মৎস্যচাষীরা নিঃস্ব হয়ে পড়েছেন। ব্যাংক বা এনজিও থেকে ঋণ নিয়ে তারা মাছ চাষ করে এখন সর্বস্বান্ত হয়ে গেছেন। চিতলমারী, ফকিরহাট, মোরেলগঞ্জ, রামপাল, মোল্লাহাট, কচুয়া ও সদর উপজেলার শত শত মৎস্যচাষী জানান, লাখ লাখ টাকার মাছ ভেসে যাওয়ায় তারা জীবিকার সঙ্কটে পড়েছেন। মৎস্যচাষী রুস্তুম হলদারের ভাষায়, এখন বেঁচে থাকাই মুশকিল। সরেজমিন ফকিরহাটের নলধা-মৌভোগ, বাহিরদিয়া, শুভদিয়া, চিতলমারীর রায়গ্রাম, খড়িয়া, মোল্লাহাটের কোদালিয়া-কেন্দুয়া, কচুয়ার বাধাল, মসনিসহ বহু ইউনিয়নের গ্রামের পর গ্রাম গত ছয় দিনেও জলাবদ্ধ হয়ে অছে। সøুইসগেটগুলো দিয়ে ঠিকমতো পানি ওঠা-নামা না করা, সরকারী খালগুলো ভরাট ও দখল হওয়া এবং পর্যাপ্ত ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকায় বৃষ্টির পানি সরতে পরছে না। ফলে মানুষের দুর্ভোগ আরও বাড়ছে বলে এলাকাবাসী জানিয়েছেন। বাগেরহাট জেলা মৎস্য কর্মকর্তা জিয়া হয়দার জানান, দেশের অন্যতম প্রধান চিংড়ি উৎপাদনকারী জেলা বাগেরহাট। নিম্নচাপের প্রভাবে অস্বাভাবিক জোয়ার এবং তিন দিনের টানা প্রবল বর্ষণে এ জেলার রামপাল উপজেলায় ৪০ ভাগ, মোল্লাহাটে ৬০ ভাগ, কচুয়ায় ৫০ ভাগ, ফকিরহাটে ৫০ ভাগ, চিতলমারীতে ৬০ ভাগ, মোরেলগঞ্জে ৫৫ ভাগ, মংলায় ৪০ ভাগ ও সদর উপজেলায় ৪০ ভাগ মাছের ঘের ও পুকুর ভেসে গেছে। পানিতে ভেসে সাদা সোনাখ্যাত গলদা ও বাগদা চিংড়ি এবং বিপুল পরিমাণ সাদা মাছ নদ-নদীতে বেরিয়ে গেছে। বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক তপন কুমার বিশ্বাস বলেন, টানা বৃষ্টি, নিম্নচাপ ও অস্বাভাবিক জোয়ারের ফলে জেলার নয়টি উপজেলার ৫০ থেকে ৬০ ভাগ মাছের ঘের ভেসে গেছে। পানবরজ ও সবজির ক্ষেত পানিতে তলিয়ে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। সংশ্লিষ্ট কৃষি, মৎস্য বিভাগসহ সব উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে ক্ষয়ক্ষতির হিসাব নিরূপণ করতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

শীর্ষ সংবাদ:
বাংলাদেশের মানুষ তার ধর্ম পালন করবে স্বাধীনভাবে : প্রধানমন্ত্রী         করোনা : আরও এলো ২০ লাখ টিকা, বৃহস্পতিবার আসবে ৫৫ লাখ         প্রতিমাসে তিন কোটি ডোজ টিকা দেওয়া হবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী         করোনা : গত ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু ৭         অপ্রীতিকর ঘটনা রোধে সরকার প্রতিশ্রুতিবদ্ধ         পীরগঞ্জে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য একশ বান্ডিল টিন ও নগদ অর্থ বরাদ্দ         সয়াবিন তেলের দাম লিটারে বাড়লো ৭ টাকা         অপরাধের ধরন-মাধ্যম প্রতিনিয়ত পরিবর্তন হচ্ছে : এনটিএমসি পরিচালক         ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে আরও ১৫১ জন হাসপাতালে         হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘরে হামলায় বহিরাগতরাও অংশ নিয়েছিল ॥ স্পিকার         মেয়র আতিকের বিরুদ্ধে করা মামলার আবেদন খারিজ         ব্যাক্তির অপরাধে কোন সম্প্রদায়কে দায়ী করা যাবে না ॥ শিক্ষামন্ত্রী         কুমিল্লার ঘটনার মুলহোতা পলাতক, শিগগিরই গ্রেফতার ॥ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী         পা থেকে মাথা পর্যন্ত অসাম্প্রদায়িক চেতনার মূল্যবোধে সজ্জিত হতে হবে ॥ ইনু         দুর্নীতির মামলার ভয় দেখিয়ে চিকিৎসকের ৯৫ লাখ টাকা আত্মসাত ॥ গ্রেফতার ২         ‘কুমিল্লার ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত খুঁজে বের করা হবে’         অপরাধী শনাক্তে সক্ষমতা বাড়ল র‍্যাবের         যবিপ্রবিতে ফিজিওথেরাপি চিকিৎসায় রোবোটিক্স প্রযুক্তি ব্যবহার শীর্ষক সেমিনার         সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাস রুখে দেওয়ার প্রত্যয় আ.লীগের