বুধবার ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৮ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

শি জিনপিং পার্টি প্রধান পুনর্নির্বাচিত হচ্ছেন

প্রতি পাঁচ বছর পর বিশ্বের দৃষ্টি ঘুরে যায় চীনের উপর। কারণ এ সময়টায় নিজেদের নেতৃত্ব নির্বাচন করে চীনের কমিউনিস্ট পাটি। কমিউনিস্ট পার্টির নেতৃত্বে যারা আসবেন তারা ১৩০ কোটি জনসংখ্যা অধ্যুষিত পৃথিবীর দ্বিতীয় বৃহত্তম অর্থনীতি পরিচালনা করবেন। চীনের কমিউনিস্ট পার্টির ১৯তম কংগ্রেস শুরু হবে আগামী ১৮ অক্টোবর। ধারণা করা হচ্ছে, চীনের প্রেসিডেন্ট এবং কমিউনিস্ট পার্টির বর্তমান নেতা শি জিনপিং তাঁর পদে অপরিবর্তিত থাকবেন। -বিবিসি।

কংগ্রেস উপলক্ষে গোটা চীন থেকে কমিউনিস্ট পার্টির ২৩০০ প্রতিনিধি নির্বাচন করা হয়েছে। তবে ১৮ অক্টোবরের সম্মেলনে এদের মধ্য থেকে ১৩ জন অংশ নিতে পারবেন না। কারণ যথাযথ আচরণ না করায় এ ১৩ জনকে সম্মেলনে যোগদানের জন্য অযোগ্য ঘোষণা করা হয়েছে। বাকি সবাই কংগ্রেস উপলক্ষে বেজিং-এর গ্রেট হলে সমবেত হবেন। আসন্ন কংগ্রেসে বেশ গোপনীয়তার সাথে সমগ্র দেশ থেকে আসা ২৩শ’ প্রতিনিধি কমিউনিস্ট পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির জন্য ২০০ সদস্য নির্বাচিত করবেন। এছাড়া কমিউনিস্ট পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটি ২৪ সদস্য বিশিষ্ট পলিটব্যুরো নির্বাচিত করবে। এরপর সে পলিটব্যুরো থেকে সাত সদস্যবিশিষ্ট স্ট্যান্ডিং কমিটি করবে কেন্দ্রীয় কমিটি। যদিও বিভিন্ন সময় এ সংখ্যা কিছুটা কম-বেশি হতে পারে। চীনের রাষ্ট্র ক্ষমতা পরিচালনার জন্য এ স্ট্যান্ডিং কমিটি হচ্ছে সর্বসময় ক্ষমতার অধিকারী। পলিটব্যুরো কিংবা স্ট্যান্ডিং কমিটির সদস্য কারা হবেন সেটি আগেই বাছাই করে রেখেছে বর্তমান নেতৃত্ব। কেন্দ্রীয় কমিটি সেটি অনুমোদন করবে মাত্র। স্ট্যান্ডিং কমিটির কর্মপদ্ধতি সবসময় গোপন থাকে। তবে ধারণা করা হয় স্ট্যান্ডিং কমিটি প্রায়ই বৈঠকে বসে। সে বৈঠকে সিনিয়র নেতারা প্রথমে বক্তব্য রাখেন এবং তাদের মতামত তুলে ধরেন। কোন একটি বিষয়ে সবাই যাতে ঐকমত্যে পৌঁছতে পারে সেজন্য জোর দেয়া হয়। কিন্তু যদি সেটা না হয়. সেক্ষেত্রে সংখ্যাগরিষ্ঠের মতামতকে প্রাধান্য দেয়া হয়। কোন সিদ্ধান্ত নেয়া হলে সবাই সেটি মানতে বাধ্য থাকে। বিভিন্ন নীতি নির্ধারণ বিষয়ে স্ট্যান্ডিং কমিটির সভায় বিতর্ক এবং মতপার্থক্য হলেও সেগুলো জনসম্মুখে আসে না। কমিউনিস্ট পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটি দলটির শীর্ষ নেতা অর্থাৎ সাধারণ স¤পাদক নির্বাচন করে। দলের সাধারণ স¤পাদকই দেশের প্রেসিডেন্ট হন। ধারণা করা হচ্ছে, চীনের বর্তমান প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং আবারও দলের সাধারণ স¤পাদক নির্বাচিত হবেন এবং তিনি দেশের প্রেসিডেন্ট হিসেবে থাকবেন। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে কমিউনিস্ট পার্টির কিছু পদের ক্ষেত্রে অলিখিত নিয়ম-কানুন নির্ধারণ করা হয়েছে। সেক্ষেত্রে ধারণা করা হচ্ছে পলিটব্যুরোর অধিকাংশ সদস্য, যাদের বয়স ৬৮ বছরের বেশি হয়েছে, তারা হয়তো পদ ছেড়ে দেবেন। এদের মধ্যে অন্যতম হলেন চীনের দুর্নীতি দমন প্রতিষ্ঠানের প্রধান ওয়াং কিশান। তিনি বর্তমান প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং এর কাছের লোক। সেজন্য তাকে হয়তো তাঁর কাজ চালিয়ে যাবার জন্য বলা হতে পারে।

‘গুলি ছুড়ো না, আমি চে গুয়েভারা’

‘গুলি ছুড়ো না। আমি চে গুয়েভারা। আমাকে মৃত অবস্থায় পাওয়ার চেয়ে জীবিত অবস্থায় পাওয়াই তোমাদের জন্য বেশি লাভজনক’ কথাগুলো বলেছিলেন কমিউনিস্ট বিপ্লবী নেতা চে গুয়েভারা। আর্জেন্টিনায় জন্ম নেয়া এই বিদ্রোহী নেতা ১৯৬৭ সালে ৯ অক্টোবর ধৃত অবস্থায় বলিভিয়ায় নিহত হন। মারা যাওয়ার আগে যুক্তরাষ্ট্রে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত বলিভিয়ার একজন সৈন্যকে উদ্দেশ করে তিনি ওই কথা বলেন। ওয়াশিংটন পোস্ট।

চে পেশায় ছিলেন একজন ডাক্তার। তিনি ছিলেন কিউবার বিপ্লবী নেতা ফিদেল ক্যাস্ট্রোর সহচর। ক্যাস্ট্রোকে কিউবার ক্ষমতায় আসতে সহযোগিতা করেন। ১৯৫৬ সালে মেক্সিকোতে থাকার সময়ে চে কাস্ট্রোর নেতৃত্বাধীন কমিউনিস্ট আন্দোলনে যোগদান করেন। ১৯৫৯ সালে এই দল কিউবার ক্ষমতা দখলের পর তিনি রাষ্ট্রীয় বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেন। এর মধ্যে ক্যাস্ট্রো সরকারের ফায়ারিং স্কোয়াডগুলোর দায়িত্ব ছিল। এই সময় তিনি বেশ কিছু নিবন্ধ ও বই রচনা করেন। চে ১৯৬৫ সালে মেক্সিকো ত্যাগ করেন। তার ইচ্ছা ছিল আফ্রিকার কঙ্গো, কিনশাসা ও লাতিন আমেরিকার বলিভিয়ায় কমিউনিজম প্রতিষ্ঠা করা। বলিভিয়ায় থাকার সময় তিনি সিআইএ মদদপুষ্ট বলিভিয়ান বাহিনীর হাতে ধরা পড়েন। ১৯৬৭ সালের ৯ অক্টোবর বলিভিয়ার শহর লা হিগুয়েরাতে তার মৃত্যদ- কার্যকর করা হয়।

চে’কে প্রথমে বন্দী করে একটি স্কুল ঘরে আটক রাখা হয়েছিল। জীবনীকার রিচার্ড হ্যারিসের দেয়া তথ্যমতে চে যেখানে আটক হন সেখান থেকে চার মাইল দূরে তাকে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। ‘ডেথ অব এ রেভল্যুশনারি : চে গুয়েভারা’স লাস্ট মিশন’ বইটিতে তিনি একথা লিখেছেন। বলিভিয়ার সেনাবাহিনীতে কর্মরত ফিলিক্স রড্রিগেজ নামে সিআইএ’র এক চর আটক চে’র বিষয়ে সরকারের সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করতে ওই স্কুলে যান। তার চুলে জট ধরেছিল, পরনের শার্ট ছিল ময়লা ও ছিন্নভিন্ন। যুক্তরাষ্ট্র চেয়েছিল চে’কে জীবিত অবস্থায় ধরা হোক যেন তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা যায়। কিন্তু বলিভিয়া সরকার চেয়েছিল তাকে মেরে ফেলা হোক। কারণ দীর্ঘ সময় নিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে বিচার চললে তার প্রতি জনগণের সহানুভূতি বেড়ে যেতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্রে ভয়াবহ দাবানল ॥ ১০ জনের মৃত্যু

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যের ওয়াইন কাউন্টিতে ছড়িয়ে পড়া দাবানলে অন্তত ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। দাবানলে সোমবার ওই এলাকার দেড় হাজার ঘরবাড়ি ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পুড়ে ভস্ম হয়ে গেছে এবং প্রায় ২০ হাজার মানুষ তাদের বাসস্থান ছেড়ে যেতে বাধ্য হয়েছে। খবর এএফপি, বিবিসি, ওয়াশিংটন পোস্ট ও নিউইয়র্ক টাইমসের।

এ বছর ক্যালিফোর্নিয়ায় দাবানলের কারণে এই প্রথম মৃত্যুর ঘটনা ঘটল বলে জানিয়েছেন অঙ্গরাজ্যটির কর্মকর্তারা। অঙ্গরাজ্যটিতে এক দশকের মধ্যে এবারই দাবানলের একটি ঘটনায় সবচেয়ে বেশি মানুষের মৃত্যু হলো বলে মনে করছেন তারা। ক্যালিফোর্নিয়ার গবর্নর জেরি ব্রাউন নাপা, সোনোমা ও ইউবা কাউন্টিতে জরুরী অবস্থা জারি করেছেন। অঙ্গরাজ্যটির সেরা ওয়াইন প্রস্তুতকারী এলাকাগুলোর মধ্যে এই তিনটি কাউন্টি অন্যতম। পুরো এলাকাটি ঘন ধোঁয়ায় ঢাকা পড়ে গেছে এবং বাতাসের কারণে আগুন নিয়ন্ত্রণহীনভাবে ছড়িয়ে পড়ে স্যানফ্রান্সিসকো বে এলাকার দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। ব্রাউন পরে উত্তর ক্যালিফোর্নিয়ার আরও চারটি কাউন্টি ও দক্ষিণ ক্যালিফোর্নিয়ার অরেঞ্জ কাউন্টিকেও জরুরী অবস্থার আওতাভুক্ত করেন।

টেক্সাস টেক ভার্সিটিতে ছাত্রের গুলিতে পুলিশ নিহত

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের লুবকে অবস্থিত টেক্সাস টেক বিশ্ববিদ্যালয়ে এক ছাত্রের গুলিতে এক পুলিশ কর্মকর্তা নিহত হয়েছেন। সোমবারের এ ঘটনায় সন্দেহভাজন ছাত্রকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে গ্রেপ্তারের আগ পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস ঘিরে ফেলে সব ধরনের কার্যক্রম বন্ধ রাখা হয়েছিল বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা। নিউইয়র্ক টাইমস।

এক ইমেইল বার্তায় বিশ্ববিদ্যালয়য়ের মুখপাত্র ক্রিস কুক জানিয়েছেন, সোমবার ভোররাতে টেক্সাস টেক পুলিশ ছাত্রদের নিরাপত্তা পরিস্থিতি পরীক্ষা করতে যায়। ওই ছাত্রের কাছে মাদক পাওয়ার পর তাকে ক্যা¤পাসের পুলিশ স্টেশনে নিয়ে যান কর্মকর্তারা।

রাশিয়ার সঙ্গে এস-৪০০ চুক্তি বাতিল করতে পারে তুরস্ক

তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত চাভাসগ্লু বলেছেন, রাশিয়া যদি তার অত্যাধুনিক এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার প্রযুক্তি সরবরাহ না করে তাহলে মস্কোর সঙ্গে এ সংক্রান্ত চুক্তি বাতিল করে দিতে পারে আঙ্কারা। প্রেস টিভি।

তিনি আরও বলেছেন, সেক্ষেত্রে এস-৪০০’র পরিবর্তে অন্য কোন দেশ থেকে ভিন্ন কোন ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা সংগ্রহ করবে তুরস্ক। চাভাসগ্লু তুর্কি দৈনিক ‘আকসাম’কে দেয়া এক সাক্ষাতকারে আরও বলেছেন, তার দেশ এর আগে এই ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা যৌথভাবে উৎপাদনের ব্যাপারে মস্কোর সঙ্গে একটি নীতিগত সমঝোতায় পৌঁছেছিল। তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এখন রাশিয়া তাতে অসম্মতি জানালে অন্য কোন দেশের সঙ্গে চুক্তি সই করবে তুরস্ক। কিন্তু এখন পর্যন্ত এ ব্যাপারে মস্কোর পক্ষ থেকে আঙ্কারা কোন নেতিবাচক জবাব পায়নি বলেও জানান চাভাসগ্লু। রাশিয়ার কাছ থেকে এস-৪০০ কেনার ব্যাপারে আঙ্কারা ও মস্কোর মধ্যে চুক্তি সই হওয়ার এক মাসেরও কম সময়ের মধ্যে তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ প্রতিক্রিয়া জানালেন।

শীর্ষ সংবাদ:
লুটপাটে নিঃস্ব গ্রাহক ॥ পি কে হালদারের থাবা         অর্থ ব্যয়ে সাশ্রয়ী হোন অপচয় করা যাবে না         তামিমের সেঞ্চুরি- বাংলাদেশের দাপট         প্রকল্প কমিয়ে অর্থায়ন বাড়িয়ে উন্নয়ন বাজেট অনুমোদন         জাতীয় সরকারের নামে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টি করতে দেয়া হবে না         চুরি, ছিনতাই করতে কক্সবাজার থেকে ঢাকা আসত ওরা         পণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণের উপায় খুঁজছে সরকার         অর্থপাচারকারীরা কোন দেশে গিয়েই শান্তি পাবে না         সিলেটে কয়েক লাখ মানুষ পানিবন্দী         সড়ক যেন ধান শুকানোর চাতাল, প্রাণ গেল বাইক আরোহীর         অবশেষে তথ্য অধিকার আইনে তথ্য দিল পুলিশ         ভোলায় বেইলি ব্রিজ ভেঙ্গে ট্রাক অটোরিক্সা খালে         ১১ ডিজিটের নতুন নম্বরে বিপাকে গ্রাহক         কিউআর কোড দিয়ে ভুয়া নিয়োগপত্র দিত ওরা         জিআই সনদ পেলো বাগদা চিংড়ি         জনগণের অর্থ ব্যয়ে সাশ্রয়ী হতে হবে ॥ প্রধানমন্ত্রী         বাস্তব শিক্ষার সঙ্গে শিক্ষার্থীদের সম্পৃক্ত করার আহ্বান শিক্ষা উপমন্ত্রীর         ডলারের দাম ১০২ টাকার বেশি         সিলেটে বন্যার আরও অবনতির আশঙ্কা         কানের ভেন্যুতে ‘মুজিব’-এর পোস্টার