বুধবার ৮ আশ্বিন ১৪২৭, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

উৎসবের সাজ

স্বাচ্ছন্দ্যের জন্য ইচ্ছেমতো পোশাক পরলেও সব জায়গায় সব ধরনের পোশাক পরে যাওয়া ঠিক না। যেমন ক্লাসে বা অফিসে নিশ্চয়ই গাউন পরে কেউ যেতে চাইবে না। সময় এবং স্থান বুঝেই পোশাকটি বেছে নিতে হয়। ক্লাস কিংবা বাইরের কাজে জিন্স, টি-শার্ট পরতে পারেন। অফিসের জন্য ফর্মাল শার্ট-প্যান্ট ও মানানসই। বন্ধুদের আড্ডায় কিংবা চায়ের দাওয়াতে জিন্স, টপস বা কুর্তি অনেককেই ভাল মানাবে। আবার জমকালো কোন পার্টিতে একটু ভারি গাউন হলে দারুণ জমে যাবে। তবে পোশাকের সঙ্গে সাজটিও হতে হবে মানানসই। লিখেছেন- সাবিহা বিনতে সুফিয়ান

পোশাকের ধরনের পাশাপাশি মেকআপ হতে হবে দিন-রাতের ওপর নির্ভর করে। দিনেরবেলায় ক্যাজুয়াল ড্রেসের মেকআপ খুব সাদামাটা হওয়া চাই। বিশেষ করে বেস মেকআপটা একটু হালকাই মানাবে আধুনিক পোশাকের সঙ্গে। হালকা সাজের মধ্যে পাউডার-কাজল ব্যবহার করতে পারেন। ঠোঁটে হালকা গোলাপি বা বাদামি গ্লস লাগাতে পারেন। ম্যাট লিপস্টিকও লাগাতে পারেন। রাতের পার্টি হলে লাল, গোলাপির মতো উজ্জ্বল রং বা নুড কালারের লিপস্টিক ব্যবহার করতে পারেন।

ফর্মাল পোশাক পরলে মেকআপে একটা মিশ্রভাব থাকতে হবে। প্রথমে ফাউন্ডেশন দিন। তৈলাক্ত ত্বকে ম্যাট আর শুষ্ক ত্বকে অয়েল বেজড ফাউন্ডেশন দিন। আইশ্যাডো ব্যবহার করতে হলে মোটা করে আইলাইনার দিতে পারেন। চোখের মেকআপ গাঢ় করলে ঠোঁটে লিপস্টিক হালকা দেবেন। চোখের সাজ হিসেবে স্মোকি আই খুব মানায়। তবে তা কোন পার্টি কিংবা দাওয়াতে ভাল লাগবে, অফিস বা কাজের ক্ষেত্রে নয়। চোখকে স্মোকি সাজ দিতে চাইলে বেছে নিতে হবে ব্রাউন, ব্লাক, এ্যাশ কালারের আইশ্যাডো। ব্লাশঅনটাও হতে পারে বাদামি রঙের।

পশ্চিমা যে কোন পোশাকের সঙ্গে পনিটেল খুব মানানসই। গাউন পরলে চুলে ব্যাঙ্গসটা খুব মানায়। যে কোন পার্টি সাজের জন্য চুলে ব্যাঙ্গস করা যেতে পারে। এছাড়া ক্যাজুয়াল বান অথবা কার্ল রিং বান, যেভাবে আপনার পছন্দ চুলগুলোকে বেঁধে নিন। চাইলে চুল ছেড়েও রাখতে পারেন। চুলে ভুল করেও ফুল দেবেন না। পশ্চিমা পোশাকের সঙ্গে ফুল একদমই মানায় না।

গরমের এই সময়ে সাজ নিয়ে সবাইকেই বেশ ঝামেলায় পরতে হয়। কোন সাজে আপনাকে সতেজ লাগবে আর আপনার ত্বকের সঙ্গে মানিয়ে যাবে তা ভাবতে ভাবতেই পার্টিতে কিংবা গন্তব্যে পৌঁছতে দেরি হয়ে যায়। আর সাজের ক্ষেত্রে তা মন মতো না হলে আর তাতে নিজেকে ভালভাবে উপস্থাপন করতে না পারলে সারাটা দিনই খারাপ কাটে। এই গরমে সাজ ঠিক রাখতে আর নিজেকে সতেজ দেখাতেই অনেকটা সময় চলে যায়। কিন্তু ছোট ছোট কিছু বিষয় খেয়াল করলে এই গরমেও আপনার সাজ থাকবে পরিপাটি। আর যেহেতু এখন পূজা, নিজেকে আরও একটু পরিপাটি করা চাই।

হালকা মেকআপ

বছর ঘুরে পূজা। ভ্যাবসা গরম। গরমের সময় সাজের দিকে সবচেয়ে কঠিন কাজ হচ্ছে মুখের মেকাপ। ত্বকের আর্দ্রতার মাত্রা ঠিক রেখে সাজের সবদিক ঠিক রাখা বেশ কঠিন। গরমের সময় যখনি মুখে মেখাপ লাগাতে যাবেন তার আগে মুখ ফেস ওয়াস দিয়ে ধুয়ে নিন। এর পরে ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন। কিছুক্ষণ অপেক্ষা করে এরপরই বিবি ক্রিম বা ফাউন্ডেশন ব্যবহার করুন। এতে মেকাপ করলে মুখে তা খুব সহজে বসবে এবং উঠে যাবে না। আর ক্রিম বা ফাউন্ডেশন ত্বকে যেন ভালভাবে ব্লেন্ড হয় সেদিকেও লক্ষ্য রাখুন। এতে আপনাকে সারাদিন বেশ সতেজ আর প্রাণবন্ত লাগবে।

ব্লাশন

গরমে ব্লাশন লাগাতে একটু ভুল হলে তা সাজের পরও বিষয়টি নষ্ট করে দেয়। তাই এই গরমে ক্রিম বেইজ ব্লাশন বেছে নেয়া উচিত এটি দীর্ঘস্থায়ী হয়। আর এই আবহাওয়ায় উজ্জ্বল রং এড়িয়ে হালকা ব্লাশন বেছে নেয়াই ভাল। যার মধ্যে আপনি বেঁছে নিতে পারেন এ্যাপ্রিকোট বা কোরাল, হালকা গোলাপি ইত্যাদি রংগুলো। বাড়তি উজ্জ্বলতা যুক্ত করতে ব্লাশনের ওপর হালকা করে ব্রোঞ্জার বুলিয়ে নিতে পারেন।

চোখের সাজ

গরমে চোখে সাজের ক্ষেত্রে চকচকে শ্যাডো এড়িয়ে চলুন। হালকা রঙের শ্যাডো দিয়ে পাপড়ি ঘেঁষে লাইনার টেনে নিন। চাইলে রঙিন লাইনারও ব্যবহার করা যেতে পারে। চোখের নিচে দিতে পারেন কাজল, এরপর হালকা করে স্মাজ করে নিন। ওপরের ও নিচের পাপড়িতে ঘন করে মাস্কারা লাগিয়ে নিতে পারেন। তবে তা ওয়াটার প্রুফ হলে সবচেয়ে ভাল হয় গরমের এই সময়ের সাজের ক্ষেত্রে।

লিপস্টিক

গরমের এই সময়ে হালকা রঙের আর ম্যাট লিপস্টিক আপনার জন্য সবচেয়ে ভাল নির্বাচন হবে। মেজেন্টা, লাল, চড়া গোলাপি কিংবা বেগুনি রঙের ম্যাট লিপস্টিকেও আপনাকে দারুণ মানাবে আর সতেজ দেখাবে।

শীর্ষ সংবাদ:
টিকিটের দাবিতে আজও সৌদি প্রবাসীদের বিক্ষোভ         জাহালমের ক্ষতিপূরণের রায় ২৯ সেপ্টেম্বর         করোনার কারণে এবার নোবেল পুরস্কার অনুষ্ঠান স্থগিত         যানবাহন পরীক্ষায় আরও ফিটনেস সেন্টার স্থাপনের নির্দেশ         ওমরাহ পালনে কাবা ঘর খুলে দিচ্ছে সৌদি         বাংলাদেশে বায়োফ্লক পদ্ধতিতে তরুণরা মাছ চাষে আগ্রহী হয়ে উঠছেন         করোনা ॥ ভারতে সুস্থতার হার ৮০ শতাংশ         জাতিসংঘের অধিবেশন : সংহতির ওপর জোর দিলেন মহাসচিব         যেখানে ডেঙ্গু বেশি সেখানে করোনা কম ॥ গবেষণা         যুক্তরাষ্ট্র মৃতের সংখ্যা ২ লাখ ছাড়িয়েছে         করোনা না যেতেই যুক্তরাষ্ট্রে ‘টুইনডেমিক’ আতঙ্ক         আবার জাতিসংঘের ভাষণে করোনাকে ‘চীনা ভাইরাস’ বললেন ট্রাম্প         শুধু মাত্র মুসলিম হওয়ার কারণে হোটেল থেকে তাড়িয়ে দেয়া হল         আমেরিকার ইরানবিরোধী পদক্ষেপ মানবে না ইউরোপ ॥ ম্যাকরন         ইরানের কাছে অস্ত্র বিক্রির ব্যাপারে চীন ও রাশিয়াকে পম্পেও'র হুমকি         আমেরিকার পরবর্তী প্রেসিডেন্ট ইরানের কাছে আত্মসমর্পণ করবে ॥ জাতিসংঘে রুহানি         প্রতিরোধের প্রস্তুতি ॥ শীতে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের আশঙ্কা         বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় বাস্তবসম্মত রোডম্যাপ চাই         সাউদিয়ার টিকেট নিয়ে হাহাকার- ক্ষোভ প্রবাসীদের         স্বাস্থ্যখাত যেন লুটপাটের সোনার খনি