বুধবার ৮ আশ্বিন ১৪২৭, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

ন্যায়বিচার পাওয়ার আশা নিহত সাংবাদিক পরিবারের

দুই নারী ভক্তকে ধর্ষণ মামলায় ডেরা সাচ্চা সৌদার প্রধান গুরমিত রাম রহিম সিং দোষী সাব্যস্ত হওয়ার পর রামচন্দ্র ছত্রপতি নামে নিহত সাংবাদিক পরিবার এবার ন্যায়বিচার পাওয়ার বিষয়ে আশাবাদী হয়ে উঠেছে। গুরুমিত সিংয়ের যৌন কেলেঙ্কারি নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশের জন্য তার ভক্তদের হাতে রামচন্দ্র ২০০২ সালে প্রাণ হারিয়েছিলেন বলে ধারণা করা হয়। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

গুরমিত সিংকে শুক্রবার যে সিবিআই আদালত দোষী সাব্যস্ত করেছে রামচন্দ্রের মামলারও তদন্ত করছে সেই একই আদালত। রামচন্দ্র গুলিবিদ্ধ হওয়ার পর ২৮ দিন হাসপাতালে ছিলেন। তার মৃত্যুকালীন জবানবন্দী একজন ম্যাজিস্ট্রেটকে দিয়ে রেকর্ড করানো হয়নি। ধর্ষণ মামলায় দোষী সাব্যস্ত হওয়ার পর সন্তোষ প্রকাশ করেছেন রামচন্দ্রের ছেলে অংশুল। তিনি বলেছেন, ‘এ রায়ে আমরা খুশি। কেবল আমাদের জন্যই না, সারাদেশের মানুষের জন্য খুশির খবর। প্রমাণিত হলোÑ ডেরা প্রধানের মতো প্রভাবশালী মানুষের বিরুদ্ধে আইনী লড়াই করেও জেতা সম্ভব। বিচার বিভাগকে যে প্রভাবিত করা সম্ভব নয় তাও এ রায়ের মাধ্যমে প্রমাণিত হয়েছে।’ ৩৫ বছর বয়সী অংশুল পুলিশ প্রহরায় থাকেন। তিনি আরও বলেন, ‘বিষয়টি ধর্ষণের মামলার হলেও এটি আমাদের মামলাকেও জোরদার করবে। ডেরা প্রধানের বিরুদ্ধে এখন দুটি হত্যা মামলা সচল হয়েছে। একটি হলো ডেরার রঞ্জিত সিং নামে এক ভক্তের হত্যাকা-ে জড়িত থাকার বিষয়ে। অপরটি রামচন্দ্র হত্যা মামলা। অংশুল বলেন, ‘আমরা আশা করছি ন্যায়বিচার পাওয়া যাবে। কারণ মামলার মধ্যে পারস্পরিক সম্পর্ক রয়েছে। রঞ্জিত সিংও গুরমিত সিংয়ের যৌন কেলেঙ্কারির খবর ফাঁসের কাজে সহায়তা করেন। ধারণা করা হয় তিনি গুরুমিত সিংয়ের কেলেঙ্কারির বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছে একটি উড়ো চিঠি পৌঁছে দিতে সহায়তা করেছিলেন। ওই চিঠির ভিত্তিতে পাঞ্জাব ও হরিয়ানার হাইকোর্ট এ বিষয়ে তদন্ত চালানোর জন্য সিবিআইকে নির্দেশ দেয়। অংশুল জানিয়েছেন, তার বাবার হত্যাকা-ের বিষয়ে তদন্ত প্রায় চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে। ১৬ সেপ্টেম্বর এর ওপর পরবর্তী শুনানি অনুষ্ঠিত হবে। রামচন্দ্র নিজ বাসায় থাকায় অবস্থায় ২০০২ সালের ২৪ অক্টোবর গুলিবিদ্ধ হন।

করোনাভাইরাস আপডেট
বিশ্বব্যাপী
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
৩১৫০৭৬৮৫
আক্রান্ত
৩৫২১৭৮
সুস্থ
২৩১৩৪৭১২
সুস্থ
২৬০৭৯০
শীর্ষ সংবাদ:
প্রতিরোধের প্রস্তুতি ॥ শীতে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের আশঙ্কা         বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় বাস্তবসম্মত রোডম্যাপ চাই         সাউদিয়ার টিকেট নিয়ে হাহাকার- ক্ষোভ প্রবাসীদের         স্বাস্থ্যখাত যেন লুটপাটের সোনার খনি         নেদারল্যান্ডস-নিউজিল্যান্ড থেকে পেঁয়াজ আসছে         করোনায় দেশে মৃত্যু পাঁচ হাজার ছাড়িয়েছে         জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দিনরাত কাজ করছেন প্রধানমন্ত্রী         ৮ বিভাগে ৭১ উপজেলায় প্রশিক্ষণ কেন্দ্র স্থাপন করা হচ্ছে         শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার আগে এইচএসসি পরীক্ষা হচ্ছে না         কুকুর নিধন কিংবা অপসারণ করবে না উত্তর সিটি         জলবায়ু পরিবর্তনে ঠিক থাকছে না শরতের আবহাওয়া         স্ত্রীর কথায় হাতি কিনলেন দরিদ্র কৃষক         অবশেষে কালুরঘাটে সড়ক-রেল সেতু নির্মাণ হচ্ছে         জার্মানির সঙ্গে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বৃদ্ধিতে কাজ করতে হবে : স্পিকার         অর্থনীতি সচল রেখে করোনার দ্বিতীয় ওয়েভ মোকাবিলা করা হবে : মন্ত্রিপরিষদ সচিব         ৫৪ হাজার রোহিঙ্গাকে ফেরত দিতে চায় সৌদি : পররাষ্ট্রমন্ত্রী         শ্রমিকের বেতন নিয়ে তালবাহানা মানা হবে না : সাকি         আইন অনুযায়ী নুরের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী         বাড়ির পাশ দিয়ে রাস্তা নেয়ার জন্য বাড়তি সড়ক না নির্মাণের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর         কারা ডিআইজি বজলুরের সম্পতি ক্রোক ও ব্যাংক হিসাব ফ্রিজের নির্দেশ