ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ৩০ জুন ২০২২, ১৬ আষাঢ় ১৪২৯

পরীক্ষামূলক

জাতীয়

খুলনায় আওয়ামী লীগ নেতার ভাইকে কুপিয়ে হত্যা

প্রকাশিত: ০৫:৪৯, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৭

খুলনায় আওয়ামী লীগ নেতার ভাইকে কুপিয়ে হত্যা

স্টাফ রিপোর্টার, খুলনা অফিস ॥ খুলনায় আওয়ামী লীগ নেতার ভাই মৎস্যঘের মালিক মহিদুল ইসলাম বন্দকে (৪০) কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। সোমবার সকাল সাড়ে আটটার দিকে আড়ংঘাটা থানার বিল পাবলা এলাকার একটি মাছের ঘেরের পাড় থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত মহিদুল ইসলাম বন্দ নগরীর দৌলতপুর থানাধীন দেয়ানা এলাকার মৃত মোক্তার হোসেন বন্দের ছেলে ও দৌলতপুর থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শহীদুল ইসলাম বন্দের ছোট ভাই। জানা গেছে, রবিবার সন্ধ্যা সাতটার দিকে মহিদুল ইসলাম বন্দ আড়ংঘাটা থানা এলাকার বিল পাবলায় তার মাছের ঘেরে যান। রাতে তিনি আর বাড়ি ফেরেননি। সোমবার সকাল সাড়ে আটটার দিকে এলাকাবাসীর মাধ্যমে খবর পেয়ে পরিবারের লোকজন তার ঘেরের পার্শ্ববর্তী একটি ঘেরের বাঁধ থেকে মহিদুলের গলাকাটা লাশ উদ্ধার করে। নিহত মহিদুল বন্দের গলা, মুখ ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এ বিষয়ে আড়ংঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাসিম খান বলেন, পার্শ্ববর্তী ঘেরের মাছ চুরির ঘটনা কেন্দ্র করে এই হত্যাকা-ের ঘটনা ঘটতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। হত্যাকা-ে জড়িতদের ধরতে পুলিশ তৎপর রয়েছে বলে ওসি জানান। বাগমারায় যুবক খুন ॥ স্টাফ রিপোর্টার জানান, রাজশাহীর বাগমারায় এক যুবক খুন হয়েছেন। সোমবার সকালে গনিপুর ইউনিয়নের গঙ্গানারায়ণপুর গ্রামের রাস্তার পাশ থেকে পিন্টু মিয়া (৩০) নামে ওই যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়। তিনি আচিনঘাট গ্রামের আসগর আলীর ছেলে। পিন্টুকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন তার বাবা আসগর আলী। পুলিশ অফিসারের স্ত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার ॥ স্টাফ রিপোর্টার বরিশাল থেকে জানান, নগরীর কাশীপুর আনসার ও ভিডিপি অফিসের পিছনের ভাড়া বাসা থেকে রবিবার রাতে সুরভী আক্তার মুনি (২৭) নামে এক পুলিশ অফিসারের স্ত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে নিহতের শরীরে আঘাতের চিহ্ন থাকায় বিষয়টি রহস্যজনক বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা। সুরভী নগর গোয়েন্দা পুলিশের এএসআই নুরে আলমের স্ত্রী। পাবনায় ইজিবাইক চালককে হত্যা ॥ নিজস্ব সংবাদদাতা জানান, পাবনায় চালককে হত্যা করে ইজিবাইক ছিনতাই করেছে দুর্বৃত্তরা। সোমবার সকালে সদর উপজেলার রাখালগাছি খোদাইপুর গ্রামের মাঠের মধ্যে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ইজিবাইক চালক মানিক হোসেন (২৫) পাশর্^বর্তী চর বাঙ্গাবাড়িয়া গ্রামের আব্দুল গফুরের ছেলে। নিহতের গলায় আঘাতের চিহ্ন দেখে পুলিশের প্রাথমিক ধারণা, মানিককে শ্বাসরোধে হত্যার পর ইজিবাইক নিয়ে পালিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় নিহতের বাবা আব্দুল গফুর বাদী হয়ে পাবনা সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাই খুন ॥ নিজস্ব সংবাদদাতা জানান, গোপালগঞ্জে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে ফরিদ সিকদার (৪২) নামে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা করেছে তার আপন ছোট ভাই ও ভাইপো-ভাগ্নেরা। রবিবার রাত ৯টার দিকে সদর উপজেলার গোপীনাথপুর কাজিপাড়ার আতিয়ার খাঁর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ঘটনাস্থল থেকে ছোট ভাই মিরাজ সিকদার (৪০), ভাইপো আমীর হোসেন (১২) ও রিয়াজ সিকদার (১৩) এবং ভাগ্নে আল-আমীন মোল্লাকে (২৮) আটক করেছে পুলিশ। ফরিদ সিকদার ও মিরাজ সিকদার নড়াইলের নড়াগাতী থানার জয়নগর গ্রামের আব্দুল জলিলের ছেলে। আটককৃতদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বাবার রেখে যাওয়া সম্পত্তি নিয়ে মিরাজ সিকদার ও বড় ভাই ফরিদ সিকদারের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। বিরোধের জেরে ফরিদ সিকদার শনিবার বিকেলে মিরাজ সিকদারের ২টি ঘর ও আল-আমিনের ১টি ঘর আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয় এবং গোপালগঞ্জে এসে কাজীপাড়া গ্রামে তার খালু আতিয়ার খাঁর বাড়িতে অবস্থান নেয়। পরে খবর পেয়ে রবিবার রাতে মিরাজ সিকদার ও তার দু’ছেলে এবং ভাগ্নেকে নিয়ে ওই বাড়িতে এসে ঘরে ঢুকে বড় ভাই ফরিদ সিকদারকে রাম দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে। এ সময় বাড়ির লোকজনের চিৎকারে স্থানীয় লোকজন ছুটে আসে এবং বাড়িটি ঘেরাও করে রাখে। একপর্যায়ে বিক্ষুব্ধ জনতার হাত থেকে বাঁচতে খুনীরা ওই বাড়ির একটি কক্ষে আত্মগোপন করে। পরে পুলিশ গিয়ে তাদের উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। তারা ফরিদ সিকদারকে রাম দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করার কথা পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে। গোপালগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) গোলাম ফারুক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।