শনিবার ৯ মাঘ ১৪২৮, ২২ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

‘মেক্সিকো দেয়াল’ তৈরি শীঘ্রই শুরু

  • মন্দ লোকদের দেশ থেকে বের করব ॥ কনজারভেটিভদের অনুষ্ঠানে ট্রাম্প

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প মেক্সিকো সীমান্তে ‘শীঘ্রই, প্রত্যাশিত সময়ের অনেক আগেই’ এক দেয়াল নির্মাণ শুরু করার সঙ্কল্প ব্যক্ত করেছেন। তিনি শুক্রবার কনজারভেটিভদের এক অনুষ্ঠানে ভাষণ দিচ্ছিলেন। এদিকে, মেক্সিকো ট্রাম্পের প্রস্তাবিত সীমান্ত কর নিয়ে শুক্রবার তার বিরুদ্ধে কড়া মনোভাব ব্যক্ত করেছে। মেক্সিকো সতর্ক করে দিয়েছে যে, যুক্তরাষ্ট্র কোন সীমান্ত কর আরোপ করলে সে পাল্টা ব্যবস্থা নেবে। মেক্সিকো আরও বলেছে যে, সীমান্ত দেয়াল নির্মাণের জন্য ব্যয় মেটাতে প্রত্যাহার করা হতে পারে এমন মার্কিন আর্থিক সহায়তা হারাতে সে প্রস্তুত রয়েছে। খবর বিবিসি ও টেলিগ্রাফ অনলাইনের।

কনজারভেটিভ পলিটিক্যাল এ্যাকশন কংগ্রেসে (সিপিএসি) ভাষণ দেয়ার সময় ট্রাম্প আমেরিকান নাগরিকদের নিরাপত্তাকে প্রথমে স্থান দেয়া এবং এক বিরাট সীমান্ত দেয়াল নির্মাণের অঙ্গীকার করেন। তিনি সে দেশ থেকে খারাপ লোকদের বের করে দেয়ার দিকেও দৃষ্টিদানের প্রতিশ্রুতি দেন। তিনি যখন ম্যারিল্যান্ডে আয়োজিত ওই বার্ষিক অনুষ্ঠানে ভাষণ দিচ্ছিলেন তখন লোকজন ‘যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাষ্ট্র’ সেøাগান দিয়ে তাকে অভিনন্দন জানান। ট্রাম্পের দেয়াল নির্মাণের ওই প্রতিশ্রুতিদানের একদিন আগে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন এবং হোমল্যান্ড সিকিউরিটি মন্ত্রী জন কেলি মেক্সিকো সিটিতে তাদের প্রতিপক্ষদের সঙ্গে সাক্ষাত করেন। তাদের রুদ্ধদ্বার বৈঠকের পর তাদের কেউই বৃহস্পতিবারের সংবাদ সম্মেলনে দেয়ালের বিষয়ে কোন কিছু উল্লেখ করেননি। হোমল্যান্ড সিকিউরিটি দফতরের অভ্যন্তরীণ রিপোর্টের উদ্ধৃতি দিয়ে বার্তা সংস্থা দেয়াল নির্মাণে ২ হাজার ১শ’ ৫০ কোটি ডলার ব্যয় হতে পারে বলে জানায়। এটি ট্রাম্পের ধারণা করা ১ হাজার ২শ’ কোটি ডলারের তুলনায় অনেক বেশি। ট্রাম্পকে দেয়াল নির্মাণের কাজে হাত দেয়ার আগে তহবিলের জন্য কংগ্রেসের অনুমোদন নিতে হবে। মেক্সিকো পরে দেয়াল নির্মাণের ব্যয় পরিশোধ করবে বলে ট্রাম্প জোর দিয়ে এসেছেন। মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট এনরিজ নেইতো ট্রাম্পের দেয়াল নির্মাণে অর্থ যোগাবেন না বলে ইতোপূর্বে জানান। শুক্রবার প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এ কথাও বলেন যে, তিনি তথাকথিত ইসলামিক স্টেটকে ‘সম্পূর্ণভাবে নিশ্চিহ্ন’ করার এক পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করছেন। তিনি বলেন, বিদেশী সন্ত্রাসীরা যদি আমেরিকাতে ঢুকতে না পারে, তবে তারা আমেরিকায় আঘাত আনতে পারবে না।

যখন তিনি তার ‘আমেরিকা প্রথম’ দৃষ্টিভঙ্গির ওপর জোর দেন, তখনই সবচেয়ে বেশি করতালি পড়ে। তিনি বলেন, বিশ্বজুড়ে সহযোগিতা, অন্যান্য দেশের সঙ্গে আদান-প্রদান ভাল। এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু বিশ্ব সঙ্গীত, বিশ্ব মুদ্রা বা বিশ্ব পতাকা বলে কোন কিছু নেই। তিনি বলেন, এটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, আমি যার প্রতিনিধিত্ব করছি। আমি বিশ্বের প্রতিনিধিত্ব করছি না। আমি আমার দেশের প্রতিনিধিত্ব করছি।

শীর্ষ সংবাদ:
মোবাইল ব্যাংকিংয়ে লেনদেন ৯০ হাজার কোটি টাকা         অতিরিক্ত আইজিপি হলেন ৭ কর্মকর্তা         করোনা টেস্ট ॥ চাপ বাড়ছে হাসপাতালে         বর্তমানে মজুদ রয়েছে ৯ কোটি টিকা ॥ তথ্যমন্ত্রী         রাজধানীতে ৯ কেজি গাঁজাসহ আটক ১         প্রতারকের খপ্পরে পড়ে ১৮ দিনের সন্তান বিক্রি         দেখানোর জন্য নয়, নিজের স্বার্থেই পরতে হবে মাস্ক         ইয়েমেনের কারাগারে সৌদি হামলায় নিহত ৭০         নীলক্ষেত থেকে সরে গেলেন শিক্ষার্থীরা         ৩ বিভাগে বৃষ্টির পূ্র্বাভাস         মুম্বাইয়ে বহুতল ভবনে আগুন, নিহত ৭         রাজধানীতে জাল টাকাসহ গ্রেফতার ১         মা হলেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া         বিশ্বে একদিনে করোনা শনাক্ত ৩৬ লাখ, মৃত্যু ৯ হাজার         সাকিবের হাসিতে শুরু বিপিএল         ফের বন্ধ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ॥ করোনার লাগাম টানতে পাঁচ জরুরী নির্দেশনা         বাবার সম্পত্তিতে পূর্ণ অধিকার পাবেন হিন্দু নারীরা ॥ ভারতীয় সুপ্রীমকোর্ট         উচ্চারণ বিভ্রাটে...         বাণিজ্যমেলার ভাগ্য নির্ধারণে জরুরী সিদ্ধান্ত কাল         আলোচনায় এলেও আন্দোলনে অনড় শিক্ষার্থীরা