শনিবার ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

শেরপুরে মাঠজুড়ে আগাম সবজি

শেরপুরে মাঠজুড়ে আগাম সবজি

নিজস্ব সংবাদদাতা, শেরপুর ॥ কৃষি, খাদ্য ও শস্য ভান্ডার হিসেবে খ্যাত শেরপুরের নকলা উপজেলার বিস্তীর্ণ মাঠজুড়ে এখন আগাম সবজির সমারোহ। এ উপজেলা দিয়ে বয়ে যাওয়া ৫ টি নদীর চরাঞ্চলসহ সর্বত্র এবার শাক সবজি চাষ হয়েছে। যে কারণে ওইসব নদীর দু’তীরের যেদিকেই চোখ যায়, সেদিকেই শুধু আগাম শাক সবজির সমারোহ চোখে পড়ে। উৎপাদিত সবজির মধ্যে বেগুন, লাউ, করলা, সীম, গাজর, টমেটো, মূলা, ফুলকপি, বাধাঁকপি, শসা, বরবটি ও বিভিন্ন জাতের শাক এলাকার চাহিদা মিটিয়ে পার্শ্ববর্তী জেলা-উপজেলাসহ রাজধানী ঢাকাতেও সরবরাহ হচ্ছে। ফলে আগাম সবজির বাম্পার ফলন ও ভালো দাম পাওয়ায় ভাগ্যও খুলছে কৃষকদের।

উপজেলা কৃষি অফিসের তথ্যমতে, চলতি মৌসুমে ২ হাজার ৭শ ৫০ একর জমিতে শীতকালীন সবজি চাষের লক্ষ্যমাত্রা ছিল। তার মধ্যে কেবল আগাম জাতের সবজি চাষ হয়েছে ৬'শ একর জমিতে। শীতকালীন শাক সবজি চাষির সংখ্যা ২৫ হাজার হলেও আগাম চাষির সংখ্যা ৫/৬ হাজার জন।

সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, চিথলিয়া, জালালপুর, গজারিয়া, বাছুরআলগা, চকবড়ইগাছি, ভূরদী, বানেশ্বর্দী, ছোট মোজারবাজার, কান্দাপাড়া, গরেরগাও, লাভাসহ প্রায় ২০টি গ্রামেই সবুজ সবজির সমারোহ। আর ওইসব সমারোহ এনে দিয়েছে আগাম সবজির চাষ। কথা হয় বাছুরআলগা গ্রামের সবজি চাষি রাজু মিয়ার সাথে। তিনি জানান, বর্ষা মৌসুমে উপজেলার ৫ টি নদী পানিতে ভরা থাকে। ফলে পলি মাটির তলানি পড়ে, যা শাক সবজি চাষের জন্য অতি উপযোগি মাটি। ওই জমিতে ধান আবাদ করা না গেলেও শাক সবজি চাষ করলে অন্য যেকোন ফসলের চেয়ে ৩/৪ গুন লাভ বেশি পায় কৃষকরা। মৌসুমের সময় সরবরাহ বেড়ে যাওয়ায় শাক সবজির দাম একটু কম থাকে। কিন্তু আগাম শাক সবজির দাম অনেক বেশি থাকায় কৃষকরা আগাম শাক সবজি চাষে ঝুঁকছে। আগাম সবজি চাষি মোকসেদ বলেন, বর্তমানে প্রতি মণ বেগুন ১৭শ থেকে ১৮শ টাকা, শসা ৭শ টাকা থেকে ৮ শ' টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। আগাম গুটি করলা চাষি নুরে আলম সিদ্দিক রাজু বলেন, বর্তমানে প্রতি মণ করলা ১৭শ' থেকে ১৮ শ' টাকা করে বিক্রি করছেন। ভরা মৌসুমে যার মূল্য হয় প্রতি মণ ৫শ' থেকে ৬শ' টাকা করে। আগাম টমেটো চাষি সালাম ও আক্তার জানান, যে টমেটো ভরা মৌসুমে প্রতি মণ বিক্রি হয় ১২০ টাকা থেকে ২শ' টাকা করে, সে টমেটোই এখন বিক্রি হচ্ছে ২ হাজার থেকে আড়াই হাজার টাকা করে মন। সরেজমিন ঘুরে এ তথ্যও জানা যায়, নকলা উপজেলায় গত বছরের চেয়ে শাক সবজি চাষির সংখ্যা না বাড়লেও বেড়েছে আগাম চাষির সংখ্যা। আগাম সব কিছুর দাম বেশি থাকায় আগামিতে আগাম শাক সবজি চাষির সংখ্যাও অনেক বেড়ে যেতে পারে।

আগাম সবজি উৎপাদনে স্থানীয় কৃষকদের পরামর্শ দানসহ সহায়তা করা হচ্ছে এমন তথ্য জানিয়ে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা হুমায়ুন কবীর বলেন, ভরা মৌসুমের তুলনায় আগাম ফসলের উৎপাদন অনেক কম হয়। কিন্তু আগাম ফসলে দাম বেশি পাওয়ায় অল্প শ্রমে, কম পুঁজি ও স্বল্প জমিতে লাভ বেশি পায় কৃষকরা। তাই দিন দিন কৃষকরা যে কোন ফসল আগাম করার দিকে ঝুঁকছে।

শীর্ষ সংবাদ:
বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠায় ঐক্যের বিকল্প নেই ॥ রাষ্ট্রপতি         করোনা ভাইরাসে আরও ৬ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৭৬         ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদ ॥ সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত         বৈধ সরকারের পতন ঘটানো যাবে না: কৃষিমন্ত্রী         ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদ ॥ সেন্টমার্টিন রুটে পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল বন্ধ ঘোষণা         কুয়েটের শিক্ষকের মৃত্যু ॥ ৯ শিক্ষার্থী সাময়িক বহিষ্কার         শেখ ফজলুল হক মণির জন্মদিন ॥ যুবলীগের শ্রদ্ধা নিবেদন         চলতি বছরের নবেম্বর মাসে দেশে ৪১৩ জনের প্রাণহানি         এলডিসি উত্তরণে এফবিসিসিআইয়ের ১০ বছর মেয়াদী মাস্টার প্ল্যান         ৪ ডিসেম্বর ঝিনাইগাতী মুক্ত দিবস         কাটাখালিতে মেয়র আব্বাসের অবৈধ দুই ভবন গুড়িয়ে দিল প্রশাসন         শিমুলিয়া-মাঝিরকান্দি রুটে পরীক্ষামূলক ফেরি চালু         শরীয়তপুরে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা         মালিতে জঙ্গি হামলা ॥ অন্তত ৩১ জন নিহত         টঙ্গীতে হাফ ভাড়া ও নানা দাবিতে ছাত্রদের মহাসড়ক অবরোধ         একুশে পদকপ্রাপ্ত বর্ষিয়ান রাজনীতিবিদ গোলাম হাসন আর নেই         সুন্দরবনের কোনঠাসা জলদস্যুরা এখন সাগরে         রাজনৈতিক উস্কানি আছে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে ॥ কাদের         নীলফামারীতে জঙ্গী আস্তানায় র্যাবের অভিযান ॥ আটক ৫         নিরাপদ সড়ক ॥ আগামীকাল প্রতীকী লাশের মিছিল করবে শিক্ষার্থীরা