মঙ্গলবার ৭ আশ্বিন ১৪২৭, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

ট্রাম্প প্রশাসনের দুই পদে নারী

  • জাতিসংঘে রাষ্ট্রদূত নিকি হ্যালি শিক্ষামন্ত্রী বেটসি ডিভোস

যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প নতুন প্রশাসনে শীর্ষস্থানীয় পদে প্রথম দুই মহিলাকে নিয়োগ করেছেন। সাউথ ক্যারোলিনার গবর্নর নিকি হ্যালি জাতিসংঘে মার্কিন রাষ্ট্রদূত পদে এবং সরকারী স্কুলের সমর্থক বেটসি ডিভোসকে শিক্ষামন্ত্রী পদে মনোনীত করা হয়েছে। খবর বিবিস ও শিকাগো ট্রিবিউনের।

গবর্নর হ্যালির পররাষ্ট্র নীতির বিষয়ে সামান্যই অভিজ্ঞতা রয়েছে, কিন্তু ট্রাম্প হ্যালিকে ‘এক প্রমাণিত মধ্যস্থতাকারী’ বলে প্রশংসা করেন। ট্রাম্পের মতো ডিভোসও সরকারে নবাগত, কিন্তু তিনি আমেরিকার জনশিক্ষা ব্যবস্থার পরিবর্তন ঘটাতে কয়েক দশক ধরে কাজ করেছেন। উভয়েই এক সময়ে ট্রাম্পের সমালোচক ছিলেন। হ্যালি ট্রাম্পের কোন ভক্ত নন বলে একবার মন্তব্য করেছিলেন। ডিভোস ম্যানহাটান ট্রাইকুন ট্রাম্পকে একজন ‘অনুপ্রবেশকারী’ বলে অভিহিত করেন। প্রেসিডেন্টশিয়াল প্রাইমারিতে ট্রাম্পের প্রতিদ্বন্দ্বী ও সাবেক নিউরোসার্জন বেন কারসন কোন পদে শীঘ্রই মনোনীত হবেন বলে আভাস দেন। কারসন তার ফেসবুকে লিখেছেন- আমেরিকাকে আমার মহান করে গড়ে তোলার কাজে সহায়তা করতে আমার ভূমিকা নিয়ে এক ঘোষণা আসছে।

ট্রাম্প মঙ্গলবার টুইট করেন যে, তিনি গৃহসংস্থান ও নগর উন্নয়ন দফতরে মনোনয়নের জন্য কারসনের কথা গুরুত্বসহকারে বিবেচনা করছেন। জাতিসংঘে নিযুক্ত অনেক কূটনীতিকই ট্রাম্পের প্রেসিডেন্ট পদের দায়িত্ব পালন নিয়ে আশঙ্কা বোধ করছেন এবং তিনি কেন যে জাতিসংঘের কড়া কোন সমালোচককে রাষ্ট্রদূত নিয়োগ করেননি, তাতে জাতিসংঘে স্বস্তিবোধ দেখা দেয়। হ্যালি ও ডিভোসের নিয়োগ রিপাবলিকান নিয়ন্ত্রিত সিনেটে অনুমোদিত হওয়ার প্রয়োজন হবে।

ট্রাম্প বলেন, হ্যালি এক প্রমাণিত মধ্যস্থতাকারী এবং আমরা অনেক চুক্তি করতে চাচ্ছি। তিনি বিশ্বসভায় আমাদের প্রতিনিধিত্ব করার মতো এক মহান নেতাই হবেন। হ্যালি বলেন, তিনি এ দায়িত্ব গ্রহণ করে ‘বিমুগ্ধ’ হয়েছেন এবং তিনি তার মনোনয়ন কংগ্রেসে অনুমোদিত না হওয়া পর্যন্ত সাউথ ক্যারোলিনার গবর্নর হিসেবে দায়িত্ব পালন করে যাবেন। রিপাবলিকান প্রাইমারিতে হ্যালি ফ্লোরিডার সিনেটর মার্কো রুবিও ও তারপর টেক্সাসের সিনেটর টেড ক্রুজকে সমর্থন করেছিলেন। হ্যালি ট্রাম্পের মুসলিম অভিবাসন নিষিদ্ধ করার প্রস্তাবেরও জোর সমালোচনা করে একে ‘অ-আমেরিকান’ বলে অভিহিত করেন।

এর জবাবে ট্রাম্প হ্যালিকে অবৈধ অভিবাসন প্রশ্নে খুবই দুর্বল বলে অভিহিত করেন। সাউথ ক্যারোলিনার জনগণ তার কারণে বিব্রত বলেও ট্রাম্প মন্তব্য করেন। হ্যালি (৪৪) ভারতীয় অভিবাসীদের কন্যা। তিনিই সাউথ ক্যারোলিনার প্রথম সংখ্যালঘু ও নারী গবর্নর। তিনি এক শিখ পরিবারে বড় হন এবং এখন নিজেকে এক খ্রীস্টান বলে পরিচয় দেন।

ডিভোস বলেন, তিনি এ নিয়োগ গ্রহণ করে নিজেকে সম্মানিত বোধ করছেন। কিন্তু মিশিগানের এই কোটিপতি রিপাবলিকান চাঁদাদাতা এক সময়ে ট্রাম্পকে ‘রিপাবলিকান পার্টির প্রতিনিধিত্ব করেন না এমন এক অনুপ্রবেশকারী বলে অভিহিত করেন।’ ডিভোস নির্বাচনী লড়াইয়ে ট্রাম্পের প্রতিদ্বন্দ্বী কার্লিফিওরিনা, মার্কো রুবিও ও জেব বুশকে সহায়তা করেন। তিনি ইতোপূর্বে কমন কোর এডুকেশন স্ট্যান্ডার্ড সমর্থন করেন। ট্রাম্প ও অনেক রক্ষণশীলই এটা নিয়ে উপহাস করেন। তবে ট্রাম্প ডিভোস শিক্ষার এক উজ্জ্বল ও আবেগপ্রবণ সমর্থক হবেন বলে মন্তব্য করেন।

ট্রাম্প বাণিজ্য দফতরের নেতৃত্ব দিতে কোটিপতি বিনিয়োগকারী উইলবার রস জুনিয়রকে বাছাই করবেন বলে মনে হয়। নাম প্রকাশ না করার শর্তে ট্রাম্পের এক উর্ধতন উপদেষ্টা বুধবার এ কথা জানান। ৭৮ বছর বয়স্ক রস একজন শ্বেতাঙ্গ এবং প্রাইভেট ইক্যুইটি ফার্ম ডাব্লিউ এল রস এ্যান্ড কোম্পানির চেয়ারম্যান এবং চীফ স্ট্যাটেজি অফিসার। এ কোম্পানি ব্যবসায়ে ব্যর্থতার পরিচয় দিচ্ছে এমন সব কোম্পানি কেনায় অভিজ্ঞ।

মাত্র দু’সপ্তাহ আগে ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ী হয়ে তার নিজের দলের অনেক সদস্যসহ রাজনৈতিক বিশ্বকেই চমকে দেন। তিনি ৬০ দিনেরও কম সময়ের মধ্যে তার পদে শপথ নেবেন। তার মন্ত্রিসভার সদস্যগণ ছাড়াও তিনি অবশ্যই উচ্চ পর্যায়ের কয়েক শ’ প্রশাসনিক পদ পূরণ করবেন। এখন অবধি ট্রাম্প এ্যাটর্নি জেনারেল পদে জেফ সেসনস, সিআইএ ডিরেক্টর পদে মাইক পম্পেও এবং চীফ অব স্টাফ পদে রেইন্স প্রিবাসকে নিয়োগ করেছেন।

শীর্ষ সংবাদ:
বিশ্বাসযোগ্য ও বাস্তবসম্মত রোডম্যাপ তৈরি করুন ॥ জাতিসংঘে শেখ হাসিনা         নুরের বিরুদ্ধে অপহরণ-ধর্ষণ ও ডিজিটাল আইনে আরেক তরুণীর মামলা         ভারতে তিনতলা ভবনে ধস, নিহত বেড়ে ২০         করোনা ভাইরাস নিয়ে শি জিনপিংয়ের সমালোচনাকারীর ১৮ বছরের কারাদণ্ড         চীনের হয়ে গুপ্তরচরবৃত্তির অভিযোগে নিউইয়র্ক পুলিশ কর্মকর্তা গ্রেফতার         আমিরাতের মানবসম্পদ মন্ত্রীর সঙ্গে বাংলাদেশ রাষ্ট্রদূতের সৌজন্য সাক্ষাৎ         আর্থিক ক্ষতি না হলে বাড়ি থেকে কাজের পরামর্শ ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর         বাড়ছে প্রাইভেট গাড়ি ॥ যানজট নিরসনে গণপরিবহন বাড়ানোর তাগিদ         সাধারণ পরিষদের ভার্চুয়াল উদ্বোধনী অনুষ্ঠান         রাজধানী হবে যানজটমুক্ত সচল         পেঁয়াজের ভাণ্ডার ৪ জেলার ওপর বিশেষ নজর         ওয়াসায় বছরে মূল বেতন ৭০ কোটি টাকা, ওভারটাইম ৯৫ কোটি         ডিজির গাড়িচালক হয়ে স্বাস্থ্যে মালেকের পারিবারিক রাজত্ব         ধ্বংসপ্রায় কর্ণফুলী, রক্ষার উদ্যোগ নেই         দেশে করোনায় শনাক্ত সাড়ে তিন লাখ ছাড়িয়েছে         চরে বিদ্যুতের আলো         হাটহাজারী মাদ্রাসায় ছাত্র আন্দোলন দীর্ঘদিনের ক্ষোভের ফসল         বিস্ফোরণের বিষয়ে আগাম সতর্কতা জারি         নৃত্যের আড়ালে নারী পাচার করে দুবাইয়ে নির্যাতন চালানো হতো         প্রধানমন্ত্রীর ১০ বিশেষ উদ্যোগ জানবে সারাদেশ