ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ১২ আগস্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯

পরীক্ষামূলক

ভারতে পালিয়েছে সত্য নাও হতে পারে- দেশে থাকতেও পারে

বাংলাদেশের আইএস প্রধান আবু ইব্রাহিমই তামিম চৌধুরী

প্রকাশিত: ০৫:৪০, ১ আগস্ট ২০১৬

বাংলাদেশের আইএস প্রধান আবু ইব্রাহিমই তামিম চৌধুরী

শংকর কুমার দে ॥ রাজধানীর গুলশানে হলি আর্টিজান বেকারিতে হামলার মাস্টারমাইন্ড ও কল্যাণপুর জঙ্গী আস্তানার জঙ্গীদের অর্থ যোগানদাতা তামিম আহমেদ চৌধুরীই বাংলাদেশের কথিত ইসলামিক স্টেট (আইএস) প্রধান আবু ইব্রাহিম আল-হানিফ। অপারেশন স্টর্ম-২৬ অভিযানকালে কল্যাণপুর জঙ্গী আস্তানায় পালিয়ে যাওয়ার সময়ে আহত অবস্থায় আটক রাকিবুল হাসান রিগ্যানকে জিজ্ঞাসাবাদ করে এই ধরনের তথ্য পেয়েছে গোয়েন্দারা। আইএসের ছবির প্রতীকের আদলে কালো পাঞ্জাবি, মাথায় লাল রুমাল পরা অস্ত্র হাতে হাসিমুখে জঙ্গীদের ছবি পাওয়া গেছে কল্যাণপুর জঙ্গী আস্তানায় অভিযান শেষে উদ্ধার করা দুইটি পেনড্রাইভে। এটা আইএসের আদলে জঙ্গীদের আত্মঘাতী ইউনিট বা সুইসাইড স্কোয়াড প্রতীকী। গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে জঙ্গী হামলার পর এই ধরনের জঙ্গীদের এই ধরনের ছবি প্রচার করার কারণে ধারণা করা হচ্ছে, কল্যাণপুরের জঙ্গী আস্তানার জঙ্গীরাও বড় ধরনের হামলার প্রস্তুতি নিয়েই আইএসের আদলের ছবি পেনড্রাইভে সংরক্ষণ করেছে, যা জঙ্গীদের সফলতা হিসেবে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে প্রচারের ছক কষেছিল। কল্যাণপুরের জঙ্গী আস্তানা ধ্বংস করে দেয়ায় বড় ধরনের নাশকতা বা ধ্বংসাত্মক কিংবা হত্যাকা- থেকে রক্ষা পাওয়া গেছে বলে মনে করছেন তদন্তকারী সংস্থা পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিট। জঙ্গী নির্মূলে রবিবার ঢাকা মহানগর পুলিশের গণমাধ্যম কার্যালয়ে ‘হ্যালো সিটি’ নামের এই এ্যাপ উদ্বোধন করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, যার ফলে কোন ধরনের জটিলতা ছাড়াই এ্যাপের মাধ্যমে তথ্যদাতা সন্দেহভাজন জঙ্গী তৎপরতার ছবি, অডিও ও ভিডিও পুলিশকে পাঠানো যাবে। পুলিশ ও গোয়েন্দা সংস্থার সূত্রে এ খবর জানা গেছে। গোয়েন্দা সংস্থার সূত্র জানান, বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত কানাডিয়ান নাগরিক আনুমানিক ৩৫ বছর বয়সী তামিম চৌধুরীকেই বাংলাদেশের কথিত আইএস প্রধান আবু ইব্রাহিম আল-হানিফ বলে ধারণা করা হচ্ছে। প্রায় দুই বছর আগে ২০১৩ সালে কানাডা ছেড়ে বাংলাদেশে আসেন তামিম চৌধুরী। সিলেটের বিয়ানীবাজার উপজেলার দুবাগ ইউনিয়নের বড়গ্রামের প্রয়াত আব্দুল মজিদ চৌধুরীর ছেলে শফি আহমদ চৌধুরীর পুত্র তামিম। তার বাবা মজিদ চৌধুরী ছিলেন একাত্তরে শান্তি কমিটির সদস্য। চলতি বছরে আইএসের কথিত প্রপাগা-া ম্যাগাজিন দাবিক-এ একটি সাক্ষাৎকার প্রকাশিত হয়েছিল তার। তবে বাংলাদেশ পুলিশের সন্ত্রাসবাদবিরোধী তামিম চৌধুরী জেএমবির একাংশের প্রধান ও রাজধানীর গুলশানে হলি আর্টিজান বেকারিত হামলার মাস্টারমাইন্ড ও কল্যাণপুর জঙ্গী আস্তানার অর্থের যোগানদাতা বলে তথ্য পেয়েছে গোয়েন্দারা। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন কল্যাণপুর জঙ্গী আস্তানা থেকে পালিয়ে যাওয়ার সময়ে আহত অবস্থায় আটক রাকিবুল হাসান রিগ্যানকে জিজ্ঞাসাবাদে এই ধরনের তথ্যই পেয়েছে গোয়েন্দারা। কল্যাণপুর জঙ্গী আস্তানায় যে তামিম চৌধুরীর প্রায়শ যাতায়াত ছিল এবং জঙ্গীদের সঙ্গে গোপন বৈঠকে মিলিত হতেন তিনি। তামিম চৌধুরীর বিরুদ্ধে জঙ্গীদের উজ্জীবিত করা এবং তাদের আর্থিক সহায়তা দেয়ার অভিযোগ রয়েছে, যা কল্যাণপুর জঙ্গী আস্তানায় অভিযান শেষে মিরপুর থানায় দায়ের করা মামলার এজাহারেও উল্লেখ করেছে পুলিশ। কল্যাণপুর অভিযানে বেঁচে যাওয়া আহত জঙ্গী রাকিবুল হাসান রিগ্যানও জিজ্ঞাসাবাদে তামিমের জঙ্গী সংশ্লিষ্টতার কথা স্বীকার করেছেন। কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের এক কর্মকর্তা বলেছেন, কল্যাণপুরে জঙ্গী আস্থানার গোপন তথ্য পায় পুলিশি অভিযানের চারদিন আগে। তখনই ধারণা করা হয় তামিম চৌধুরীই গুলশান হামলার মাস্টারমাইন্ড। এমনকি কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়ায় ঈদের জামাতের দিনে জঙ্গী হামলার মাস্টারমাইন্ডও তাকেই মনে করা হচ্ছে। তামিম চৌধুরীসহ পাঁচজন ভারতে পালিয়ে যেতে পারে বলে ধারণা করা হলেও দেশের ভেতরে নেই তা নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না। কারণ জঙ্গীরা সব সময়ই ঠিকানা বদলায়। তবে জঙ্গীদের যে ভারতে যাতায়াতের ঘটনা ঘটার কারণেই জেএমবি সদস্য নুরুল হক ম-ল ওরফে নাইম ভারতে অবস্থান করছে এবং তাকে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে ভারতের কাছে ফেরত দেয়ারও অনুরোধ জানানো হয়েছে। গুলশানে হলি আর্টিজান বেকারিতে জঙ্গী হামলার পর প্রথম দফায় যে ১০ জন নিখোঁজের ফিরে আসার আহ্বান জানানো হয়েছে তার মধ্যে একজন গুলশান হামলার মাস্টারমাইন্ড তামিম আহমেদ চৌধুরীও। কাউন্টার টেররিজম ইউনিট কল্যাণপুর জঙ্গী আস্তানার কা-ের ঘটনা তদন্ত করে দেখতে পেয়েছে জঙ্গীরা নিহত হওয়ার আগেই তাদের ল্যাপটপ ও মোবাইল ফোনগুলো ভেঙ্গে ফেলে, কাগজপত্র, জঙ্গী সংক্রান্ত দলিলদস্তাবেজ, নগদ টাকা পুড়িয়ে দিয়েছে। এসবের মধ্যেই পড়েছিল নিহত নয় জঙ্গীর লাশ। লাশের রক্তের ভিজে গিয়েছিল সবকিছু। এসবের মধ্য থেকে উদ্ধার করা হয়েছে আলামত। এসব আলামতের মধ্যে পাওয়া গেছে জঙ্গীদের ভয়েস রেকর্ডের ভিডিও, অডিওবার্তা। অডিওবার্তায় জঙ্গীদের রয়েছে বক্তব্য। ভিডিও অডিও বার্তা ধারনের সময়ে তাদের পরনে কালো পাঞ্জাবি ও মাথায় লাল রুমাল পরে অস্ত্র হাতে হাসিখুশি মুখে সবাই কথিত জিহাদের জন্য লোকজনকে উদ্বুদ্ধ করে দেয়া বক্তব্যে নিজেরা সঠিক পথে আছে দাবি করে ওই পথে তরুণদের আসার আহ্বানও জানানো হয়েছে। এসব ভিডিও অডিও বার্তা উদ্ধার করা হয়েছে আলামত হিসেবে উদ্ধারকৃত দুইটি পেনড্রাইভ থেকে। পেনড্রাইভ দুইটি আলামত হিসেবে জব্দ করে পরীক্ষা করা হয়েছে। সিরিয়া-ইরাক ভিত্তিক আন্তর্জাতিক জঙ্গী সংগঠন আইএসের আদলে তৈরি পাঞ্জাবি ও মাথায় রুমাল পরা অস্ত্র হাতে হাসিখুশি অবস্থায় জঙ্গীদের ছবি মিলেছে পেনড্রাইভে। গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারির মতো অন্য কোথাও হামলার পর জঙ্গীরা তাদের সফলতা হিসেবে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে প্রচার করার জন্যই কল্যাণপুর জঙ্গী আস্তানার পাওয়া পেনড্রাইভে আইএসের আদলে ছবি তুলে রেখেছিল বলে ধারণা করছেন তদন্তকারীরা। তদন্তের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট একজন কর্মকর্তা বলেন, কল্যাণপুরের জঙ্গী আস্তানা থেকে অভিযানে আহত অবস্থায় আটক রাকিবুল হাসান রিগ্যানের জিজ্ঞাসাবাদের দেয়া তথ্যের সঙ্গে উদ্ধারকৃত আলামত পেনড্রাইভে সংরক্ষণ করা ভিডিও-অডিও এর বক্তব্য, ছবির মিল পাওয়া যায়। রাকিবুল হাসান রিগ্যান জিজ্ঞাসাবাদে বলেছে, রাজধানী ঢাকায় বিশেষ করে ঢাকার আশপাশে হামলা কিংবা বিদেশী বা হিন্দু, খ্রীস্টান হত্যা করা হলে দেশে ও বিদেশে ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি হয়। বিশ্ববাসীকে জানান দিতেই তাদের জঙ্গী হামলার জন্য প্রস্তুত করেছিল তাদের বড় ভাই নামের ওস্তাদরা। এর মধ্যে কল্যাণপুর জঙ্গী আস্তানায় নিহত তাহের ওরফে রায়হান কবির জঙ্গীদের প্রশিক্ষক ও বড় মাপের জেএমবির কমান্ডার ছিলেন, যার নিহত হওয়ার কারণে জঙ্গী গোষ্ঠীর জন্য বিপর্যয় ঘটে গেছে। বড় ধরনের নাশকতা, ধ্বংসাত্মক ও হত্যাকা-ের ঘটনা থেকে রক্ষা করেছে কল্যাণপুরে জঙ্গী আস্তানা গুঁড়িয়ে দেয়ার ঘটনাটি।
ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২
ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২

শীর্ষ সংবাদ: