রবিবার ৭ আষাঢ় ১৪২৮, ২০ জুন ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

সন্তানদের বিচার চাইতে থানায় শতবর্ষী নারী

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ সোজা হয়ে দাঁড়াবার শক্তিটুকু নেই শরীরে। হাতে একটা লাঠি, তাতেই ভর দিয়ে চলা তার। মুখখানা প্রখর রোদে তামাটে । বয়সের ছাপ পুরো অবয়বে। চামড়ায় গভীর ভাঁজ। খাবার ও আশ্রয়ের জন্য সন্তানদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে ক্লান্ত তিনি। ছেলেদের কাছ হতে খাবার না পেয়ে মেয়েদের দ্বারে ঘুরে সেখানেও বঞ্চিত হয়ে অবশেষে বিচারের আশায় শনিবার দুপুরে টঙ্গীবাড়ী থানায় হাজির হন শতবর্ষী রহিমা বেগম। থানার ডিউটি অফিসার এসআই মামুনের কাছে খুলে বললেন তার করুণ জীবনের কথা। কিন্তু এ সমস্যা সমাধানের আইনগত ক্ষমতা নেই থানা পুলিশের। পরামর্শ দিলেন আদালতের শরণাপন্ন হতে। কিন্তু আদালত কি বা কোথায় এটা জানা নেই এই শতবর্ষী নারীর। তাই অনেকটা নিরাশ হয়েই থানা থেকে ফিরলেন তিনি। কোথায় ফিরবেন, কোথায় যাবেন, গন্তব্য জানা নেই তার। সন্তানদের কাছে গেলেই তারা তেড়ে মারতে আসেন বলে জানালেন রহিমা। টঙ্গীবাড়ী উপজেলার নয়ানন্দ গ্রামের হাসেম বেপারীর স্ত্রী তিনি। বৃদ্ধ বয়সে হাসেম বেপারীর সম্পত্তি লিখে দেয়ার শর্তে তার আশ্রয় হয়েছে মেজ ছেলে মজনু বেপারীর ঘরে। কিন্তু মায়ের নামে কোন সম্পত্তি না থাকায় তার আশ্রয় হচ্ছে না কোন সন্তানের ঘরে। ৪ ছেলে ৪ মেয়ে ওই দম্পতির। হাসেম বেপারী নিজে খেয়ে-পরে বাঁচার তাগিদে নিজ নামের সম্পত্তি ৩ ছেলে আবুল, মজনু ও ইমানের নামে লিখে দিয়েছেন। ওই সম্পত্তি লিখে দেয়ায় মেয়েরাও ক্ষিপ্ত হয়ে আশ্রয় দিচ্ছেন না মা রহিমা বেগমকে। মেয়েদের বাড়ি আশ্রয় নিতে গেলে সম্পত্তি তোমার ছেলেদের নামে লিখে দিয়েছ, তাদের বাসায় যাও বলে তাড়িয়ে দিচ্ছে তারা। কোথায় যাবেন এই বৃদ্ধ মহিলা আশ্রয় খুঁজে না পেয়ে শনিবার দুপুরে টঙ্গীবাড়ী থানার শরণাপন্ন হন তিনি।

করোনাভাইরাস আপডেট
বিশ্বব্যাপী
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
১৭৭০৯৫৪৫৫
আক্রান্ত
৮৪৪৯৭০
সুস্থ
১৬১৩০৪৬০১
সুস্থ
৭৭৮৪২১
শীর্ষ সংবাদ:
বিষ ছড়াচ্ছে পলিথিন ॥ হুমকির মুখে জনস্বাস্থ্য ও প্রাকৃতিক পরিবেশ         প্রধানমন্ত্রী আজ ৫৩ হাজার পরিবারকে দিচ্ছেন জমি ও ঘর         রাজধানীতে একই পরিবারের ৩ জন খুন         গণটিকাদান কর্মসূচী শুরু         পুঁজিবাজারের সামনে ভাল ভবিষ্যৎ রয়েছে         প্রিয় পিতার জন্য ভালবাসা         ভুটানের সঙ্গে পিটিএ কার্যকর হচ্ছে নতুন বছরে         করোনায় একদিনে মৃত্যু বেড়ে ৬৭         করোনা বেড়ে যাওয়ায় পর্যটনশিল্প ফের অনিশ্চয়তায়         নাসির ও অমির তিন রক্ষিতা কারাগারে         রোহিঙ্গাদের এনআইডি পাওয়ার নেপথ্যে চাঞ্চল্যকর জালিয়াতি         প্রাকৃতিক গ্যাস অনুসন্ধানই জ্বালানি নিরাপত্তার অন্যতম উপায়         প্রমাণ সরবরাহ করলে তথ্য দেবে সুইস ব্যাংক         সাবেক জেলা নির্বাচন কর্মকর্তাসহ ১৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা         একই স্থানে সব সেবা প্রদান সুবিধা থাকা বাঞ্ছনীয় : বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী         করোনা : গত ২৪ ঘন্টায় মৃত্য ৬৭         “১২ বছর আগের পিছিয়ে পরা বাংলাদেশ আজ অপ্রতিরোধ্য গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে”         খুলনা বিভাগে একদিনে করোনায় সর্বোচ্চ মৃত্যু ২২, শনাক্ত ৬২৫         দেশব্যাপী সিনোফার্মের ভ্যাকসিন দেওয়া শুরু         ‘আবার ব্যাপকভাবে জনগণকে টিকা দেওয়ার কার্যক্রম শুরু হবে’