ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ২৯ নভেম্বর ২০২২, ১৪ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

চট্টগ্রামের সেই সাব্বিরুলের পিতার জিডি

প্রকাশিত: ০৫:৫৮, ৩১ জুলাই ২০১৬

চট্টগ্রামের সেই সাব্বিরুলের পিতার জিডি

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ রাজধানীর কল্যাণপুরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযানে নিহত ৯ জঙ্গীর একজন বলে গুজব ছড়ানো চট্টগ্রামের সেই সাব্বিরুল হকের খোঁজ চেয়ে সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছে তার পিতা আজিজুল হক রাশেদ। শুক্রবার চট্টগ্রাম নগরীর বাকলিয়া থানায় তিনি জিডি দায়ের করে ছেলের সন্ধান চেয়েছেন। বাকলিয়া থানার ওসি আবুল মনসুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। ওসি জানান, নিখোঁজ সাব্বিরুল হক কণিকের সন্ধান চেয়ে থানায় জিডি করেছেন তার বাবা আজিজুল হক রাশেদ। শুক্রবার থানায় এসে সাধারণ ডায়েরি দায়ের করেছেন। জিডিতে তিনি চলতি বছরের ২১ ফেব্রুয়ারি বিকেলে আত্মীয়ের বিয়েতে যাবে বলে বাসা থেকে বের হয়ে কণিক আর ঘরে ফিরে আসেনি বলে জানান। তিনি বলেন, ‘কণিকের বিষয়ে আমরা তদন্ত করছি, সে কোথায় আছে, সেই বিষয়ে খোঁজখবর নেয়া হচ্ছে।’ গত ২৬ জুলাই সকালে কল্যাণপুরে জঙ্গী আস্তানায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযানে নিহত ৯ জনের মধ্যে একজন সাব্বিরুল হক কণিক বলে বিভিন্ন জায়গায় খবর ছড়িয়ে পড়ে। এ ঘটনায় কণিকের বাবা আজিজুল হককে ডেকে পাঠান চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার নূরে আলম মিনা। পরে তাকে নিহত জঙ্গী সাব্বিরের ছবি দেখানো হয়। ছবি দেখে তার ছেলে কিনা তা স্পষ্ট হতে পারেননি আজিজুল হক। পরে তিনি মরদেহ শনাক্ত করতে ঢাকায় যান। কিন্তু মরদেহ দেখে নিশ্চিত হন জঙ্গী সাব্বির তার ছেলে নয়। বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার পর শুক্রবার ছেলের খোঁজে জিডি করলেন তিনি। এর আগে চলতি বছরের ২১ ফেব্রুয়ারি থেকে নিখোঁজ থাকলেও সাব্বিরুল হক কণিকের খোঁজ চেয়ে এতদিন থানায় সাধারণ ডায়েরি করেনি তার পরিবার। জানা গেছে, চট্টগ্রামের আনোয়ারার বরুমছড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আজিজুল হক চৌধুরী রাশেদের তিন ছেলেমেয়ের মধ্যে সাব্বিরুল হক কণিক সবার বড়। তিনি ২০১০ সালে সরকারী মুসলিম উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি এবং ২০১২ সালে চট্টগ্রাম সরকারী কমার্স কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করে। এরপর চট্টগ্রাম আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইকোনমিক্স এ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগে ভর্তি হন সাব্বিরুল। গত ২১ ফেব্রুয়ারি থেকে সে নিখোঁজ রয়েছে। ওইদিন রাউজানে একটি বিয়েতে যাবে বলে বাবার কাছ থেকে ৫০০ টাকা নিয়ে বের হয়ে আর ফেরেনি। দীর্ঘদিন কোন খোঁজ না থাকায় এবং আগ থেকে সন্তান বিপথগামী হয়েছে তা আঁচ করতে পারায় ক্ষুব্ধ বাবা-মা নিখোঁজ সংক্রান্ত জিডি করার প্রয়োজন মনে করেননি। এ ব্যাপারে আজিজুল হক চৌধুরী রাশেদের মোবাইলে একাধিকবার ফোন করা হলে তিনি মোবাইল রিসিভ করেননি।
monarchmart
monarchmart