বৃহস্পতিবার ১৪ মাঘ ১৪২৮, ২৭ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

ডেমোক্র্যাটিক পার্টির মনোনয়ন পেলেন হিলারি ॥ গড়লেন ইতিহাস

ডেমোক্র্যাটিক পার্টির মনোনয়ন পেলেন হিলারি ॥ গড়লেন ইতিহাস

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ ইতিহাস গড়লেন হিলারি ক্লিনটন। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বড় দলগুলোর মধ্যে প্রথম নারী প্রার্থী হিসেবে আনুষ্ঠানিক মনোনয়ন পেয়ে এই ইতিহাস গড়েন হিলারি। মঙ্গলবার ফিলাডেলফিয়ায় ডেমোক্র্যাটিক পার্টির জাতীয় কনভেনশনে ৫০টি অঙ্গরাজ্যের ‘রোল কল’ ভোট গণনা শেষে হিলারিকে আনুষ্ঠানিক মনোনয়ন দেয়া হয়। এর মাধ্যমে সাবেক ফার্স্ট লেডি, সিনেটর ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি দেশটির প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট হওয়ার পথে এক ধাপ এগিয়ে গেলেন। তিনি বার্নি স্যান্ডারসের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে ডেমোক্র্যাটিক দলের প্রার্থিতা লাভ করেছেন। কনভেনশনের প্রথম দিন দলীয় মনোনয়নযুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বী বার্নি স্যান্ডারসের সমর্থকদের দুয়োধ্বনি ও টিটকারির পর দ্বিতীয় দিন হিলারির ‘প্রার্থিতা’ নিশ্চিত হলো। খবর বিবিসি ও এএফপির।

দলীয় সংহতির প্রতীক হিসেবে মঙ্গলবার প্রতিদ্বন্দ্বী বার্নি স্যান্ডারসই মাইক্রোফোনে হিলারিকে প্রার্থী ঘোষণার অনুরোধ জানান। ডেমোক্র্যাটিক ন্যাশনাল কনভেনশনে চেয়ারপার্সনের দায়িত্বে থাকা সিনেটর মার্শা ফাজ এরপর কণ্ঠভোট আহ্বান করলে ব্যাপক করতালি ও হর্ষধ্বনির মধ্যে হিলারির প্রার্থিতা নিশ্চিত হয়। এর ফলে নবেম্বর অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে লড়তে দলের ছাড়পত্র পেলেন হিলারি ক্লিনটন।

কনভেনশনের আগে বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যের প্রাইমারী ভোট ও ককাসে স্যান্ডারস ও হিলারির মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয়। কয়েকটি অঙ্গরাজ্যে বিপুল ব্যবধানে জয় পেয়ে স্যান্ডারস বেশ চমক দেখালেও শেষ পর্যন্ত সংখ্যাগরিষ্ঠ প্রতিনিধির সমর্থন যায় হিলারির পক্ষে। ২০০৮ সালের দলীয় মনোনয়নযুদ্ধে বারাক ওবামার কাছে হারতে হয়েছিল সাবেক এ ফার্স্ট লেডিকে। ওবামার প্রথম দফা সরকারে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্বও পালন করেন নিউইয়র্কের সাবেক এ সিনেটর।

ডেমোক্র্যাটদের কনভেনশনের দ্বিতীয় দিনে সাদা-কালো ভেদাভেদ ও বিচার ব্যবস্থার ওপর বেশি আলোচনা হয়। একই বিষয় প্রাধান্য পেয়েছিল আগের সপ্তাহে ক্লিভল্যান্ডে রিপাবলিকান দলের কনভেনশনেও। এদিন হিলারির প্রতি সমর্থন জানান সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রে পুলিশের গুলিতে নিহত ট্রেভন মার্টিনের মা সিভরিনা ফুলটন। ট্রেভনের মৃত্যুর পর যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে তীব্র আন্দোলন গড়ে তোলে কৃষ্ণাঙ্গরা। ডেমোক্র্যাটিক কনভেনশনের দ্বিতীয় দিন সাবেক প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন, অভিনেত্রী মেরিল স্ট্রিপ, সাবেক এ্যাটর্নি জেনারেল এরিক হোল্ডারও বক্তব্য দেন।

প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পাওয়ার পর হিলারি এক টুইটার বার্তায় বলেন, ‘ইতিহাস’। তবে দলীয় সম্মেলনের শুরুতে হিলারি ক্লিনটনের প্রার্থিতা নিয়ে ডেমোক্র্যাটিক পার্টিতে স্পষ্ট বিভক্তি ফুটে উঠতে দেখা গেছে। বার্নি স্যান্ডারসের কড়া সমর্থকরা হিলারির বিরুদ্ধে দুয়োধ্বনিও দিয়েছেন।

মার্কিন কংগ্রেসের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি সময় দায়িত্ব পালনকারী মেরিল্যান্ডের সিনেটর বারবারা মিকালকি ডেমোক্র্যাটিক দলের প্রার্থী হিসেবে হিলারির নাম প্রস্তাব করেন। জর্জিয়ার কংগ্রেসম্যান মানবাধিকার কর্মী জন লেউইস তা সমর্থন করেন। সম্মেলনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার পাশাপাশি ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনও ভাষণ দেন। তিনি হিলারির পেছনে দলের অনৈক্যের উদ্বেগ নাকচ করে দেন। এদিকে স্যান্ডারসও তার সমর্থকদের হিলারির জন্য কাজ করার আহ্বান জানান।

সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন রাজনৈতিক আক্রমণের দশকগুলোকে বিদায় জানাতে এবং আগামী নবেম্বরে হিলারি ক্লিনটনকে নির্বাচিত করতে আমেরিকানদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। দলের ডেলিগেটদের সম্মেলনে বক্তৃতাকালে সাবেক প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন বলেন, আপনারা তাকে নির্বাচিত করতে পারেন। কারণ যুক্তরাষ্ট্রের যখন কঠিন সময় আসবে তিনি পালিয়ে যাবেন না। তিনি কখনই আপনাদের ছেড়ে যাবেন না।

তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রবাসীকে উন্নত জীবনযাপনের সুযোগ তৈরি করার দক্ষতা তার রয়েছে। তিনি সম্মেলনে ৪৫ মিনিট বক্তৃতা করেন। এ সময় তিনি কেন তার স্ত্রী ও সবচেয়ে ভাল বন্ধু হিলারির দেশ চালানো উচিত তার ব্যাখ্যা করেন। তিনি বলেন, আমার জানা মতে, পরিবর্তনের জন্য সেই সবচেয়ে যোগ্য।

স্বামী ক্লিনটনের বক্তৃতার পর এক ভিডিওর মাধ্যমে মঞ্চে আবির্ভাব ঘটে হিলারির। ভিডিওতে দেখা যায়, সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্টদের মুখাবয়ব সংবলিত প্রকৃতি গ্লাসের দেয়াল ভেঙ্গে তিনি বেরিয়ে আসছেন। আর জনগণের উচ্ছ্বাসের মধ্য থেকে তিনি বলছেন, আপনারা আমাকে দারুণ সম্মানিত করেছেন। এ জয় আপনাদের। তিনি আরও বলেন, যদি কোন ছোট্ট মেয়ে এখানে থেকে থাকে, আমি তাদের উদ্দেশে বলতে চাই, আমি প্রথম প্রেসিডেন্ট হতে পারি, কিন্তু তোমাদের মধ্যে কেউ পরবর্তী একজন হবে।

শীর্ষ সংবাদ:
গত ২৪ ঘন্টায় মমেক হাসপাতালে করোনায় ৪ জনের মৃত্যু         ইসি গঠন আইন পাসের কার্যক্রম শুরু         গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় মারা গেছেন ১০ হাজার ২২১ জন         সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী সস্ত্রীক করোনায় আক্রান্ত         অবশেষে অনশন ভঙ্গ ॥ শাহজালালের ঘটনায় কিছুটা স্বস্তি         শিক্ষার্থীদের সব দাবি বাস্তবায়নের আশ্বাস শিক্ষামন্ত্রীর         দেশ অপ্রতিরোধ্য গতিতে উন্নয়নের পথে এগিয়ে যাচ্ছে         বিএনপি ৮ লবিস্ট নিয়োগ দিয়েছিল         ওমিক্রন মোকাবেলায় আসছে নতুন গাইডলাইন         রাজধানীসহ কোন কোন এলাকায় ভারি বৃষ্টি, জনদুর্ভোগ         অপরাধ দমনে কাজের স্বীকৃতি পেল পুলিশের বিভিন্ন ইউনিট         অর্থ পাচার রোধে দক্ষিণ কোরিয়ার মতো কঠোর আইন প্রয়োজন         এগিয়ে চলাকে স্তব্ধ করতে নানা ষড়যন্ত্র চলছে         অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে আরও তিন বছর লাগবে         তদন্ত এগোনোর পর এখনও এজাহার জটিলতার নেপথ্যে -         বগুড়ায় বাসের ধাক্কায় অটোরিক্সার ৫ যাত্রী নিহত         আসছে নতুন শিক্ষাক্রম, সময়মতো চালুর বিষয়ে শঙ্কা         নগ্ন ছবি, ভিডিও ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে টাকা দাবি         বাংলাদেশের গ্রামীণ হাসপাতাল পেল বিশ্ব সেরার স্বীকৃতি         ওমিক্রনরোধে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নতুন গাইডলাইন