ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০ আশ্বিন ১৪২৯

অমর প্রেম

প্রকাশিত: ০৫:৪৬, ৩০ জানুয়ারি ২০১৬

অমর প্রেম

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ সড়ক দুর্ঘটনায় প্রেমিকের মৃত্যুর খবরে আত্মহত্যা করেছে প্রেমিকা। শুক্রবার দুপুরে মাত্র আধা ঘণ্টার মধ্যে এ জুটির মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় নিহতদের পরিবারে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত প্রেমিকের নাম তুর্য হোসেন (১৫)। তুর্য নগরীর ২৯ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর জেহের হোসেন সুজার ছেলে। প্রেমিকের মৃত্যুর খবর শুনে আত্মহত্যা করে প্রেমিকা কেয়া খাতুন (১৫)। কেয়া পাশের ডাশমারি এলাকার আব্দুল মান্নানের মেয়ে। শুক্রবার দুপুরে নিজ বাড়িতে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে কেয়া। বিষয়টি পরিবারের লোকজন টের পেয়ে তাকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিকেল ৩টার দিকে মারা যায় সে। এলাকাবাসী জানায়, শুক্রবার দুপুর পৌনে ১টার দিকে তুর্য মোটরসাইকেলে বিনোদপুর বাজার থেকে বাড়িতে ফিরছিল। এ সময় ইটবাহী ট্রলির ধাক্কায় সে গুরুতর আহত হয়। পরে স্থানীয়রা তাকে রামেক হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নিয়ে যায়। সেখান থেকে তাকে ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে (আইসিইউ) নেয়া হলে দুপুর আড়াইটার দিকে তুর্য মারা যায়। তুর্য ও কেয়া ডাশমারি উচ্চ বিদ্যালয়ে দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থী।