শুক্রবার ৩ আশ্বিন ১৪২৭, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

শেষ চারে মুক্তিযোদ্ধা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ চলমান মৌসুম-সূচক ফুটবল আসর ‘ফেডারেশন কাপ’-এর সেমিফাইনালে উঠেছে ‘অল রেডস’ খ্যাত বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্র। শুক্রবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত টুর্নামেন্টের চতুর্থ ও তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ শেষ কোয়ার্টার ফাইনালে তারা ১-০ গোলে হারায় দেশের অন্যতম ঐতিহ্যবাহী ক্লাব ‘আকাশী-নীল’ খ্যাত ঢাকা আবাহনী লিমিটেডকে। মুক্তিযোদ্ধার পক্ষে জয়সূচক একমাত্র গোলটি করেন সেনেগাল থেকে আগত ফরোয়ার্ড কামারা সারবা। এ জয়ে আগামী ২ মার্চ টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় সেমিতে প্রতিপক্ষ ঢাকা মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব লিমিটেডের মোকাবেলা করবে নব্বই দশকের সাড়া জাগানো ‘ড্রিম টিম’ খ্যাত মুক্তিযোদ্ধা।

৩ মিনিটে আবাহনীর হাঙ্গেরিয়ান মিডফিল্ডার গ্যাবনের শট মুক্তির এক ডিফেন্ডারের পায়ে লেগে ফেরত আসায় গোলবঞ্চিত হয় আবাহনী। ১৩ মিনিটে মুক্তির অধিনায়ক-ফরোয়ার্ড এনামুলের পাসে মিশরীয় মিডফিল্ডার জেইয়িদা হেড নিলেও তা লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। ১৮ মিনিটে জটলা থেকে আবাহনীর আরিফুলের শট আটকে দেন মুক্তির গোলরক্ষক তিতুমীর চৌধুরী টিটু। ২০ মিনিটে আবাহনীর নাইজিরিয়ান তাইয়ো ইফাবিয়ির হেড ভাঙ্গতে পারেনি মুক্তির ডিফেন্স। ৪৯ মিনিটে বক্সের ডানপ্রান্ত থেকে গোলপোস্ট লক্ষ্য করে শট নেন আবাহনীর বদলি ফরোয়ার্ড আমিনুর রহমান সজীব। কিন্ত বল সরাসরি মুক্তিযোদ্ধার গোলরক্ষকের পায়ে লেগে ফেরত আসায় গোল হয়নি।

নির্ধারিত ৯০ মিনিটে কোনপক্ষই গোল করতে না পারায় খেলা গড়ায় অতিরিক্ত আরও ৩০ মিনিটে। অতিরিক্ত সময়ের প্রথমার্ধেই সফলকাম হয় মুক্তি। ৯৫ মিনিটে মুক্তির ডিফেন্ডার ইবনুল সিরাজীর পাস তীব্র শটে গোল করেন কামারা সারবা (১-০)। ১০৫ মিনিটে এনামুলের টানা দুটি শট একই রকমভাবে আটকে দেন আবাহনীর গোলরক্ষক। আবাহনী আরও কয়েক বার জোরালো আক্রমণ করলেও তাদের গোলপ্রচেষ্টাগুলো পর্যবসিত হয় ব্যর্থতায়। খেলা শেষ হলে মাঠ ছাড়ার সময় আবাহনীর দর্শকদের তীব্র রোষানলের শিকার হন আবাহনী ম্যানেজার সত্যজিৎ দাস রূপু ও দলের খেলোয়াড়রা।

কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠার আগে ঢাকা আবাহনী লিমিটেড হয় ‘সি’ গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন। ২ খেলায় তাদের সংগ্রহ ৪ পয়েন্ট। ফরাশগঞ্জ স্পোর্টিং ক্লাবকে ২-০ গোলে হারালেও হারাতে পারেনি চট্টগ্রাম আবাহনী লিমিটেডকে (০-০)। পক্ষান্তরে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ২ খেলায় ৪ পয়েন্ট নিয়ে শেষ আটে ওঠার আগে হয় ‘বি’ গ্রুপের রানার্সআপ। প্রথম ম্যাচে তারা ৪-০ গোলে উত্তর বারিধারাকে হারালেও পরের ম্যাচে গোলশূন্য ড্র করে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের সঙ্গে। শেখ রাসেলেরও তাদের সমান পয়েন্ট ছিল। কিন্তু এক গোল বেশি করায় রাসেলই হয়ে যায় গ্রুপসেরা। ফেডারেশন কাপের ২৭তম আসরে (১৯৮০ সালে এ আসর শুরু হয়। তবে চারবার এ আসরটি অনুষ্ঠিত হয়নি। ১৯৮৪ সালে পরিত্যক্ত, ১৯৯০, ৯২ ও ৯৩ সালে অনুষ্ঠিত হয়নি) আবাহনী এর আগের ২৬টি ফেডারেশন কাপের ফাইনালে খেলেছে ১৫ বার। শিরোপা জিতেছে ৮ বার। পক্ষান্তরে মুক্তিযোদ্ধা ৭ বার ফাইনাল খেলে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ৩ বার। তারা এ আসরের সর্বশেষ রানার্সআপ (২০১৩ আসরে শেখ জামাল ধানম-ির কাছে হেরে)। পক্ষান্তরে আবাহনী ফেডারেশন কাপে সর্বশেষ ফাইনাল খেলে ও চ্যাম্পিয়ন হয় ২০১০ আসরে (সেবার তারা হারায় শেখ জামাল ধানম-িকে)।

এখন দেখার বিষয়, সেমিতে মোহামেডানকে হারিয়ে ২০১৩ আসরের পর আবারও টানা ফাইনালে খেলার কৃতিত্ব অর্জন করতে পারে কি না কোচ আবু ইউসুফের শিষ্যরা।

শীর্ষ সংবাদ:
আল্লামা আহমদ শফী আর নেই         পেঁয়াজ ভর্তি ট্রলার ভিড়েছে টেকনাফে         অর্থনৈতিক উন্নয়ন বেগবানে ৩৪ হাজার কোটি টাকার ফান্ড ঘোষণা এডিবির         করোনা ভাইরাসে আরও ২২ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৫৪১         করোনা ভাইরাস ॥ বিশ্বব্যাপী মৃত্যু ছাড়াল সাড়ে ৯ লাখ, আক্রান্ত ৩ কোটির বেশি         অ্যাটর্নি জেনারেলের অবস্থার অবনতি, আইসিউতে স্থানান্তর         করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় কারিগরি কমিটির ৭ পরামর্শ         বঙ্গবন্ধু শুধু বাংলাদেশের নয় তিনি সারা বিশ্বের সম্পদ ॥ খাদ্যমন্ত্রী         ভিডিও কলে কথা বলে কিশোরীর ইচ্ছা পূরণ করলেন প্রধানমন্ত্রী         ২০২১ হবে আরও বেশি চ্যালেঞ্জিং হবে ॥ পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী         আইনের বাইরে এ শহরে কিছু করতে পারবেন না ॥ মেয়র আতিক         এইচএসসি পরীক্ষার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে ২৪ সেপ্টেম্বর         ফিফা র্যাংকিংয়ে আগের অবস্থানেই আছে বাংলাদেশ, একধাপ পেছালো ভারত         মোদীর মন্ত্রিসভা থেকে ইস্তফা দিলেন অকালি দলের নেত্রী হরসিমরত কউর         ভারতের এক শতাব্দী পুরনো সংসদ ভবন ভেঙ্গে নির্মাণ হবে নতুন ভবন         বাজারে করোনার ভ্যাকসিন আসার আগে অর্ধেক ‘বুকিং’ শেষ         গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রীর বক্তব্য দুর্নীতি আড়ালের ব্যর্থ চেষ্টা ॥ ন্যাপ         স্বেচ্ছায় সরে দাঁড়ালেন আল্লামা শাহ আহমদ শফী         এবার নোবেল পুরস্কারের জন্য মনোনয়ন পেয়েছেন নেতানিয়াহু         শিক্ষায় বিভক্তির ফল সামাজিক বিভক্তি ॥ রাশেদ খান মেনন