ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১

ঘটনাস্থল থেকে ৫টি গুলির খোসা উদ্ধার

খুলনায় দুর্বৃত্তের গুলিতে ব্যবসায়ী নিহত

স্টাফ রিপোর্টার, খুলনা অফিস 

প্রকাশিত: ১৭:৪১, ৩০ জানুয়ারি ২০২৩

খুলনায় দুর্বৃত্তের গুলিতে ব্যবসায়ী নিহত

মিলন ফকির

খুলনায় দুর্বৃত্তদের গুলিতে মিলন ফকির (৪৮) নামে এক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। এছাড়া আহত হয়েছেন এক স্কুল শিক্ষক। 

সোমবার (৩০ জানুয়ারি) সকালে ফুলতলা উপজেলা সদরের জামিরা রোডের আইডিয়াল স্কুল এন্ড কলেজের পাশে এ হত্যাকাণ্ডে ঘটে। 

নিহত মিলন ফকির নড়াইল জেলার কালিয়া উপজেলার পেড়ুলি গ্রামের আব্দুল ওহাব ফকিরের ছেলে। তিনি গত চার বছর ধরে ফুলতলা উপজেলা সদরের আলকা গ্রামে ভাড়া বাসায় বসবাস করতেন। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ৫টি গুলির খোসা উদ্ধার করেছে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ জানায়, সোমবার সকাল ৯টার দিকে ফুলতলা উপজেলা সদরের জামিরা রোডের আইডিয়াল স্কুল মোড়ের একটি চায়ের দোকানে মিলন ফকির ও স্কুল শিক্ষক শীতল বিশ্বাস চা পান করছিলেন। এ সময় একটি মোটরসাইকেলে দু-তিনজন দুর্বৃত্ত এসে মিলন ফকিরকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। গুলি মিলনের হাতে ও শিক্ষক শীতলের পায়ে লাগে। মিলন দ্রুত দৌড়ে পার্শ্ববর্তী একটি দোকানের মধ্যে ঢুকে পড়ে। 

এ সময় একজন দুর্বৃত্ত তার পেছন পেছন দোকানের মধ্যে ঢুকে মিলনের মাথায় ও পিঠে অস্ত্র ঠেকিয়ে গুলি করে পালিয়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। পরে স্থানীয়রা আহত শীতল বিশ্বাসকে উদ্ধার করে প্রথমে ফুলতলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। দুপুরে তাকে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। 

এদিকে হত্যাকাণ্ডের খবর পেয়ে স্থানীয় থানা পুলিশ, পুলিশ সুপার মাহাবুব হাসান, গোয়েন্দা পুলিশ, পিবিআই, সিআইডি ও র‍্যাব-৬’র সদস্যরা উপস্থিত হন। দুপুরে মিলন ফকিরের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।

স্থানীয়রা জানান, মিলন ফকির কয়েকজন ব্যক্তির সঙ্গে ফুলতলার শিকিরহাট খেয়াঘাট ইজারা নিয়ে পরিচালনা করতেন। এছাড়া এক সময় তিনি বিদেশে থাকতেন। বিদেশে লোক পাঠানোর কথা বলে তিনি অনেকের কাছ থেকে টাকা নিয়ে ফেরত দেননি। সম্প্রতি তিনি ফুলতলা থেকে নওয়াপাড়া পর্যন্ত ভৈরব নদের বালু উত্তোলনের ঠিকাদারি কাজের সঙ্গেও যুক্ত হন। এছাড়াও তিনি স্থানীয় চরমপন্থি সন্ত্রাসীদের সঙ্গেও চলাফেরা করতেন। ঘাটের ইজারা ও ব্যবসা সংক্রান্ত দ্বন্দ্বের জেরসহ কোনো ঘটনার কারণে তাকে হত্যা করা হতে পারে বলে তারা প্রাথমিকভাবে ধারণা করছেন।

এ ব্যাপারে ফুলতলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইলিয়াস তালুকদার বলেন, বিকাল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত এ ঘটনায় থানায় কোনো মামলা হয়নি। আমরা প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ এবং হত্যাকাণ্ডের কারণ উদঘাটনসহ জড়িতদের গ্রেফতারের জোর চেষ্টা চালাচ্ছি।

 

এসআর

সম্পর্কিত বিষয়:

×