ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ২২ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

কৃষিতে গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিত্ব  (AIP) দুইজনকে বারি’র সম্মাননা প্রদান

স্টাফ রিপোর্টার, গাজীপুর 

প্রকাশিত: ১৯:৪৮, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

কৃষিতে গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিত্ব  (AIP) দুইজনকে বারি’র সম্মাননা প্রদান

সম্মাননা 

দেশের কৃষি উন্নয়নে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ কৃষিতে গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিত্ব (Agriculturally Important Person- AIP 2022) মনোনীত হওয়ায় পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার আলহাজ্ব মো. শাহজাহান আলী বাদশা এবং নূরুন্নাহার বেগমকে সম্মাননা প্রদান করেছে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বারি)। বারি’র মহাপরিচালক ড. দেবাশীষ সরকার সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। শনিবার বিকেলে বারি’র প্রটোকল অফিসার আল-আমিন এ তথ্য জানিয়েছেন।

সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বারি’র পাবনাস্থ ডাল গবেষণা কেন্দ্র ও আঞ্চলিক কৃষি গবেষণা কেন্দ্রের পরিচালক ড. মো. মহিউদ্দিন। এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. এফ এম আবদুর রউফ ও ড. মো. আলতাফ হোসেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন কেন্দ্রের বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা এ এ এম মোহাম্মদ মোস্তাকিম। বারি’র পাবনার ঈশ্বরদীস্থ ডাল গবেষণা কেন্দ্র ও আঞ্চলিক কৃষি গবেষণা কেন্দ্রের সেমিনার কক্ষে এ সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

এর আগে কেন্দ্রে পৃথকভাবে আয়োজিত ‘খাদ্য ও পুষ্টি নিরাপত্তা অর্জন এবং জীবনযাত্রার মান উন্নয়নে সমন্বিত খামার ব্যবস্থাপনা’ শীর্ষক কৃষক সমাবেশ এবং বারি উদ্ভাবিত ফসলের জাত ও উৎপাদন প্রযুক্তির উপর বৈজ্ঞানিক সহকারী ও উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেন বারি’র মহাপরিচালক ড. দেবাশীষ সরকার। 

এসব অনুষ্ঠানে বারি’র  পরিচালক ড. মো. মহিউদ্দিন, মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মো. আলতাফ হোসেন ও ড. এফ এম আবদুর রউফ, ঊর্ধ্বতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মো. শামীম হোসেন মোল্লা ও মো. ফারুক হোসেন উপস্থিত ছিলেন। বারি’র মহাপরিচালক বিভিন্ন গবেষণা মাঠ পরিদর্শন ও বিজ্ঞানীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। 

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বারি’র মহাপরিচালক ড. দেবাশীষ সরকার বলেন, কৃষি ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে এআইপি খেতাবে ভূষিত হওয়ায় ঈশ্বরদী অঞ্চলের দুজনকে আমরা সম্মানিত করলাম। আমরা আগামীতে এ অঞ্চল থেকে আরও অনেকে এআইপি খেতাবে ভূষিত হোক এবং আমরা তাদেরও সম্মানিত করতে চাই। একই সাথে আশা করি তারা ক্ষুধা ও দারিদ্র্য মুক্ত বাংলাদেশ গড়তে যে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে তা অব্যহত থাকবে এবং দেশের কৃষি খাতের উন্নয়নে তারা কাজ করে যাবে।
 

এমএস

monarchmart
monarchmart