৬ এপ্রিল ২০২০, ২৩ চৈত্র ১৪২৬, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

উৎপাদন খরচ বাড়ায় পানির দাম বেড়েছে

প্রকাশিত : ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২০
  • নগরবাসী ক্ষুব্ধ

ফিরোজ মান্না ॥ বিদ্যুতের পর ওয়াসার পানির দাম বাড়ায় নগরবাসী চরম ক্ষুব্ধ । নগরবাসী আশঙ্কা করছেন, বাড়িওয়ালারা এখন বাড়ি ভাড়া বাড়িয়ে দেবে। এতে জীবনযাত্রার ব্যয় আরও বেড়ে যাবে। নগরের সব জায়গায় পানির দাম নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা চলছে। একদিকে বিদ্যুতের দাম অন্যদিকে পানির দাম বাড়ানোর ফলে নিম্ন আয়ের মানুষের চরম ভোগান্তিতে পড়তে হবে। মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে পানির দাম বাড়ানোর বিষয় যৌক্তিক বলে জানানো হয়েছে। ভাল সেবা পেতে হলে খরচ কিছুটা বাড়বে বলে মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী নিজেই বলেছেন। মন্ত্রীর এই বক্তব্যকে নগরবাসী প্রত্যাখ্যান করে পানির দাম কমানোর জন্য দাবি জানিয়েছে। সূত্র জানিয়েছে, স্থানীয় সরকার বিভাগ গত ২৬ ফেব্রুয়ারি পানির দাম বাড়িয়ে একটি অফিস আদেশ জারি করেছে। ওই আদেশে ঢাকা ও চট্টগ্রাম ওয়াসার পানির দাম ছয় মাসের ব্যবধানে আরও ২৫ শতাংশ বৃদ্ধি করা হয়েছে। আবাসিকে ঢাকা ওয়াসার সরবরাহকৃত প্রতি এক হাজার লিটার পানির দাম ১১ টাকা ৫৭ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ১৪ টাকা ৪৬ পয়সা করা হয়েছে। আর বাণিজ্যিক সংযোগে প্রতি হাজার লিটার পানির দাম ৩৭ টাকা ৪ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ৪০ টাকা করা হয়েছে। চট্টগ্রামে আবাসিক প্রতি হাজার লিটার পানির দাম ৯ টাকা ৯২ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ১২ টাকা ৪০ পয়সা এবং বাণিজ্যিকে ২৭ টাকা ৫৬ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ৩০ টাকা ৩০ পয়সা করা হয়েছে।

স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী তাজুল ইসলাম জনকণ্ঠকে জানান, প্রতিষ্ঠানগুলোর ব্যয় নির্বাহ করার জন্য পানির দাম বাড়ানোর যৌক্তিকতা রয়েছে। আগে ঢাকা, চট্টগ্রামে সবাইকে পানি দেয়া যেত না। এখন নগরীর সব নাগরিককে পানি সরবরাহ দেয়া হচ্ছে। এ কারণে উৎপাদন খরচও বেড়েছে। বিদ্যুতের দাম বাড়ার ফলে পানির উৎপাদন ব্যয়ও বেড়েছে। ফলে আমাদের পানির দাম বাড়ানো ছাড়া উপায় ছিল না। পানির দাম না বাড়ালে প্রতিষ্ঠানগুলো চলবে কিভাবে। আমার মনে হয় সেবার তুলনায় পানির দাম খুব একটা বাড়েনি। অনেক চিন্তাভাবনা করেই আমরা পানির দাম বাড়িয়েছি। এটা নিয়ে নগরবাসীর প্রতিক্রিয়া দেখানোর কোন কিছু নেই।

মন্ত্রী বলেন, বিশ্বের অন্যান্য দেশের সঙ্গে তুলনা করলে আমরা সবচেয়ে কম দামে নাগরিকদের পানি সরবরাহ দিচ্ছি। পাশের দেশ ভারতের দিকে তাকালে দেখা যায় সেখানে কত দামে নাগরিকরা পানি নিচ্ছে। ফলে আমরা তুলনামূলকভাবে পানির দাম অনেক কমই নিচ্ছি। বর্তমানে নগরের পরিধি বেড়েছে। বেশি মানুষকে পানি সরবরাহ দিতে হচ্ছে। এতে উৎপাদন খরচ বেড়েছে। তাই পানির দাম বাড়ানো হয়েছে।

প্রকাশিত : ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২০

২৯/০২/২০২০ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



শীর্ষ সংবাদ: