৩১ মার্চ ২০২০, ১৭ চৈত্র ১৪২৬, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

আজ বাংলাদেশ পাকিস্তান প্রথম টি২০

প্রকাশিত : ২৪ জানুয়ারী ২০২০

মিথুন আশরাফ ॥ বাংলাদেশ অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ও পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজম বৃহস্পতিবার টি২০ সিরিজের শিরোপা হাতে তুলে ধরে হাসতে থাকেন। মুখে হাসি লেগেই থাকে। আজ দুই দলের মধ্যকার লাহোরে প্রথম টি২০ ম্যাচ দিয়ে তিন ম্যাচের টি২০ সিরিজ শুরু হতে যাচ্ছে। শেষ হাসি কার মুখে থাকবে?

পাকিস্তানের মাটিতে কখনই ম্যাচ জিততে পারেনি বাংলাদেশ। এবার কী জয়ের দেখা মিলবে? এই প্রশ্নের উত্তর আজ শুরু হতে যাওয়া সিরিজের প্রথম ম্যাচ থেকেই মিলতে শুরু করবে। বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের মধ্যকার লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় দুপুর ৩টায় প্রথম টি২০ ম্যাচটি শুরু হবে। এরপর লাহোরেই শনিবার দ্বিতীয় এবং সোমবার তৃতীয় ও শেষ টি২০ ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে। এ সিরিজ জয়ের আশা আছে বাংলাদেশ দলের। তিন ম্যাচের মধ্যে একটি ম্যাচ জিতলেই প্রথমবার পাকিস্তানের মাটিতে কোন ম্যাচ জেতা হয়ে যাবে। আর সিরিজ জিতলে তো কথাই নেই। মধুর স্মৃতি মিলবে।

অনেক জল্পনা-কল্পনার পর শেষ পর্যন্ত পাকিস্তানের বিরুদ্ধে পাকিস্তানে গিয়ে সিরিজ খেলা নিশ্চিত হয়েছে। পাকিস্তান সফরে চার মাসে তিনবার যাবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। শুরুতে টি২০ সিরিজ খেলতে গেছে। এরপর দ্বিতীয় ধাপে ফেব্রুয়ারির ৭ থেকে ১১ তারিখ পর্যন্ত রাওয়ালপিন্ডিতে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্ট খেলতে যাবে বাংলাদেশ দল। তৃতীয় ধাপে এপ্রিলের ৩ তারিখে একমাত্র ওয়ানডে এবং ৫ থেকে ৯ এপ্রিল দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট ম্যাচটি করাচীতে হবে। তা খেলতে পাকিস্তান সফরে যাবেন বাংলাদেশ ক্রিকেটাররা। তিন ম্যাচের টি২০ সিরিজ, এক ম্যাচের ওয়ানডে ও দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজের মধ্যে যে কোন একটি ম্যাচ জিততে পারলেই পাকিস্তানের মাটিতে অধরা জয়টি মিলে যাবে।

বাংলাদেশ অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ আগেই সিরিজ জয়ের আশার কথা জানিয়েছেন। বুধবার রাতে বিশেষ ফ্লাইটে করে রাত ৮টায় দেশ ছেড়ে রাত সাড়ে ১১টায় পাকিস্তানের লাহোরে পৌঁছানোর আগেই সিরিজ জয়ের কথা বলে গেছেন। জানিয়েছেন, ‘আমি খুব আশাবাদী যে ভাল কিছু ম্যাচ আমরা উপহার দিতে পারব। আমরা সিরিজ জেতার চেষ্টা করব।’ বৃহস্পতিবার একদিন অনুশীলনও পুরোদমে করে ফেলেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেটাররা। এখন আজ মাঠে নামার পালা। পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজমও বাংলাদেশ দলকে হাল্কাভাবে নিচ্ছেন না। তিনি বলেছেন, ‘আমরা বাংলাদেশকে হাল্কাভাবে নিচ্ছি না। আমরা শুধু ইতিবাচক ক্রিকেটে মনোযোগ দিচ্ছি।’

পাকিস্তানের মাটিতে কখনই জিততে পারেনি বাংলাদেশ। ২০০১ সাল থেকে টেস্ট, ওয়ানডে, টি২০ খেলে কখনই জয় আসেনি। ২০০১ থেকে ২০০৩ সাল পর্যন্ত চার টেস্ট খেলে হার হয়। এরপর আর পাকিস্তানের মাটিতে টেস্ট খেলা হয়নি বাংলাদেশের। মাঝখানে ২০০৮ সালে একটি টি২০ খেলা হয়েছে। তাতেও হার হয়েছে। ১১টি ওয়ানডে খেলে সবকটিতে হেরেছে বাংলাদেশ।

পাকিস্তানের মাটিতে দ্বিপক্ষীয় সিরিজ খেলার হিসেব করলে দুইবার খেলা হয়েছে। পাকিস্তান সফরে এর আগে দুইবার সিরিজ খেলতে গেছে বাংলাদেশ। পাকিস্তানের মাটিতে সর্বপ্রথম ২০০৩ সালে ৩ ম্যাচের টেস্ট ও ৫ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলে আসার পাঁচ বছর পর ২০০৮ সালে ৫ ম্যাচের ওয়ানডে ও এক ম্যাচের টি২০ সিরিজ খেলে বাংলাদেশ। একবার ২০০১ সালে এশিয়ান টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের একটি টেস্ট ও ২০০৮ সালে এশিয়া কাপের একটি ওয়ানডে খেলতেও যায় বাংলাদেশ।

প্রায় সাড়ে ১১ বছর পর পাকিস্তান সফরে গেছে বাংলাদেশ দল। সর্বশেষ ২০০৮ সালের জুলাইয়ে পাকিস্তানের মাটিতে আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছিল বাংলাদেশ। এবার তৃতীয়বারের মতো পাকিস্তান সফরে গেছে। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে টি২০ ম্যাচ খেলা হয় ১০টি। দুটি টি২০তে জয় মিলে। ৮টিতেই হার হয়। সেই জয়গুলো নিজ দেশের মাটিতে পায় বাংলাদেশ। এবার পাকিস্তানের মাটিতে জয় পাওয়ার পালা। আজ প্রথম টি২০তেই বাংলাদেশ বাজিমাত করে ফেলতে পারলেই হয়।

প্রকাশিত : ২৪ জানুয়ারী ২০২০

২৪/০১/২০২০ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



শীর্ষ সংবাদ:
করোনা ভাইরাস : ছুটি বাড়ানো হয়েছে ১১ এপ্রিল পর্যন্ত || গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ২ জন করোনায় আক্রান্ত || সাতদিন ধরে রাজধানীবাসীর স্বাস্থ্য সুরক্ষায় জীবাণুনাশক ওষুধ ছিটাচ্ছে ডিএমপি || করোনা ভাইরাস : যানবাহন ও মানুষ চলাচল বাড়ায় সংক্রমণের ঝুঁকি বাড়ছে || করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান আতিকুলের || করোনা পরিস্থিতিতে সামনের দিনগুলো কঠিন : সাঈদ খোকন || করোনা ভাইরাস : বাড়িভাড়া আদায়ে সহানুভুতি হতে হবে : বাণিজ্যমন্ত্রী || ‘সচেনতনতা তৈরি করতে পেরেছি বলেই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে’ || গাজীপুরে ঘর থেকে স্বামী-স্ত্রী ও মেয়ের মরদেহ উদ্ধার || করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে যেভাবে সফল হল দক্ষিণ কোরিয়া ||