২৩ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

র‌্যাবের আরও দুই সদস্যের জেরা সম্পন্ন


নিজস্ব সংবাদদাতা, নারায়ণগঞ্জ, ২৭ জুন ॥ আলোচিত সাত খুনের দুটি মামলায় র‌্যাবের আরও দুই সদস্যের সাক্ষ্যগ্রহণ ও জেরা হয়েছে। সোমবার সকাল সাড়ে নয়টা থেকে দুপুর বারোটা পর্যন্ত নারায়ণগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ সৈয়দ এনায়েত হোসেনের আদালতে তৎকালীন সময়ে র‌্যাব-১১ তে কর্মরত দুই র‌্যাব সদস্য ল্যান্স নায়েক নাজিমউদ্দিন ও সৈনিক মিলন হোসেনের সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়। সাক্ষ্যগ্রহণ ও জেরা শেষে আদালত আগামী ১১ জুলাই পরবর্তী সাক্ষীদের সাক্ষ্যগ্রহণের তারিখ ধার্য করেন। এর আগে সকালে কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে সাত খুন মামলার প্রধান আসামি নূর হোসেন ও র‌্যাবের সাবেক তিন কর্মকর্তা, লে. কর্নেল তারেক সাঈদ মোহাম্মদ, কমান্ডার এম এম রানা ও মেজর আরিফ হোসেনসহ ২৩ আসামিকে আদালতে হাজির করা হয়। পরে আসামিদের উপস্থিতিইে সাক্ষীদের সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়। সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আসামিপক্ষের আইনজীবীরা তাদের জেরা করেন।

পাবলিক প্রসিকিউটর এস এম ওয়াজেদ আলী খোকন জানান, র‌্যাব-১১ তে তৎকালীন সময়ে কর্মরত দুই র‌্যাব সদস্য ল্যান্স নায়েক নাজিমউদ্দিন ও সৈনিক মিলন হোসেনের সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়েছে। আদালতে তারা সাত খুনের ঘটনার সঙ্গে কারা কারা ছিলেন, কার কি ভূমিকা ছিল বিস্তারিত বর্ণনা দিয়েছেন। এছাড়াও ঘটনার দিন মেজর আরিফ হোসেন ও লেফটেন্যান্ট কমান্ডার এম এম রানার নির্দেশেই তারা সাদা পোশাকে প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলামসহ সাতজনকে অপহরণ ও পরে হত্যাকা- থেকে শুরু করে লাশ গুম করার বিস্তারিত বর্ণনা দেন। তিনি আরও জানান, সাত খুনের মামলা প্রমাণের ক্ষেত্রে এই দুই র‌্যাব সদস্যের সাক্ষ্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। এই নিয়ে ৭ খুনের ঘটনায় দায়েরকৃত দুটি মামলায় মোট ১২৭ সাক্ষীর মধ্যে পৃথক দুই মামলার বাদী, একজন যুগ্ম জেলা জজ, পাঁচজন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট, র‌্যাব কর্মকর্তা-সদস্য ও কয়েকজন আইনজীবীসহ মোট ৭৩ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ সম্পন্ন হলো।