মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৩ জুন ২০১৭, ৯ আষাঢ় ১৪২৪, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

খরায় পুড়ছে ক্ষেতের পাট ॥ কৃষকের কপালে ভাঁজ

প্রকাশিত : ৯ মে ২০১৬

স্টাফ রিপোর্টার, যশোর অফিস ॥ বৈশাখের তপ্ত রোদে যশোর অঞ্চলের পাটচাষীরা বিপাকে পড়েছেন। পাটের জমিতে ঘন ঘন সেচ দেয়ায় যেমন উৎপাদন খরচ বাড়ছে, তেমনি প্রচ- খরায় জমির আগাছা পরিষ্কার করতে পারছেন না। দ্রুত বৃষ্টি না হলে উৎপাদন হুমকির মুখে পড়বে বলে অভিমত কৃষকদের। চাষীরা জানান, অনেক স্থানে তীব্র দাবদাহে পাটগাছ শুকিয়ে যাচ্ছে। ঘনঘন সেচ দিয়েও কৃষক গাছের আশানুরূপ পরিবর্তন আনতে পারছেন না। কৃষি সম্প্রসারণ যশোরের উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা কামরুজ্জামান জানান, এ অঞ্চলের ৬ জেলায় এবার এক লাখ ৬০ হাজার ৪১৬ হেক্টর জমিতে পাট চাষের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে।

বাঘারপাড়া উপজেলার ধলগ্রাম ইউনিয়নের মানিকদহ গ্রামের কৃষক হরিচাঁদ বিশ্বাস এ বছর দুই একর জমিতে পাট চাষ করেছেন। তিনি বলেন, অনাবৃষ্টির কারণে এবার ঘন ঘন সেচ দিতে হচ্ছে। তারপরেও পাটগাছ বাড়ছে না। পাটগাছের বৃদ্ধি দ্রুত না হওয়ায় জমিতে আগাছার পরিমাণ বেড়ে যাচ্ছে। সব মিলে উৎপাদন খরচ বৃদ্ধি পাচ্ছে দ্বিগুণ হারে। একদিকে ধানকাটা ও মাড়াইয়ের কাজে সকলেই ব্যস্ত। এ কারণে পাটের জমিতে কাজ করানোর জন্য কৃষি শ্রমিকদের মজুরিও বেড়ে গেছে।

প্রকাশিত : ৯ মে ২০১৬

০৯/০৫/২০১৬ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



শীর্ষ সংবাদ: