২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৬ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

খুনীদের গ্রেফতার না করে স্বজনদের হয়রানির অভিযোগ


স্টাফ রিপোর্টার, সাতক্ষীরা ॥ কালীগঞ্জের ভূমিহীন জনপদ চিংড়িখালিতে দুই ভূমিহীন নেতা আশরাফ মীর ও ইসহাক গাজীকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে পুলিশের দায়ের করা দুটি মামলায় নিহতদের পুত্র ও ভাইকে আসামি করা হয়েছে। স্বামী হত্যার অভিযোগে নিহত আশরাফ মীরের স্ত্রী ফজিলা খাতুনের মামলা গ্রহণ না করে পুলিশ বাদী মামলায় নিহত আশরাফ মীরের পুত্র কলেজছাত্র হাবিব মীরকে পিতা হত্যা ও ইসহাক গাজীর ভাই শহিদুল গাজীকে ভাই হত্যা মামলার আসামি করায় কালীগঞ্জ থানা পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। সোমবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত লিখিত সংবাদ সম্মেলনে নিহত আশরাফ মীরের স্ত্রী ফজিলা খাতুন পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে বলেন, পুলিশ হত্যাকারীদের গ্রেফতার না করে তাদের স্বজনদের হয়রানি করছে। এ ছাড়া গত ১৯ আগস্ট নিরাপত্তা দাবি করে এ সকল সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে আশরাফ মীর আবেদন করার ৫ দিন পর তার স্বামী ও ভাইকে জীবন দিতে হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনের লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, গত ২৪ আগস্ট এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী, ভূমিদস্যু ও হত্যাসহ একাধিক মামলার আসামি কালীগঞ্জের ইন্দ্রনগর গ্রামের মৃত রুস্তম পাড়ের ছেলে আবুল হোসেন পাড়, শহিদুল পাড়, করিম পাড় ও রহিম পাড়সহ শতাধিক সন্ত্রাসী ভূমিহীন জনপদ চিংড়িখালী ও বৈরাগীর চক এলাকায় হামলা চালিয়ে ভূমিহীন নেতা আশরাফ মীর ও ইসাহাক আলী গাজীকে নির্মমভাবে হত্যা করে। এ সময় আহত হয় বহু ভূমিহীন। এ ঘটনায় কালীগঞ্জ থানায় ফজিলা খাতুন মামলা করতে গেলে থানা মামলাটি রেকর্ড করেননি। উল্টো কালীগঞ্জ থানার এএসআই সাগর আলী নিজে বাদী হয়ে প্রকৃত ঘটনাকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার জন্য এবং প্রকৃত হত্যাকারীদের বাঁচানোর জন্য থানায় দুটি পৃথক মামলা দায়ের করেন। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ভূমিহীন জনপদের নির্যাতিত অর্ধশতাধিক নারী-পুরুষ নিহত ভূমিহীন নেতা আশরাফ মীর ও ইসাহাক আলী গাজীর হত্যাকারীদের শস্তির দাবি জানিয়ে পরিবারের সদস্যদের নিরাপত্তা ও পুলিশী হয়রানি থেকে বাঁচতে প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীসহ পুলিশের উর্ধতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেন। সংবাদ সম্মেলনে নিহত আশরাফ মীরের ছেলে মীর হাসান, মীর হাসানুর, হাসানের স্ত্রী পারভীন সুলতানা, নিহত ইছাহাক গাজীর মেয়ে সাথী পারভীন, স্ত্রী ফরিদা খাতুন উপস্থিত ছিলেন।

চট্টগ্রামে আজ থেকে রাতে আবর্জনা অপসারণ

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ পরিচ্ছন্ন নগরী গড়ে তুলতে আজ মঙ্গলবার থেকে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন রাতের বেলা ময়লা আবর্জনা অপসারণ কার্যক্রম শুরু করছে। ইতোপূর্বে দিনের বেলায় ময়লা আবর্জনা অপসারণের যে কার্যক্রম চলে আসছিল আজ থেকে তা বন্ধ হয়ে যাবে। চসিকের মেয়র দফতরের সূত্রে জানানো হয়, এ উপলক্ষে ইতোমধ্যে নগরজুড়ে প্রচার চালানো হয়েছে। নগরীর ৪১টি ওয়ার্ডে ১৩৫০টি নির্ধারিত স্থানে ময়লা আবর্জনা ফেলার জন্য নগরবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছে চসিক কর্তৃপক্ষ।