ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ২৯ জানুয়ারি ২০২৩, ১৬ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

শেষ ষোলো নিশ্চিত করার মিশন ইংলিশদের

জাহিদুল আলম জয়

প্রকাশিত: ০০:১৪, ২৯ নভেম্বর ২০২২; আপডেট: ০০:১৫, ২৯ নভেম্বর ২০২২

শেষ ষোলো নিশ্চিত করার মিশন ইংলিশদের

অনুশীলনে ইংল্যান্ডের ফুটবলাররা

ইরানের জালে হাফডজন গোল উৎসব করে এবারের বিশ্বকাপে মিশন শুরু করে ইংল্যান্ড। কিন্তু ‘বি’ গ্রুপে পরের ম্যাচে জয়ের ধারা ধরে রাখতে পারেনি ফুটবলের জনকরা। যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করে। যে কারণে নকআউট রাউন্ডের টিকিট কাটার অপেক্ষা বেড়েছে হারি কেনের দলের। তবে গ্রুপের শেষ ম্যাচে সেই সুযোগ হাতছানি দিয়ে ডাকছে ইংলিশদের। ওয়েলসের বিরুদ্ধে ম্যাচে হার এড়ালেই শেষ ষোলোতে খেলা নিশ্চিত হয়ে যাবে ১৯৬৬ বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়নদের।

এ লক্ষ্য নিয়েই দোহার আল রাইয়ানের আহমেদ বিন আলি স্টেডিয়ামে ব্রিটেন ডার্বিতে মুখোমুখি হচ্ছে দুই প্রতিবেশী ইংল্যান্ড ও ওয়েলস। ম্যাচটি মাঠে গড়াবে বাংলাদেশ সময় আজ রাত ১টায়। একই সময়ে ইতিহাসের অন্যতম রাজনৈতিক উত্তাপ সঙ্গী করে মুখোমুখি হচ্ছে ইরান ও যুক্তরাষ্ট্র। দোহার আল থুমামা স্টেডিয়ামে ‘বি’ গ্রুপের এই ম্যাচটিও শুরু হবে রাত ১টায়।
‘এ’ গ্রুপ থেকেও কোন দুটি দেশ শেষ ষোলোর টিকিট পাবে আর কারা তল্পিতল্পা গোছাবে সেটাও নির্ধারণ হয়ে যাবে আজ রাতে। বাংলাদেশ সময় রাত ৯টায় শুরু হওয়া ম্যাচে মুখোমুখি হবে ইকুয়েডর-সেনেগাল ও হল্যান্ড-কাতার। প্রথম দুই ম্যাচে একটি করে জয় ও ড্রয়ে ৪ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপের শীর্ষে থাকা ডাচরা শেষ ম্যাচে অন্তত ড্র করতে পারলেই প্রি-কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত হয়ে যাবে।

গ্রুপের আরেক ম্যাচে সমান চার পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে থাকা ইকুয়েডর যদি সেনেগালকে হারাতে পারে তাহলে কাতারের কাছে পরাজিত হলেও পরের রাউন্ডে উঠে যাবে টোটাল ফুটবলের জনকরা। ইতোমধ্যেই নিজেদের প্রথম দুই ম্যাচ হেরে টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নিয়েছে স্বাগতিক কাতার। নিয়মরক্ষার ম্যাচে এবারের বিশ্বকাপে নিজেদের শেষ ম্যাচ খেলবে স্বাগতিকরা।
সেনেগালের বিরুদ্ধে ২-০ গোলের জয় দিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করেছে হল্যান্ড। এই জয়ে দ্বিতীয় ম্যাচে ইকুয়েডরের সঙ্গে খেলার আগেই শক্তিশালী অবস্থানে চলে যায় কোচ লুইস ভ্যান গালের শিষ্যরা। কোডি গাকপোর এবারের আসরের দ্বিতীয় গোলে ইকুয়েডরের সঙ্গে ষষ্ঠ মিনিটেই লিড পেয়েছিল হল্যান্ড। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে এনার ভ্যালেন্সিয়ার গোলে সমতা ফেরায় ইকুয়েডর। নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে একে অপরের সঙ্গে লড়াইয়ে ১-১ গোলে ড্র করায় দুই ম্যাচ শেষে হল্যান্ড ও ইকুয়েডর দু’দলেরই পয়েন্ট হয়েছে সমান চার করে।

গ্রুপের তলানির দুই দল সেনেগাল ও কাতারের তুলনায় তারা অনেকটাই সুবিধাজনক আছে। কাতারের বিরুদ্ধে কোন সমীকরণের দিকে না তাকিয়ে জয়ের জন্যই মাঠে নামছে ডাচরা। ২০১৮ বিশ^কাপের মূলপর্বে খেলতে ব্যর্থ হয়েছিল তারা। কিন্তু আগের দুই আসরে দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থান নিয়ে বিশ্বকাপ শেষ করেছিল। এবার আবারও সাফল্যের জন্য মরিয়া টোটাল ফুটবলের জনকরা।
সেনেগালের বিরুদ্ধে শেষ ষোলো নিশ্চিত করার ম্যাচে জয় ছাড়া কিছুই ভাবছে না ইকুয়েডর। ডাচদের বিরুদ্ধে ইনজুরিতে পড়ায় দলের সর্বোচ্চ গোলদাতা ভ্যালেন্সিয়ার খেলা নিয়ে শঙ্কা আছে। শেষ পর্যন্ত ভ্যালেন্সিয়া খেলতে না পারলে ইকুয়েডরকে বিকল্প চিন্তা করতে হবে। এই মুহূর্তে ব্রাইটনের ফরোয়ার্ড জেরেমি সারমিয়েতো কিংবা কেভিন রডরিগুয়েজই তার স্থানে খেলার জন্য প্রস্তুত আছেন বলে জানা গেছে।

অন্যদিকে সেনেগাল দলে কোন ইনজুরি শঙ্কা নেই। পুরো ফিট দল নিয়েই ইকুয়েডরকে মোকাবিলা করতে প্রস্তুত তারা। সেন্ট্রাল ডিফেন্সে কালিদু কুলিবালি ও আব্দু ডিয়ালো আছেন। আক্রমণভাগে বুলায়ে ডিয়া ও ফামারা ডিয়েহিউকে বল জোগান দেয়ার জন্য মাঝমাঠে আছেন ইসমাইলা সার ও ক্রেপিন ডিয়াট্টা।
‘বি’ গ্রুপে ৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে ইংল্যান্ড। ইংলিশদের কাছে বড় হারের ধাক্কা সামলে ওয়েলসকে ২-০ গোলে হারিয়ে জয়ে ফেরা ইরান ৩ পয়েন্ট নিয়ে আছে দ্বিতীয় স্থানে। দুই ড্রয়ে ২ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে যুক্তরাষ্ট্র। এক ড্র ও এক হারে ১ পয়েন্ট নিয়ে তলানিতে গ্যারেথ বেলের ওয়েলস। এ কারণে আজ রাতের ম্যাচে ইংলিশরা ড্র করলেই শেষ ষোলোতে পৌঁছে যাবে। মুখোমুখি ১০৩ ম্যাচের ৬৮টিতে জিতে অনেক এগিয়ে ইংল্যান্ড।

ওয়েলসের জয় ১৪টিতে। বাকি ২১ ম্যাচ ড্র হয়েছে। ২০২০ সালের অক্টোবরে সর্বশেষ প্রীতি ম্যাচে ওয়েলসকে ৩-০ ব্যবধানে হারায় ইংল্যান্ড। এছাড়া সর্বশেষ ছয় দেখাতেই প্রতিপক্ষকে হারিয়েছে ইংলিশরা। এই ছয় ম্যাচে কোনো গোল হজম করেনি গ্যারেথ সাউথগেটের শিষ্যরা। একবিংশ শতাব্দীতে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে গোল করা একমাত্র খেলোয়াড় গ্যারেথ বেল। ২০১৬ ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপে ২-১ ব্যবধানে হেরে যাওয়া ম্যাচে ওই গোলটি করেন সাবেক রিয়াল মাদ্রিদ তারকা।
অলিম্পিক এবং ক্রিকেট একসঙ্গে খেলে ইংল্যান্ড ও ওয়েলস। আবার ফুটবলসহ অন্য খেলায় তারা প্রতিপক্ষ। তাই দ্বৈরথটাও বেশ পুরনো। প্রতিপক্ষকে সমীহ করছেন ইংলিশ মিডফিল্ডার জ্যাক গ্রিলিশ। তিনি বলেন, ওয়েলস দলে দারুণ কয়েকজন খেলোয়াড় আছে। নিশ্চিতভাবেই ওরা কেবল সম্মান রক্ষার কথা মাথায় রেখে মাঠে নামবে না।

ওরা এখনো বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে যায়নি। তাই হয়তো জিততে মরিয়া হয়ে থাকবে। আমরা জানি আমাদের জন্য কাজটা কঠিন নয়, তবে প্রতিপক্ষকে নিয়ে সতর্ক। লক্ষ্য একটাই জয় দিয়ে গ্রুপসেরা হয়ে শেষ ষোলোতে জায়গা করে নেয়া।

সম্পর্কিত বিষয়:

monarchmart
monarchmart