ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ১৪ আগস্ট ২০২২, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৯

পরীক্ষামূলক

নদ-নদীর পানি বাড়ছে

সিলেট-সুনামগঞ্জে ফের বন্যার শঙ্কা

জনকণ্ঠ ডেস্ক

প্রকাশিত: ২৩:০০, ২৯ জুন ২০২২

সিলেট-সুনামগঞ্জে ফের বন্যার শঙ্কা

বন্যায়

সিলেট ও সুনামগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় নদ-নদীর পানি ফের বাড়তে শুরু করেছেসিলেটে মঙ্গলবার রাতভর বৃষ্টির পর বুধবার দিনেও বৃষ্টি হয়েছেফলে সুরমা ও কুশিয়ারার পানি ফের বাড়তে শুরু করেছেস্মরণকালের ভয়াবহ বন্যার ধকল এখনও সামলে উঠতে পারেনি সিলেটবাসীএর মধ্যে বন্যার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে

এই দুই জেলার পাশাপাশি নীলফামারী, পঞ্চগড় ও কুড়িগ্রামের বন্যা পরিস্থিতিরও অবনতি হয়েছেভারি বৃষ্টি ও উজানের ঢলে তিস্তা নদীর পানি বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছেফলে নীলফামারীর তিস্তার গজলডোবার ৪৪ জলকপাট খুলে দেয়া হয়েছেগত ২৫ ঘণ্টায় পঞ্চগড়ে সর্বোচ্চ ১৫৫ মিলিমিটার বৃষ্টির রেকর্ড তৈরি হয়েছেপাহাড়ী ঢলে মহানন্দা, করতোয়া, তালমা ও ডাহুক নদীর পানি হু হু করে বাড়ছেকুড়িগ্রামের বিভিন্ন উপজেলার অন্তত ৩০টি চরের মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়েছে। -খবর সিলেট অফিস, স্টাফ রিপোর্টার ও নিজস্ব সংবাদদাতার

সিলেটে মঙ্গলবার রাতভর ভারি বর্ষণের পর বুধবার দিনেও বৃষ্টি হয়েছে৬দিন বৃষ্টি না থাকায় পানি কমতে শুরু করেছিলধীরগতিতে হলেও পরিস্থিতির উন্নতিতে বন্যার্তদের ঘরে ফেরার সুযোগ সৃষ্টি হয়মানুষের মনে আশার সঞ্চার হলেও সেটা আবারও বিষাদে পরিণত হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছেসিলেট অঞ্চলের প্রধান দুই নদী সুরমা ও কুশিয়ারার পানি বাড়ছেসিলেট পানি উন্নয়ন বোর্ড জানায়, সুরমা নদীর পানি সিলেট পয়েন্টে মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টায় ছিল ১০.৫৯ সেন্টিমিটারবুধবার দুপুর ১২টায় দাঁড়িয়েছে ১০.৭৫ সেন্টিমিটারএ নদীর পানি কানাইঘাট পয়েন্টে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ১৩.৩৫ সেন্টিমিটার ছিল

বুধবার দুপুরে হয়েছে ১৩.৬৪ সেন্টিমিটারবিপদসীমার ওপর দিয়ে বইছে পানিকুশিয়ারার আমলশিদ পয়েন্টে পানি বিপদসীমার ১.১৩ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।   শেওলা পয়েন্টেও কুশিয়ারার পানি বিপজ্জনকভাবে বইছেস্মরণকালের ভয়াবহ বন্যার পানি এখনও সর্বত্র দুর্গতি বাড়িয়ে চলেছেএখনও প্লাবিত হয়ে আছে জেলার বেশিরভাগ এলাকাএরই মাঝে বুধবার ফের নদ-নদীর পানি বাড়তে শুরু করায় আতঙ্ক দেখা দিয়েছে সিলেটেমঙ্গলবার রাতের ভারি বৃষ্টিতে জলমগ্ন হয়ে পড়ে নগরের বেশিরভাগ এলাকাউপশহর, তালতলা, তেররতন, মির্জাজাঙ্গালসহ কিছু এলাকার ঘরবাড়িতেও পানি ঢুকে পড়েএতে ফের দুর্ভোগ পোহাতে হয় এসব এলাকার বাসিন্দাদের

পানি আতঙ্কে নির্ঘুম রাত কাটে অনেকেরপাউবো, সিলেটের উপসহকারী প্রকৌশলী এ কে এম নিলয় পাশা বলেন, সিলেটের পাশাপাশি উজানেও বৃষ্টি হচ্ছেএ কারণে নদ-নদীর পানি বাড়ছেনদী, ড্রেন ও ছড়া পানিতে ভরাট হয়ে পড়ায় অল্প বৃষ্টিতেই নগরে জলাবদ্ধতা দেখা দিচ্ছেসিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্রধান প্রকৌশলী নুর আজিজুর রহমান বলেন, সব জলাধার পানিতে টইটম্বুরসিলেট অঞ্চলে বন্যার কবলে পড়েছে ৬৮২টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানএসব প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীর সংখ্যা সাড়ে চার লাখেরও বেশি

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের এক প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, চলতি মাসের মাঝামাঝি সময় থেকে সিলেট বিভাগ ভয়াবহ বন্যার কবলে পড়েবিশেষ করে সিলেট ও সুনামগঞ্জ জেলার বন্যা পরিস্থিতি হয়ে ওঠে দুর্বিষহবন্যায় দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় এ বিভাগের শত শত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পানি ঢুকে পড়েআবার অনেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আশ্রুয় কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহৃত হয়

সুনামগঞ্জ জেলায় ফের বাড়তে শুরু করেছে পানিবুধবার ১১ সে.মি পানি বৃদ্ধি পায়মঙ্গলবার সকাল থেকে বুধবার পর্যন্ত ২২ সে.মি পানি বৃদ্ধি পেয়েছেসুনামগঞ্জ সদর, ছাতক ও দোয়ারাবাজার উপজেলায় থেমে থেমে বৃষ্টি হওয়ার পর  থেকেই নদীতে পানি বাড়তে শুরু হয়েছেতবে সুরমার পানি বৃদ্ধি পেলেও এখনও বিপদসীমার ১৭ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে বইছে

ছাতকে পানি বৃদ্ধি পেয়ে সুরমা নদীর ছাতক পয়েন্টে বিপদসীমার ৮৩ সে.মি ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে২৪ ঘণ্টায় সুনামগঞ্জে ১৭৯ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে

ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২
ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২