ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ২৪ জুলাই ২০২৪, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১

৩৫০ শিক্ষক ও এইচএসসির ৪৩০ শিক্ষার্থী নিহত ॥ বহু স্কুল ভবন ধ্বংস

গাজায় শিক্ষাক্ষেত্রে বিপর্যয়

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ২১:২৪, ২২ জুন ২০২৪

গাজায় শিক্ষাক্ষেত্রে বিপর্যয়

ইসরাইলি হামলায় ধ্বংস হওয়া গাজার একটি স্কুল

গাজার এমন কোনো স্থান বাকি নেই যেখানে ইসরাইলি বাহিনী হামলা চালায়নি। সেখানকার স্কুল, আবাসিক ভবন, হাসপাতাল, মসজিদে হামলা চালিয়ে ধ্বংস করে দেওয়া হয়েছে। অবরুদ্ধ এই উপত্যকায় ইসরাইলি হামলায় শিক্ষা খাতে বড় ধরনের বিপর্যয় দেখা দিয়েছে। গাজার শিক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, সেখানে এখন পর্যন্ত উচ্চ মাধ্যমিকের (এইচএসসি) ৪৩০ শিক্ষার্থী নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও ১২ হাজার ৫০০ শিক্ষার্থী। এখন পর্যন্ত গাজার সাড়ে তিনশ’ শিক্ষক নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া সেখানকার ৩০৭টি স্কুল ভবনের ২৮৬টি ভবনই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। খবর আলজাজিরার।

গাজায় গত ২৪ ঘণ্টায় ইসরাইলি হামলায় আরও ৪৭ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে আলমাওয়াসিতে বাস্তুচ্যুত ফিলিস্তিনিদের তাঁবুতে ইসরাইলি হামলায় অন্তত ২৫ জন নিহত হয়েছেন। অন্যদিকে গাজায় আন্তর্জাতিক মানবিক সহায়তা সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল কমিটি অব রেড ক্রিসেন্টের-আইআরআইসি দপ্তরের কাছে গোলা হামলা চালিয়েছে ইসরাইলি বাহিনী। এতে নিহত হয়েছে অন্তত ২২ জন এবং আহত হয়েছেন আরও ৪৫ জন। এ ঘটনায় আহতদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা গুরুতর। তাই মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে জানিয়েছে রেড ক্রিসেন্ট কমিটি।

এই নিয়ে গাজায় এখন পর্যন্ত ইসরাইলি হামলায় ৩৭ হাজার ৪৩১ জন ফিলিস্তিনির মৃত্যু হয়েছে। টানা আট মাসেরও বেশি সময় ধরে চলা এ হামলায় আরও অন্তত ৮৫ হাজার ৬৫৩ জন আহত হয়েছেন। গাজায় অবিলম্বে যুদ্ধবিরতির দাবি জানিয়ে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের প্রস্তাব সত্ত্বেও ইসরাইল অবরুদ্ধ এই ভূখ-ে তার নৃশংস আক্রমণ অব্যাহত রেখেছে। 
এদিকে বিশ্বজুড়ে ফিলিস্তিনের ওপর মানুষের সমর্থন আগের চেয়ে আরও বাড়তে শুরু করেছে। ইতোমধ্যেই বহু দেশ স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে ফিলিস্তিনকে স্বীকৃতি দিতে শুরু করেছে। নতুন করে এই তালিকায় এবার যুক্ত হয়েছে আর্মেনিয়া। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় শুক্রবার জানিয়েছে, ইসরাইলের বিরোধিতা সত্ত্বেও তারা আনুষ্ঠানিকভাবে ফিলিস্তিন রাষ্ট্রকে স্বীকৃতি দিয়েছে।

×