ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১

স্কুলে বোমার হুমকি, বাড়ি পাঠানো হলো শিক্ষার্থীদের

প্রকাশিত: ১৫:২৫, ১৩ মে ২০২৪

স্কুলে বোমার হুমকি, বাড়ি পাঠানো হলো শিক্ষার্থীদের

ইমেইলের মাধ্যমে দেওয়া এই হুমকির পর স্কুলগুলোতে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়

ভারতের লখনৌতে অনেক স্কুলে বোমা হামলার হুমকি দেওয়া হয়েছে। ইমেইলের মাধ্যমে দেওয়া এই হুমকির পর স্কুলগুলোতে আতঙ্কের সৃষ্টি হয় এবং শিক্ষার্থীদের বাড়িতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

সোমবার (১৩ মে) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সোমবার লখনৌয়ের গোমতী নগরের বেশ কয়েকটি স্কুলে বোমা হামলার হুমকি দেওয়া হয়েছে। এতে করে স্কুল কর্তৃপক্ষ এবং শিশুদের মধ্যে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়। হামলার হুমকি পাওয়ার পর সকল ছাত্র-ছাত্রীকে ক্লাস থেকে বের করে খেলার মাঠে নিয়ে যাওয়া হয়।

আরও পড়ুন : রাফায় সর্বাত্মক ইসরায়েলি আক্রমণে হামাস নির্মূল হবে না: মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

পরে তাদেরকে বাড়িতে ফিরিয়ে নেওয়ার জন্য শিক্ষার্থীদের বাবা-মাকে খবর দেওয়া হয়।

এনডিটিভি বলছে, এসব স্কুল বোমা হামলায় উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি সম্বলিত একটি ইমেইল পেয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ও বোমা নিষ্ক্রিয়কারী দল স্কুলগুলোতে পৌঁছে তদন্ত শুরু করে।

যেসব স্কুল হুমকি-সম্বলিত মেইল ​​পেয়েছে তার মধ্যে ভিবগ্যর হাই স্কুল, এলপিএস পিজিআই শাখা এবং সেন্ট মেরি স্কুলও রয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, স্কুলগুলোতে কোনও অপরাধমূলক বস্তু পাওয়া যায়নি এবং সাইবার সেল এই ইমেইলগুলো কোথা থেকে পাঠানো হয়েছে সে সম্পর্কে তদন্ত করছে।

এর আগে চলতি মাসের শুরুতে বোমা ও বিস্ফোরক পুঁতে রাখা হয়েছে জানিয়ে ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লির প্রায় ১০০ স্কুলে ই-মেইলে হুমকি দেওয়ার ঘটনা ঘটে। এরপরই কর্তৃপক্ষ স্কুল খালি করে ব্যাপক তল্লাশি শুরু করে। এছাড়া স্কুল থেকে সেসময় শিক্ষার্থীদের বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

এমনকি বোমা হামলার হুমকির ই-মেইল ঘিরে দিল্লিতে ব্যাপক তুলকালাম শুরু হয়। অবশ্য স্কুলগুলোতে তল্লাশির সময় কোনও কিছুই পাওয়া যায়নি।

কর্মকর্তারা সেসময় জানান, দিল্লি ও পার্শ্ববর্তী নয়ডা শহরের প্রায় ১০০ স্কুলে বোমা হামলার হুমকি দিয়ে ওই ই-মেইল করা হয়। ই-মেইল পাওয়ার পর অভিভাবকদের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। পরে স্কুল বন্ধ ঘোষণা করে শিক্ষার্থীদের বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

পরে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম এক্সে দেওয়া এক বার্তায় দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, নিরাপত্তা সংস্থাগুলো সব ধরনের প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করছে। দিল্লির শিক্ষামন্ত্রী অতিশী লোকজনকে আতঙ্কিত না হওয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেন, স্কুল কর্তৃপক্ষ প্রয়োজন অনুযায়ী অভিভাবকদের সাথে যোগাযোগ করবে।

এছাড়া যেসব স্কুল সেসময় বোমা হামলার হুমকির ই-মেইল পায়নি, তারাও শিক্ষার্থীদের অভিভাবকদের আশ্বস্ত করে তাদের সন্তানদের সর্বোচ্চ নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে জানিয়েছিল।

উল্লেখ্য, অতীতেও ভারতের রাজধানীর বিভিন্ন স্কুলে একই ধরনের বোমা হামলার হুমকি দিয়ে ই-মেইল করা হয়েছিল। কিন্তু পরবর্তীতে তল্লাশি ও তদন্তে সেই হুমকিকে ভুয়া বলে নিশ্চিত করে  আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

তাসমিম

সম্পর্কিত বিষয়:

×