ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ২৪ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

জাতিসংঘে ফিলিস্তিনের সদস্যপদ আটকে দিল যুক্তরাষ্ট্র

ফিলিস্তিনিদের স্বপ্ন ভঙ্গ

প্রকাশিত: ২২:১০, ১৯ এপ্রিল ২০২৪; আপডেট: ২২:৪২, ১৯ এপ্রিল ২০২৪

ফিলিস্তিনিদের স্বপ্ন ভঙ্গ

.

মার্কিন ভেটোতে ফিলিস্তিনিদের স্বপ্ন ভঙ্গ। ফিলিস্তিনকে জাতিসংঘের ‘পূর্ণাঙ্গ সদস্যপদ’ দেওয়ার প্রস্তাবে সরাসরি ভেটো দিয়েছে ওয়াশিংটন। বৃহস্পতিবার নিরাপত্তা পরিষদে প্রস্তাবটি তোলা হয়। ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী সংগঠন হামাস এ ঘটনার কড়া নিন্দা জানিয়েছে। ১৫ সদস্যের নিরাপত্তা পরিষদে আলজিরিয়া প্রস্তাবটির খসড়া তৈরি করে। সেখানে বলা হয়, ফিলিস্তিনকে পূর্ণ সদস্য হিসেবে গ্রহণ করা হোক। ১২টি দেশ প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দেয়। দুইটি দেশ ভোট দেওয়া থেকে বিরত থাকে। আমেরিকা প্রস্তাবের বিপক্ষে ভোট দেয়। অর্থাৎ, নিজেদের ভেটো ক্ষমতা ব্যবহার করে তারা। খবর বিবিসি, এএফপি ও আলজাজিরা অনলাইনের।

নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য আমেরিকা, ফ্রান্স, যুক্তরাজ্য, রাশিয়া এবং চীন। কোনো প্রস্তাব পাস করাতে হলে নিরাপত্তা পরিষদের অন্তত নয়টি সদস্য দেশকে প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দিতে হয়। স্থায়ী সমস্ত দেশকে প্রস্তাবের পক্ষে থাকতে হয়। একটি দেশ ভেটো দিলে প্রস্তাব পাস হয় না। শুধু তাই নয়, নিরাপত্তা পরিষদে প্রস্তাব পাস হলে জাতিসংঘের সাধারণ সভায় দুই-তৃতীয়াংশ ভোট পেলে তবেই ফিলিস্তিন জাতিসংঘের সদস্য হতে পারবে। এখন তারা কেবলই অবজারভার হিসেবে সেখানে আছে। ভোটের পর জাতিসংঘের মুখপাত্র সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, ‘ভাবনা ভালো ছিল। কিন্তু এদিনের প্রস্তাব সময়ের আগেই নেওয়া হয়েছে। এভাবে ফিলিস্তিনকে সদস্য করা সম্ভব নয়। ভোটের আগে মার্কিন মুখপাত্র জানান, আমেরিকা চায় ফিলিস্তিন আলাদা রাষ্ট্রের সম্মান পাক। কিন্তু সেই আলোচনা সরাসরি ফিলিস্তিন এবং ইসরাইলের সদস্যদের একসঙ্গে বসে করতে হবে। আমেরিকা সেখানে মধ্যস্থতা করতে পারে মাত্র।’

উল্লেখ্য, ১৯৯৩ সালের সেপ্টেম্বরে অসলো চুক্তিতে ফিলিস্তিনকে নিজস্ব প্রশাসন ও সরকার গঠনের সুযোগ দেওয়া হয়। কিন্তু তাদের রাষ্ট্রের সম্মান দেওয়া হয়নি। তবে ভবিষ্যতে যাতে তারা রাষ্ট্রের সম্মান পেতে পারে, সেই রাস্তা তৈরি করে রাখা হয়েছিল।

এদিকে মধ্যপ্রাচ্যজুড়ে উত্তেজনা চলছে। বৃহস্পতিবার ইরানের মদতপুষ্ট ইয়েমেনের হুথি গোষ্ঠী জানায়, ইসরাইল গাজা আক্রমণ করার পর থেকে লাগাতার তারা লোহিত সাগরে জাহাজের ওপর আক্রমণ চালাচ্ছে। এই নিয়ে মোট ১০০টি জাহাজে হামলা চালানো হয়েছে। হুথিদের মুখপাত্র একটি টেলিভিশন সাক্ষাৎকারে বলেন, ভারত মহাসাগরে তারা অভিযান শুরু করেছে। অর্থাৎ, জলপথে ইসরাইলের দক্ষিণে পৌঁছানোর চেষ্টা করছে তারা।

ওই মুখপাত্র আরও জানান, ‘ইসরাইলের বিরুদ্ধে আক্রমণ আরও জোরদার হবে। ইসরাইল গাজায় আক্রমণ শুরু করার পর থেকেই হুথি বিদ্রোহীরা লোহিত সাগরে জাহাজের ওপর আক্রমণ শুরু করে। হামাস জাতিসংঘে ফিলিস্তিনের পূর্ণ সদস্যপদ প্রদানের খসড়া প্রস্তাবের বিষয়ে নিরাপত্তা পরিষদে আমেরিকান ভেটোর নিন্দা জানায়।’ ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ এ ভূখন্ডে  যুদ্ধের কারণে নিহতের সংখ্যা বেড়েই চলায় ক্রমবর্ধমান আন্তর্জাতিক উদ্বেগের প্রেক্ষাপটে এমন প্রস্তাব উত্থাপন করা হয়। এ বিষয়ে ভোটাভুটির প্রাক্কালে ইসরাইলের প্রধান মিত্র এবং সামরিক সহযোগী যুক্তরাষ্ট্রের ভেটো ক্ষমতা প্রয়োগ প্রত্যাশিত ছিল। গত ৭ অক্টোবর ইসরাইলে হামাসের নজিরবিহীন হামলার মধ্যদিয়ে গাজা যুদ্ধ শুরু হয়। হামাসের হামলার প্রতিশোধ নিতে ইসরাইল পাল্টা হামলা শুরু করে। ছয় মাসেরও বেশি সময় ধরে তা অব্যাহত রয়েছে।

×