ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১

পরকীয়ার সন্দেহে স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা

প্রকাশিত: ১০:৪১, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩; আপডেট: ১১:০৫, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩

পরকীয়ার সন্দেহে স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা

প্রতীকী ছবি।

পরকীয়ায় জড়িয়েছেন এমন সন্দেহ থেকে স্ত্রীকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে খুনের অভিযোগ উঠেছে স্বামীর বিরুদ্ধে।  নিহত ওই নারীর নাম সোনালী কুন্ডু, বয়স ৩২ বছর।

এই ঘটনা ঘটেছে পশ্চিমবঙ্গের শিলিগুড়ির মহকুমা পারিষদ এলাকার শিবমন্দির নারায়ন পল্লিতে।

জানা গেছে, দেড় মাস আগে শিলিগুড়ির নারায়ন পল্লী এলাকার একটি বাসা ভাড়া নেন রাহুল কুন্ডু। তার সঙ্গে থাকতেন তার শ্রী সোনালী কুন্ডু এবং তাদের সাত বছরের মেয়ে। ওই এলাকায় একটি কাঠের দোকানে কাজ করতেন রাহুল।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, স্ত্রীর বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্ক রয়েছে এই সন্দেহে রাহুল কথা শোনাতেন। প্রায়ই তাদের মধ্যে কাটাকাটি হতো। গত রবিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রাতে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে প্রচণ্ড ঝগড়া হয়। সে সময় রাহুল হাতুড়ি দিয়ে সোনালীর মাথায় আঘাত করেন। সঙ্গে সঙ্গে রক্তাক্ত অবস্থায় ঘটনাস্থলেই লুটিয়ে পড়েন সোনালী। রক্ত যেন মেঝেতে না ছড়িয়ে পড়ে সেজন্য স্ত্রীর মাথা হাঁড়ির মধ্যে ঢুকিয়ে রাখেন রাহুল।

রাতে ঘুণাক্ষরেও এই ঘটনা কেউ টের পাইনি। সোমবার (১৮ সেপ্টেম্বর) সকালে দিব্যি এলাকায় ঘুরে বেড়িয়েছেন রাহুল। জানা যায়, এলাকার পরিচিত বেশ কয়েকজন রাহুলের স্ত্রীর কথা জিজ্ঞেস করায় পাশ কাটিয়ে যান তিনি।

বেলা গড়াতেই ভয়াবহ এই ঘটনার কথা আর চেপে রাখতে পারেননি রাহুল। যে বাড়িতে তিনি ভাড়া ছিলেন সেই বাড়ির অপর এক ভাড়াটিয়াকে নিজেই স্ত্রীকে মেরে ফেলার কথা জানান। এসব শুনে চমকে যান ওই ভাড়াটিয়া। পরে তিনি স্থানীয় পঞ্চায়েত সদস্যকে বিষয়টি জানান।

সেখান থেকে খবর দেওয়া হয় শিলিগুড়ির মাটিগড়া থানায়। ঘটনাস্থলে মাটিগড়া থানার পুলিশ এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়। সঙ্গে সঙ্গেই রাহুলকে গ্রেফতার করে মাটিগড়া থানার পুলিশ। 
 

টিএস

×