ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১

এদের ৮ জন বাংলাদেশী

সৌদিতে মর্মান্তিক বাস দুর্ঘটনায় ২২ ওমরাযাত্রী নিহত

জনকণ্ঠ ডেস্ক

প্রকাশিত: ০২:০৯, ২৯ মার্চ ২০২৩

সৌদিতে মর্মান্তিক বাস দুর্ঘটনায় ২২ ওমরাযাত্রী নিহত

দুর্ঘটনায় বিধ্বস্ত বাস

সৌদি আরবের আকাবা শারে ওমরা যাত্রীদের বাস দুর্ঘটনায় ২২ জন নিহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে ৮ জনই বাংলাদেশী নাগরিক বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ দূতাবাস। জেদ্দায় বাংলাদেশ দূতাবাসের একজন কর্মকর্তা বলেন, বাসে মোট যাত্রী ছিল ৪৭ জন, তার মধ্য বাংলাদেশী যাত্রী ছিলেন ৩৫ জন। দুর্ঘটনায় যে ২২ জন নিহত হন তাদের পরিচয় প্রকাশ করেনি সৌদি কর্র্তৃপক্ষ। আহত ১৮ বাংলাদেশী বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
এ দিকে, বাস দুর্ঘটনায় ২২ জনের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মঙ্গলবার এক শোকবার্তায় প্রধানমন্ত্রী নিহতদের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।
দুর্ঘটনায় নিহত আট বাংলাদেশী হলেন- নোয়াখালীর শহিদুল ইসলাম ও মোহাম্মদ হেলাল, কুমিল্লার মামুন মিয়া ও রাসেল মোল্লা, লক্ষ্মীপুরের সবুজ হোসেন, কক্সবাজারের আসিফ, টঙ্গীর ইমাম হোসাইন রনি এবং চাঁদপুরের রুকু মিয়া।
আল আরাবিয়া ও গলফ নিউজ জানিয়েছে, সোমবার বিকেল চারটার দিকে আকাবা শার নামকস্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে। বাসটি ওমরা পালনরত হজযাত্রীদের নিয়ে পবিত্র নগরী মক্কায় যাচ্ছিল। আভা জেলায় বসবাসরত বাংলাদেশীসহ বিভিন্ন দেশের যাত্রী নিয়ে রুবা আল হিজাজ পরিবহন কোম্পানির একটি বাস সন্ধ্যায় মক্কার উদ্দেশে রওনা হয়। প্রাথমিক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ব্রেক সিস্টেমের ত্রুটির কারণে বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি সেতুর রেলিংয়ের সঙ্গে ধাক্কা  লেগে উল্টে যায় এবং আগুন ধরে যায়। যাত্রীরা বাস থেকে নামতে পারেনি, ফলে হতাহতের ঘটনা ঘটে । 
স্থানীয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ কনস্যুলেট প্রতিনিধিকে জানিয়েছে, মৃতদেহ পুড়ে যাওয়ার এবং বিকৃত হওয়ার কারণে তাদের জাতীয়তা নির্ধারণ করা কঠিন। প্রধানমন্ত্রী পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও সৌদি আরবে বাংলাদেশ দূতাবাস কর্মকর্তাগণকে আহত বাংলাদেশী নাগরিকদের চিকিৎসার সকল প্রকার উদ্যোগ গ্রহণের নির্দেশনা প্রদান করেছেন। 
মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সেহেলী সাবরীন জানান, ৩৫ বাংলাদেশীর মধ্যে ১৮ জন আহত হয়েছেন। তাদের উদ্ধার করে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ছাড়া সৌদি আরবের বাংলাদেশ মিশন আহতদের দেখভাল করছে।
এদিকে স্বজনদের প্রয়োজনে জেদ্দায় বাংলাদেশ কনস্যুলেটের দুটো নম্বরে যোগাযোগ করতে বলেছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। নম্বর দুটি হল : প্রথম সচিব (শ্রম) মো. আরিফুজ্জামান- +৯৬৬৫৩৮৬৪৩৫৩২ এবং কাউন্সেলর (শ্রম) কাজী এমদাদ- +৯৬৬ ৫৫ ৩০২ ৬৮১৪.

×