ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৪ আশ্বিন ১৪২৯

জীবন মুরাদের ‘কে কথা কয় রে’

প্রকাশিত: ০৩:৪১, ১ ডিসেম্বর ২০১৬

জীবন মুরাদের ‘কে কথা কয় রে’

স্টাফ রিপোর্টার ॥ জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী জীবন মুরাদের ‘কে কথা কয় রে’ নামে একক এ্যালবামটি সম্প্রতি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ‘কাহার’ এর ব্যানারে প্রকাশ হয়েছে। এ্যালবামে গান রয়েছে ১১টি। গানগুলো লিখেছেন খান এম হোসেন, ইসলাম উদ্দীন এবং জীবন মুরাদ নিজে। সব কটি গানের সুর করেছেন জীবন মুরাদ নিজেই। সঙ্গীত পরিচালনায় ছিলেন রোজেন ও লিটন দাশ। এ্যালবামের ‘কে কথা কয়রে’, ‘মাওলা’, ‘আশায় আশায়’ ‘আমি ঝরে যাব’ শিরোনামের গানগুলো নিয়ে জীবন মুরাদ বেশ আশাবাদী। ক্যারিয়ারের শুরুতে চলচ্চিত্র পরিচালক দেবাশীষ সরকার মুরাদকে এটি এনবাংলায় দুটি গান গাওয়ার সুযোগ করে দেন। গুণী সঙ্গীত পরিচালক ইমন সাহার সহযোগিতায় চ্যানেল আইয়ের উদ্বোধনী সঙ্গীত ‘শতাব্দী থেকে শতাব্দী পেরিয়ে’ গান করেন। এরপর ইমন সাহার সঙ্গীত পরিচালনায় রিজিয়া পারভিনের সঙ্গে ‘খালাস’ চলচ্চিত্রে কন্ঠ দেন মুরাদ। সঙ্গীত পরিচালক আবিদ রনির প্রত্যক্ষ সহযোগিতায় উজ্জল সাউন্ড থেকে প্রকাশ হয় জীবন মুরাদের প্রথম একক এ্যালবাম ‘হারিয়ে ফেলেছি তোমাকে’। তারপর একে একে মুরাদের ২০টি একক এ্যালবাম প্রকাশ হয়। খালিদ হাসান মিলু, সাজু, পলাশ, উজ্জলের মত তারকা শিল্পীদের গান করেন মুরাদ। এক সময় চলচ্চিত্রে কাজ শুরু করেন। একে একে দুই বাংলার তিন শতাধিক চলচ্চিত্রে প্লেব্যাক করেন মুরাদ। এ সময় অনেকের সঙ্গেই কন্ঠ দিয়েছেন। বর্তমানে বেশ কয়েকটি একক, ডুয়েট ও মিক্সড এ্যালবামে গান গাওয়ার জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন। মডার্ন ফোক গানে তার আগ্রহ বেশী। তবে বর্তমানে সুফি গানই তার সবচেয়ে পছন্দ। জীবন মুরাদের গাওয়া জনপ্রিয় গানের মধ্যে রয়েছে ‘হারিয়ে ফেলেছি’, ‘কাঁদবোনা’, ‘একবার দেখা দাওনা’, ‘হারিয়ে গেছে প্রিয়া’, ‘কাঁদিয়ে প্রিয়া চলে গেল’, ‘বুকের ভিতর খাচার পাখি’ প্রভৃতি। গান গাওয়ার পাশাপাশি সুর ও সঙ্গীত পরিচালনা করছেন তিনি। সম্প্রতি ‘ঢাকা টু বোম্বে’ এবং ‘ রাজা ৪২০’ নামের দুটি ব্যবসা সফল চলচ্চিত্রের সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন জীবন মুরাদ। জীবন মুরাদ তার মেধা ও যোগ্যতা অনুযায়ি এগিয়ে যাবেন তার কাঙ্খিত লক্ষে সেই প্রত্যাশা।