রবিবার ৭ আষাঢ় ১৪২৮, ২০ জুন ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

মৃত্যুর চার মাস পর হত্যার অভিযোগ

মৃত্যুর চার মাস পর হত্যার অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ স্বামীর পরকীয়ায় বাঁধা দেয়ায় তিন সন্তানের জননী এক গৃহবধূকে নির্যাতনের পর হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। কুলসুম বেগম (৩০) নামের ওই গৃহবধূর মৃত্যুর প্রায় চার মাস পর নিহতের স্বামীর বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ করেছেন কুলসুমের ভাই লাল মিয়া হাওলাদার।

তবে এ ঘটনায় এখনো থানা কিংবা আদালতে মামলা দায়ের করেননি নিহতের পরিবার। আজ বুধবার সকালে নিহতের ভাই লাল মিয়া হাওলাদার অভিযোগ করেন, তার বোনজামাতা মাসুদ হাওলাদার ও তার সহযোগিদের অব্যাহত হুমকির মুখে তিনি আইনের সহায়তা নিতে পারছেন না। তবে জেলার বাকেরগঞ্জ থানার ওসি মোঃ আলাউদ্দিন মিলন জানিয়েছেন, অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। নিহত গৃহবধূ কুলসুম বেগম বাকেরগঞ্জ উপজেলার পূর্ব চরাদী ইউনিয়নের গুয়াখালী গ্রামের মাসুদ হাওলাদারের স্ত্রী।

নিহতের ছোট ভাই লাল মিয়া হাওলাদার জানান, গত বছরের ১২ ডিসেম্বর রাতে নিজ ঘরে কুলসুমকে তার স্বামী মাসুদ হাওলাদার নির্যাতন ও শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করে। পরেরদিন স্বাভাবিক মৃত্যুর কথা প্রচার করে তড়িঘড়ি করে জানাজা শেষে কুলসুমের লাশ দাফন করা হয়।

লাল মিয়া হাওলাদার বলেন, দীর্ঘদিন পরে হলেও আমার বোনের মৃত্যুর পর যারা গোসল করিয়েছেন অতিসম্প্রতি তারা আমাকে জানিয়েছেন কুলসুমের গলার নিচে ও শরীরের বিভিন্নস্থানে আঘাতের চিহ্ন ছিলো। বিষয়টি আমি জানার পর থেকে এ ব্যাপারে মুখ না খোলার জন্য মাসুদ ও তার সহযোগিরা আমাকে বিভিন্ন ধরনের ভয়ভীতিসহ প্রাণনাশের হুমকি অব্যাহত রেখেছে। তাদের হুমকির মুখে আমি (লাল মিয়া হাওলাদার) আইনী সহায়তা নিতে পারছিনা। তিনি আরও জানান, মাসুদ হাওলাদারের পরকীয়ায় বাঁধা দেওয়ার কারণেই তার বোন কুলসুম বেগমকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।

হত্যা কিংবা হুমকির অভিযোগ অস্বীকার করে মাসুদ হাওলাদার সাংবাদিকদের বলেন, স্থানীয় একটি মহল আমাকে হয়রানী করতে শ্যালক লাল মিয়া হাওলাদারকে দিয়ে নানা অপপ্রচার শুরু করেছে।

করোনাভাইরাস আপডেট
বিশ্বব্যাপী
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
১৭৭০৯৫৪৫৫
আক্রান্ত
৮৪৪৯৭০
সুস্থ
১৬১৩০৪৬০১
সুস্থ
৭৭৮৪২১
শীর্ষ সংবাদ:
বিষ ছড়াচ্ছে পলিথিন ॥ হুমকির মুখে জনস্বাস্থ্য ও প্রাকৃতিক পরিবেশ         প্রধানমন্ত্রী আজ ৫৩ হাজার পরিবারকে দিচ্ছেন জমি ও ঘর         রাজধানীতে একই পরিবারের ৩ জন খুন         গণটিকাদান কর্মসূচী শুরু         পুঁজিবাজারের সামনে ভাল ভবিষ্যৎ রয়েছে         প্রিয় পিতার জন্য ভালবাসা         ভুটানের সঙ্গে পিটিএ কার্যকর হচ্ছে নতুন বছরে         করোনায় একদিনে মৃত্যু বেড়ে ৬৭         করোনা বেড়ে যাওয়ায় পর্যটনশিল্প ফের অনিশ্চয়তায়         নাসির ও অমির তিন রক্ষিতা কারাগারে         রোহিঙ্গাদের এনআইডি পাওয়ার নেপথ্যে চাঞ্চল্যকর জালিয়াতি         প্রাকৃতিক গ্যাস অনুসন্ধানই জ্বালানি নিরাপত্তার অন্যতম উপায়         প্রমাণ সরবরাহ করলে তথ্য দেবে সুইস ব্যাংক         সাবেক জেলা নির্বাচন কর্মকর্তাসহ ১৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা         একই স্থানে সব সেবা প্রদান সুবিধা থাকা বাঞ্ছনীয় : বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী         করোনা : গত ২৪ ঘন্টায় মৃত্য ৬৭         “১২ বছর আগের পিছিয়ে পরা বাংলাদেশ আজ অপ্রতিরোধ্য গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে”         খুলনা বিভাগে একদিনে করোনায় সর্বোচ্চ মৃত্যু ২২, শনাক্ত ৬২৫         দেশব্যাপী সিনোফার্মের ভ্যাকসিন দেওয়া শুরু         ‘আবার ব্যাপকভাবে জনগণকে টিকা দেওয়ার কার্যক্রম শুরু হবে’