বুধবার ১২ মাঘ ১৪২৮, ২৬ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

স্টক একচেঞ্জকেই প্রথমে কারসাজি ধরতে হবে ॥ সালমান এফ রহমান

স্টক একচেঞ্জকেই প্রথমে কারসাজি ধরতে হবে ॥ সালমান এফ রহমান

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান ফজলুর রহমান বলেছেন, প্রাথমিক নিয়ন্ত্রক সংস্থা হিসেবে ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব রয়েছে। শেয়ারবাজারের দায়িত্ব শুধু সরকার, অর্থ মন্ত্রণালয় ও বিএসইসির, আর স্টক এক্সচেঞ্জ শুধু বসে থাকবেন, তা না। তাদেরকেও শক্তিশালী হতে হবে। স্টক একচেঞ্জকেই কারসাজি ধরতে হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। সেই সাথে শেয়ারবাজার পড়ে গেলে সরকারকে দোষারোপের ধারা থেকেও বের হয়ে আসতে হবে।

শনিবার বাংলাদেশ মার্চেন্ট ব্যাংকার্স এসোসিয়েশন (বিএমবিএ) ও ক্যাপিটাল মার্কেট জার্নালিস্ট ফোরাম (সিএমজেএফ) এর যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত শেয়ারবাজারের সর্বশেষ পরিস্থিতি এবং টেকসই উন্নয়ন নিয়ে ওয়েবিনারে স্বাগত বক্তব্যে তিনি এ দাবি জানান।

এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে বিএসইসির চেয়ারম্যান প্রফেসর শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম, ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআই সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম এবং ডিসিসিআই সভাপতি সামস মাহমুদ অংশ নেন। সেখানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিএমবিএর ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট মো. মনিরুজ্জামান।

সালমান এফ রহমান বলেন, শেয়ারবাজারে যদি কোন কারসাজি হয়ে থাকে, সেটা পুরো পৃথিবীতেই সবার আগে স্টক এক্সচেঞ্জ ধরে। বিএসইসিতো অনেক পরের বিষয়। প্রথমেই ধরবে স্টক এক্সচেঞ্জ। তাদের ওখানেইতো প্রতিদিন লেনদেন হয়। যেকোন ধরনের অনিয়মের লেনদেন দেখলে বুঝতে পারা যায়। কিন্তু এখনো আমাদের শেয়ারবাজারে যে কোম্পানি বন্ধ এবং সবাই সেটা জানি, তারপরেও সেই কোম্পানির দর বাড়ে। কারা এসব কোম্পানির শেয়ার কিনে এবং কারা বিক্রি করে, তা স্টক এক্সচেঞ্জ জানে। এখানে যে কারসাজি হচ্ছে এবং খোলামেলাভাবে হচ্ছে, লুকিয়ে কেউ করছে না। কিন্তু যখনই সূচক নামতে থাকে তখনই রাস্তায় লোকজন নেমে সরকারকে দোষারোপ করে।

বিএসইসি চেয়ারম্যানের সঙ্গে একাত্মতা জানিয়ে সালমান এফ রহমান বলেন, এই যে প্রতিদিন স্টক এক্সচেঞ্জের চোখের সামনে দিয়ে ও নাকের নিচে কারসাজি করা হচ্ছে, তারা কি অ্যাকশান নিয়েছে। তাদেরইতো ্েব্রাকাররা এসব করে আসছে। তো কি ব্যবস্থা নিয়েছে? তাই আমাদেরকে সরকারকে দোষারোপের মনস্তাত্তিক পরিবর্তন আনতে হবে। পরিপক্ক বাজারের দিকে যেতে হলে স্টক একচেঞ্জকেই শক্ত ব্যবস্থা নিতে হবে।

আমাদের শেয়ারবাজার উন্নতির পথে রয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, এই বাজার নিয়ে আমরা আশাবাদী। এক্ষেত্রে সবাই যেভাবে কাজ করছে, একইভাবে ডিএসইকে দায়িত্ব পালন করতে হবে। তিনি আরও বলেন, রিটেইল ইনভেস্টরদেরকে প্রটেকশন দেওয়ার দায়িত্ব সরকারের, এই মনস্তাত্তিক অবস্থা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। আপনি বিনিয়োগ করেছেন, আপনাকেই জেনে-শুনে করতে হবে। লাভ-লোকসান আপনার। আমার কাছেও অনেক লোক বলে লোকসান করেছি, ওইসময় আমি বলি আপনি কত মুনাফা করেছেন, তা বলেন। বিও অ্যাকাউন্ট চাই বিশ্লেষণের জন্য। তখন বলি আপনি কি শুধুই লস করেছেন, আপনিতো যখন লাভ ছিল, তখন বিক্রি করেন নাই, লোভের বশবর্তী হয়ে আরও মুনাফার আশায় বসেছিলেন। যাতে বাজার পড়ে গিয়ে এখন লোকসানে চলে এসেছেন। এখন সরকারের দোষ দেন। এই মনস্তাত্তিক অবস্থা থেকে আমাদেরকে বের হতে হবে। যারাই বিনিয়োগ করবে, তাদেরকে জেনে-শুনে বিনিয়োগ করতে হবে।

শীর্ষ সংবাদ:
অস্থির চালের বাজার ॥ রেকর্ড মজুদেও কমছে না দাম         বারবার প্রকল্প সংশোধন করা যাবে না ॥ প্রধানমন্ত্রী         করোনা শনাক্ত ১৬ হাজার ছাড়িয়েছে         শাবির জটিলতা নিরসনের কোন লক্ষণ নেই         সাড়ে চার হাজার কোটি টাকার ১০ প্রকল্প অনুমোদন একনেকে         বিএনপি দেশের ক্ষতির জন্য লবিস্ট নিয়োগ করেছে ॥ ড. মোমেন         বেসরকারী হাসপাতালকে প্রস্তুত হওয়ার আহ্বান স্বাস্থ্যমন্ত্রীর         সারাদেশে ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায়ে চালু হচ্ছে বিট পুলিশিং         বাণিজ্যমেলা বন্ধ ও বইমেলা পেছানোর সুপারিশ         টেকনিক্যাল ত্রুটি ॥ দ্বিতীয় মামলার ফাইনাল রিপোর্ট, প্রথমটি চলবে         স্ক্র্যাপ ও পুরনো জাহাজের দাম বেড়েছে, রডের বাজার অস্থিতিশীল         পার্বত্য চট্টগ্রামের সব ইটভাঁটির কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশ         মানবাধিকার লঙ্ঘনের মতো কোন ঘটনা ঘটেনি         তাড়াহুড়া ইসি নিয়োগ আইন টিকে থাকার নীলনক্সা ॥ ফখরুল         দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে দুর্ভোগ সারাবছর         বৃহস্পতিবার গণমাধ্যমের মুখোমুখি হচ্ছেন সিইসি কেএম নূরুল হুদা         দেশের অর্থনীতিতে গতিসঞ্চারে ভূমিকা রাখতে কাস্টমস কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান রাষ্ট্রপতির         করোনায় মৃত্যু ১৮, শনাক্ত ১৬ হাজার         করোনাভাইরাস : বাণিজ্যমেলা বন্ধ ও বইমেলা পেছানোর পরামর্শ         টিকার কারণে হাসপাতালে রোগী কম, মৃত্যুও কম : স্বাস্থ্যমন্ত্রী