ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৫ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

অ্যাপল-এপিক লড়াইয়ে ক্ষতি মাইক্রোসফটের

প্রকাশিত: ১৫:৫৫, ২৪ আগস্ট ২০২০

অ্যাপল-এপিক লড়াইয়ে ক্ষতি মাইক্রোসফটের

অনলাইন ডেস্ক ॥ অ্যাপল ও ফোর্টনাইট নির্মাতা এপিক গেইমসের লড়াইয়ে ক্ষতি হবে মাইক্রোসফটের গেইমিং ব্যবসার। এপিকের গ্রাফিক্স টুল ‘আনরিয়েল ইঞ্জিন’ আইওএস প্ল্যাটফর্ম থেকে বাদ পড়লে প্রতিষ্ঠানটির অন্তত একটি গেইমের উপর প্রভাব পড়বে। রবিবার আদালতের এক নথিতে নিজ ক্ষতির ব্যাপারে জানিয়েছে মাইক্রোসফট। রয়টার্স উল্লেখ করেছে ‘ফোর্জা স্ট্রিট’ গেইমে এপিকের আনরিয়েল ইঞ্জিন ব্যবহার করেছে মাইক্রোসফট। বর্তমান পরিস্থিতিতে হয় আইওএস ও ম্যাকওএস প্ল্যাটফর্ম থেকে গেইমটিকে সরিয়ে নিতে হবে, না হয় বিকল্প কোনো টুল খুঁজে নিতে হবে তাদের। নিজ প্ল্যাটফর্মে সব অ্যাপের ‘ইন-অ্যাপ’ পারচেসের ৩০ শতাংশ নিয়ে নেয় অ্যাপল। এই নিয়ম মানতে রাজি নয় ফোর্টনাইট নির্মাতা এপিক গেইমস। সরাসরি এপিক স্টোর থেকে ফোর্টনাইট গেইমারদেরকে নানাবিধ গেইমিং টুল কেনার সুযোগ করে দিয়েছিল প্রতিষ্ঠানটি। ব্যাপারটি পছন্দ হয়নি অ্যাপলের, এপিকের চ্যালেঞ্জের জবাবে অ্যাপ স্টোর থেকে ফোর্টনাইট সরিয়ে দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। পরে আদালতের শরণাপন্ন হয় এপিক গেইমস। এরই মধ্যে নিজেদের ডেভেলপার কর্মসূচী থেকেও এপিক গেইমসকে বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্ত জানায় অ্যাপল। এতে বাদ পড়বে এপিকের গ্রাফিক্স টুল আনরিয়েল ইঞ্জিন এবং ওই গ্রাফিক্স টুল ব্যবহারকারী অসংখ্য গেইম। অ্যাপল যাতে ওই কাজ না করতে পারে, সেজন্য আদালতের নিষেধাজ্ঞা চেয়ে আবেদন করেছে এপিক। অ্যাপলও পাল্টা আবেদনে জানিয়েছে, এপিক বিশেষ সুবিধা চাইছে যা তাদের পক্ষে দেওয়া সম্ভব নয়, ফোর্টনাইটের এ পরিণতি এপিকের নিজের কর্মফল। কিন্তু এবার মাইক্রোসফট এসে জানালো নতুন খবর। আদালতে প্রতিষ্ঠানটির গেইমিং ডেভেলপার এক্সপেরিয়েন্সের মহাব্যবস্থাপক কেভিন গামিল বলছেন, এপিকের আনরিয়েল ইঞ্জিনের “শিল্পোদ্যাগ প্রশস্ত” অনুমোদন রয়েছে তাদের কাছে এবং অ্যাপল যদি আনরিয়েল ইঞ্জিনকে বাদ দেয়, তাহলে তাদের ম্যাক ও আইফোনের গেইম তৈরির সক্ষমতা ক্ষতিগ্রস্থ হবে। “যদি আনরিয়েল ইঞ্জিন আইওএস এবং ম্যাকওএসের জন্য গেইম সমর্থন না করতে পারে তাহলে হয় মাইক্রোসফটকে আইওএস এবং ম্যাকওএস প্ল্যাটফর্মের গ্রাহকদেরকে ত্যাগ করতে হবে, না হয় নতুন গেইম তৈরির সময় ভিন্ন কোনো গেইম ইঞ্জিন বেছে নিতে হবে।” – আদালতের নথিতে লিখেছেন গামিল। এপিকের প্রকৌশল বিভাগের ভাইস প্রেসিডেন্ট নিকোলাস পেনওয়ার্ডেন রবিবার আদালতের নথিতে জানিয়েছেন, বেশ কয়েকজন আনরিয়েল ইঞ্জিন ব্যবহারকারী শঙ্কা প্রকাশ করেছেন – অন্তত একটি অটোমোটিভ নকশা সংস্থা প্রতিষ্ঠানটিকে উদ্বেগের সঙ্গে জানিয়েছে যে তাদের প্রকল্প বাধাগ্রস্থ হতে পারে। অ্যাপলকে ‘আনরিয়েল ইঞ্জিন’ সরানো থেকে বিরত রাখতে এপিক এখনও আদালতের নির্দেশের অপেক্ষায় রয়েছে। অ্যাপল অবশ্য এপিককে জানিয়েছে, ফোর্টনাইট লেনদেন নিয়ম ভেঙে অ্যাপ স্টোরকে যে যে অর্থ থেকে বঞ্চিত করেছে, তা ফিরিয়ে দিলে অ্যাপল প্ল্যাটফর্ম থেকে বিদায় নিতে হবে না এপিকের।
monarchmart
monarchmart