বৃহস্পতিবার ২৯ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৩ আগস্ট ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

আখাউড়া হয়ে ট্রানজিটের প্রথম চালান গেলো ভারতে

আখাউড়া হয়ে ট্রানজিটের প্রথম চালান গেলো ভারতে

অনলাইন রিপোর্টার ॥ প্রথমবারের মতো চট্টগ্রাম নৌবন্দর ব্যবহার করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে পরীক্ষামূলক ট্রানজিটের পণ্য পরিবহন করেছে ভারত।

আজ বৃহস্পতিবার আখাউড়া স্থলবন্দরে দুই দেশের আনুষ্ঠানিকতা শেষে চারটি লরিতে করে ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যে পৌঁছেছে এসব পণ্য। এই ট্রানজিটের পণ্য পরিবহনের মধ্যে দিয়ে বাংলাদেশ ও ভারত সম্পর্কের নতুন দিগন্ত উন্মোচন হয়েছে বলে মনে করছে দুই দেশের ব্যবসায়ীসহ সংশ্লিষ্টরা।

পণ্য পরিবহনের দায়িত্বে থাকা আখাউড়া স্থলবন্দরের সিএন্ডএফ এজেন্ট আদনান ট্রেড ইন্টারন্যাশনাল এর মালিক মো. আক্তার হোসেন ও ভারতীয় পণ্য পরিবহনের দায়িত্বে থাকা বাংলাদেশের ম্যাংগু লাইনের কর্মকর্তা মো. সোহেল খান জানান, গত ১৪ জুলাই ভারতের কলকাতা হলদিয়া নৌ-বন্দর থেকে এমভি সেঁজুতি নামে একটি জাহাজ ডাল এবং স্টিলপাত (রড) বাংলাদেশের চট্টগ্রামের উদ্দেশে রওনা হয়। পরে জাহাজটি ২১ জুলাই বেলা ১১টার দিকে চট্টগ্রাম নৌবন্দরে এসে পৌঁছে। ২০১৮ সালের ২৫ অক্টোবর বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে 'অ্যাগ্রিমেন্ট অন দ্যা ইউজ অফ চট্টগ্রাম এন্ড মোংলা পোর্ট ফর মুভমেন্ট অব গুডস টু এন্ড ফ্রম ইন্ডিয়া' চুক্তির আওতায় আর্টিক্যাল টু (অনুচ্ছেদ দুই) অনুযায়ী ২০১৯ সালের ৫ অক্টোবর উভয় দেশের মধ্যে স্বাক্ষরিত স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রসিডিউর (এসওপি) অনুযায়ী এসব পণ্য বাংলাদেশের উপর দিয়ে নিয়ে যায় ভারত। দুটি কন্টেইনারে ৫৩.২৫ মেট্রিক টন রড ও দুটি কন্টেইনারে ৪৯.৮৩ মেট্রিক টন ডাল রয়েছে।

একাধিক সূত্রে জানা গেছে, পণ্য পরিবহনে সহজ পথের বিবেচনায় আশুগঞ্জের পাশাপাশি চট্টগ্রাম ও মোংলা বন্দর ব্যবহার করতে চায় ভারত। এর আগে আশুগঞ্জ নৌ-বন্দর ব্যবহার করে আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রের যন্ত্রের পাশাপাশি অন্যান্য পণ্য নিয়ে যায় ভারত। এখন থেকে তারা নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রীও নিতে চায়। বিশেষ করে সেভেন সিস্টার হিসেবে পরিচিত ভারতের ত্রিপুরাসহ সাতটি রাজ্যের নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য নিতে আগ্রহী হয়ে ওঠে সেই দেশের সরকার ও ব্যবসায়ীরা। এরই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশের সঙ্গে পণ্য পরিবহনের চুক্তি হয়। চুক্তির আলোকে প্রথম পরীক্ষামূলক চালান হিসেবে রড ও ডাল নিলো ভারত।

পণ্য পরিবহনে রাজস্ব বোর্ডের মাধ্যমে ভারত সাত ধরণের ফি দিয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে- ডকুমেন্ট প্রসেসিং ফি প্রতি চালান ৩০ টাকা, ট্রান্সশিপমেন্ট ফি প্রতি মেট্রিকটন ২০ টাকা, সিকিউরিটি চার্জ প্রতি মেট্রিক টন ১০০ টাকা, অ্যাসকর্ট চার্জ প্রতি মেট্রিক টন ৫০ টাকা, বিবিধ প্রশাসনিক চার্জ প্রতি মেট্রিক টন ১০০ টাকা, কন্টেইনার স্ক্যানিং ফি প্রতি কন্টেইনার ২৫৪ টাকা। এছাড়া ইলেকট্রিক লক এন্ড সিল ফি হিসেবে বিধিমালা দ্বারা নির্ধারণের পরিমাণ বাধ্যতামূলক করা হয়। এই সংক্রান্ত এক চিঠিতে বলা হয়, বাংলাদেশে প্রবেশের সাত দিনের মধ্যে ভারতে পণ্য প্রবেশ করবে। তবে বিশেষ পরিস্থিতিতে কাস্টমস কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করে সময় বাড়ানো যাবে।

এ ব্যাপারে আখাউড়া স্থল শুল্ক স্টেশনের রাজস্ব কর্মকর্তা হারুন অর রশিদ বলেন, 'পণ্য পরিবহনের জন্য জাতীয় রাজস্ব বোর্ড থেকে মাশুল নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে। পণ্যগুলো আখাউড়া স্থলবন্দরে আসার আগে চট্টগ্রাম বন্দরেই মাশুল আদায়ের বিষয়গুলো সম্পাদিত হয়।'

এদিকে আখাউড়া স্থলবন্দরের আমদানি-রফতানিকারক অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মো. শফিকুল ইসলাম জানান, প্রথম বারের মতো চট্টগ্রাম ও আখাউড়া বন্দর দিয়ে ট্রানজিটের পণ্য পরিবহনের মধ্যে দিয়ে বাংলাদেশ ও ভারত সম্পর্কের নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হয়েছে। এই সম্পর্কের মাধ্যমে অর্থনৈতিকভাবে দুই দেশ লাভবান হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

এদিকে ট্রানজিট পণ্য গ্রহণকালে আগরতলা প্রান্তে এক অনুষ্ঠানে ত্রিপুরা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব বাংলাদেশকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, 'ট্রানজিটের নতুন পথের মাধ্যমে বাংলাদেশ ভারত উভয়দেশ অর্থনৈতিকভাবে লাভবান হবে।'

করোনাভাইরাস আপডেট
বিশ্বব্যাপী
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
২০২৭৩৫৬৯
আক্রান্ত
২৬৬৪৯৮
সুস্থ
১৩২০১০৫৯
সুস্থ
১৫৩০৮৯
শীর্ষ সংবাদ:
চামড়া নিয়ে কারসাজি চলবে না         টানা ৪৮ দিন পর অবশেষে দেশ বন্যামুক্ত হলো         প্রধানমন্ত্রীর উদার বিনিয়োগ নীতিতে মাথাপিছু আয় বেড়েছে         করোনায় মৃত্যু সাড়ে তিন হাজার ছাড়াল         সাঈদীর পক্ষে জনমত তৈরির চেষ্টা, সক্রিয় মৌলবাদী চক্র         আশা জাগালেও ‘স্পুটনিক ভি’ নিয়ে সন্দেহ         জীবন বাঁচাতে যে কোন উৎস থেকে করোনার টিকা আনতে হবে         ওসি প্রদীপসহ মূল তিন আসামির জিজ্ঞাসাবাদ শুরুই হয়নি         দূষণ কমায় ঝাঁকে ঝাঁকে মিলছে বড় আকারের ইলিশ         কম দামে মজুদ পাট বিক্রির চুক্তি করে বেকায়দায় বিজেএমসি         বিমান ও ইউএস বাংলার মালয়েশিয়া ফ্লাইট চালু হচ্ছে         শাহজালালের মাজারে হামলার পরিকল্পনা ছিল নব্য জেএমবির         শীঘ্রই বর্জ্য থেকে বিদ্যুত উৎপাদন করা হবে ॥ তাজুল ইসলাম         ভরিতে সাড়ে ৩ হাজার টাকা কমল স্বর্ণের দাম         ভ্যাকসিন কেনার বিষয়ে আগামী সপ্তাহে সিদ্ধান্ত : জাহিদ মালেক         ‘অটো পাস’ আপাতত চিন্তায় নেই : শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী         আগামী ১৬ আগস্ট থেকে ইউএস-বাংলার ঢাকা-কুয়ালালামপুর ফ্লাইট শুরু         মানবতাবিরোধী অপরাধ: চার পলাতক আসামির বিরুদ্ধে তদন্ত চুড়ান্ত         এ বছরে হবে না এশিয়ার বিশ্বকাপ বাছাই         করোনা ভাইরাসের টিকার জন্য আলাদা অর্থ রাখা হয়েছে ॥ অর্থমন্ত্রী        
//--BID Records