৬ এপ্রিল ২০২০, ২৩ চৈত্র ১৪২৬, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

ট্রাম্পের সফরকালে দিল্লীর সঙ্গে ৩শ’ কোটি ডলারের সামরিক চুক্তি

প্রকাশিত : ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২০

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ ডোনাল্ড ট্রাম্পের ভারত সফরকালে দুদেশের মধ্যে ৩০০ কোটি ডলারের সামরিক চুক্তি সই হয়েছে। বহুল আলোচিত বাণিজ্যচুক্তির বিষয়েও আশাবাদী বলে জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। মঙ্গলবার নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে এক যৌথ বিবৃতিতে ট্রাম্প বলেন, এই সফর দুই দেশের জন্যই অত্যন্ত ফলপ্রসূ হয়েছে। দিনের শুরুতে আমরা আমাদের প্রতিরক্ষা সহযোগিতা বৃদ্ধির বিষয়ে সম্মত হয়েছি। ভারত মার্কিন সশস্ত্র বাহিনীর কাছ থেকে এ্যাপাচি ও এমএইচ-৬০ রোমিও হেলিকপ্টারসহ তিন বিলিয়ন ডলারের সামরিক সরঞ্জাম কিনবে। খবর সিএনএন, আনন্দবাজার ও এনডিটিভির।

এদিন প্রতিরক্ষা ছাড়াও অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা ও স্বাস্থ্যসেবা বিষয়েও চুক্তি করেছে নয়াদিল্লী-ওয়াশিংটন। এছাড়া সন্ত্রাসবিরোধী লড়াইয়ে নয়াদিল্লীকে পাশে থাকার আহ্বান জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীকে ‘প্রিয় বন্ধু’ সম্বোধন করা যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ভারতে ফাইভ-জি টেলিকম নেটওয়ার্কের সুরক্ষার গুরুত্ব নিয়েও মোদির সঙ্গে আলোচনা করেছেন বলে জানিয়েছেন। কিছুদিনের মধ্যেই ভারতে ফাইভ-জি নেটওয়ার্কের তরঙ্গ নিয়ে নিলাম হওয়ার কথা। তার আগে ট্রাম্প-মোদির আলোচনায় চীনা টেলিকম জায়ান্ট হুয়াওয়ের বিষয়টিই প্রাধান্য পেয়েছে বলে অনুমান পর্যবেক্ষক মহলের। হুয়াওয়ের সরঞ্জাম চীনের গুপ্তচরবৃত্তির কাজে ব্যবহৃত হতে পারে সন্দেহে যুক্তরাষ্ট্র এ টেলিকম কোম্পানিটিকে নিষিদ্ধ করেছে। হুয়াওয়ে ও বেজিং শুরু থেকেই তাদের বিরুদ্ধে ওঠা এসব অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে। ভারতের টেলিকম খাতে দীর্ঘদিন ধরেই হুয়াওয়ের আনাগোনা রয়েছে। ফাইভ-জি নেটওয়ার্কের নিলামে চীনা এ কোম্পানির অংশগ্রহণ কিংবা তাদের ওপর বিধিনিষেধ আরোপ করা হবে কি না, নয়াদিল্লীর কাছ থেকে এখনও এ বিষয়ে কোন সিদ্ধান্ত আসেনি বলে জানিয়েছে রয়টার্স। দুদিনের রাষ্ট্রীয় সফরে সোমবার বেলা ১১টার দিকে গুজরাটের আহমেদাবাদে পৌঁছান মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সেখানে বিশ্বের বৃহত্তম ক্রিকেট স্টেডিয়ামের উদ্বোধন করেন তিনি। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রথমে ভাষণ দেন নরেন্দ্র মোদি। তার বক্তব্য শেষ হলে ডায়াসের সামনে দাঁড়ান মার্কিন প্রেসিডেন্ট। পুরো বক্তব্যেই তিনি প্রধানমন্ত্রী মোদির ভূয়সী প্রশংসা করেন। তবে বিপত্তি বাধে তার ভুলভাল উচ্চারণ নিয়ে। এছাড়া মহাত্মা গান্ধীর সবরমতী আশ্রমে গিয়ে পরিদর্শন বইয়ে ভারতের জাতির পিতার কথা না লিখে সেখানেও নরেন্দ্র মোদির প্রশংসা করায় চলছে ব্যাপক সমালোচনা। সফরের শেষ দিনে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ভারতের রাষ্ট্রপতি ভবনে নৈশভোজে অংশ নেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। রাতেই যুক্তরাষ্ট্রের উদ্দেশে ভারত ত্যাগ করার কথা রয়েছে ট্রাম্পের।

ধর্মীয় স্বাধীনতা নিয়ে মোদির সঙ্গে কথা হয়েছেÑ ট্রাম্প

ভারত সফরে রাষ্ট্রপতি ভবনে মঙ্গলবার মধ্যাহ্নভোজ সেরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তার বক্তব্যে বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী মোদি চান, দেশে ধর্মীয় স্বাধীনতা বজায় থাক। আমাদের দু’জনের মধ্যে ধর্মীয় স্বাধীনতা নিয়ে কথা হয়েছে। কীভাবে করোনাভাইরাস মোকাবেলা করা যায়, তা নিয়েও মোদির সঙ্গে কথা হয়েছে। ইসলামিক স্টেটকেও (আইএস) একদিন আমরা দমন করব। সন্ত্রাস দমনে ভারত-যুক্তরাষ্ট্র বরাবরই কাজ করে আসছে। ভারতের সঙ্গে খুব ভাল সময় কাটিয়েছি। এছাড়া ভারতের সঙ্গে ৩০০ কোটি ডলারের প্রতিরক্ষা চুক্তি হয়েছে এবং ভারতের সঙ্গে সম্পর্ক আরও ভাল করতে যুক্তরাষ্ট্র আগ্রহী।

ইভাঙ্কার সিল্কের শেরওয়ানিতে রইল মুর্শিদাবাদের ছোঁয়া

ঝকঝকে সাদা জাম্পস্যুটে সোমবারই মাত করেছিলেন মার্কিন ফার্স্টলেডি মেলানিয়া। ভারত সফরের দ্বিতীয় দিনে তাকেই অনুসরণ করলেন ট্রাম্প কন্যা ইভাঙ্কা। তবে পশ্চিমী পোশাক নয়, মঙ্গলবার একেবারে ভারতীয় পোশাকে ক্যামেরার সামনে ধরা দিলেন তিনি। তিনি যে শেরওয়ানি পরেছিলেন তাতে ছিল এ রাজ্যের ছোঁয়া। রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ এবং তার স্ত্রী সবিতা কোবিন্দ এ দিন রাষ্ট্রপতি ভবনে ট্রাম্প পরিবারকে স্বাগত জানান। সেখানে যাওয়ার জন্য অনিতা দোঙ্গরের তৈরি বন্ধ গলা, সাদা শেরওয়ানি বেছে নেন ইভাঙ্কা। তবে দুধসাদা নয়, এ দিন ক্রিস্ হোয়াইট রং বেছে নেন তিনি। মুর্শিদাবাদের শিল্পীদের হাতে বোনা সিল্ক দিয়ে ইভাঙ্কার জন্য ওই শেরওয়ানি তৈরি করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ডিজাইনার অনিতা দোঙ্গরে। তিনি বলেন, ‘পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদ থেকে আনা হাতে বোনা সিল্ক দিয়ে ইভাঙ্কার জন্য ওই পোশাক তৈরি করেছি আমরা। ২০ বছর আগে শেরওয়ানির এই ডিজাইন তৈরি করি আমরা, তবে আজকের দিনেও তা প্রাসঙ্গিক।’

দিল্লীর স্কুলে ‘সুখের পাঠ’ নিলেন মেলানিয়া

ভারত সফরে এসে যুক্তরাষ্ট্রের ফার্স্টলেডি মেলানিয়া ট্রাম্প দিল্লীর একটি সরকারি স্কুলে শিশুকিশোরদের সঙ্গে ‘হ্যাপিনেস ক্লাসে’ অংশ নিয়েছেন। ৪৯ বছর বয়সী এ নারী মঙ্গলবার নয়া দিল্লীর মোতিবাগের সর্বোদয়া কো-এডুকেশন সিনিয়র সেকেন্ডারি স্কুলে গেলে ঐতিহ্যবাহী পাঞ্জাবি ও রাজস্থানী নৃত্যের মাধ্যমে তাকে স্বাগত জানানো হয়। কপালে লাল টিপ পরা মেলানিয়া এরপর ৪৫ মিনিটের ‘হ্যাপিনেস ক্লাসে’ যোগ দেন। তিনি শিক্ষার্থীদের খেলাধুলা, যোগব্যায়াম ও ভাংরা নাচ দেখেন। ‘এমন প্রশান্ত মনে শিক্ষার্থীদের প্রতিটি দিন শুরুর বিষয়টি খুবই উদ্দীপ্ত করেছে আমাকে। এর চেয়ে ভালভাবে দিন শুরুর কথা ভাবতেও পারব না আমি,’ বলেছেন ট্রাম্পপত্নী।

প্রকাশিত : ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২০

২৬/০২/২০২০ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



শীর্ষ সংবাদ: