ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০ আশ্বিন ১৪২৯

আজ হুমায়ুন ফরীদির ৬৬তম জন্মবার্ষিকী

প্রকাশিত: ০৪:৩৮, ২৯ মে ২০১৯

আজ হুমায়ুন ফরীদির ৬৬তম জন্মবার্ষিকী

স্টাফ রিপোর্টার ॥ কিংবদন্তি অভিনেতা হুমায়ুন ফরীদির আজ জন্মদিন (২৯ মে)। বেঁচে থাকলে আজকের এই দিনে ৬৭ বছরে পা রাখতেন তিনি। হুমায়ুন ফরীদির জন্ম ঢাকার নারিন্দায় ১৯৫২ সালের ২৯ মে। বাবার নাম এটিএম নূরুল ইসলাম ও মা বেগম ফরিদা ইসলাম। চার ভাই-বোনের মধ্যে ফরীদির অবস্থান ছিল দ্বিতীয়। ১৯৬৫ সালে বাবার চাকরির সুবাদে মাদারীপুরের ইউনাইটেড ইসলামিয়া সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে ভর্তি হন। এ সময় মাদারীপুর থেকেই নাট্যচর্চায় প্রবেশ করেন। নাট্যাঙ্গনে তার গুরু বাশার মাহমুদ। তখন নাট্যকার বাশার মাহমুদের শিল্পী নাট্যগোষ্ঠী নামের একটি সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত হয়ে কল্যাণ মিত্রের ‘ত্রিরত্ন’ নাটকে ‘রত্ন’ চরিত্রে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে জীবনে প্রথম দর্শকদের সামনে অভিনয় করেন। এরপর ওই সংগঠনের সদস্য হয়ে ‘টাকা আনা পাই’, ‘দায়ী কে’, ‘সমাপ্তি, ‘অবিচার’সহ ৬টি মঞ্চনাটকে অংশ নেন। ১৯৬৮ সালে মাধ্যমিক স্তর উত্তীর্ণের পর চাঁদপুর সরকারি কলেজ এ পড়াশোনা করেন। এরপর জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক (সম্মান) অর্থনীতি বিষয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন। তিনি আল-বেরুনী হলের সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিলেন। বিশ্ববিদ্যালয় জীবনে বিশিষ্ট নাট্যকার সেলিম আল-দীনের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক বজায় রেখেছিলেন তিনি। ১৯৭৬ সালে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত নাট্য উৎসবে অন্যতম সংগঠক ছিলেন হুমায়ুন ফরীদি। আর এ উৎসবের মাধ্যমেই তিনি নাট্যাঙ্গনে পরিচিত মুখ হয়ে ওঠেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রাবস্থাতেই ঢাকা থিয়েটারের সদস্যপদ লাভ করেন। বরেণ্য এই অভিনেতা মঞ্চ ও টেলিভিশন নাটকের পাশাপাশি ১৯৯০ দশকে চলচ্চিত্র জগতে প্রবেশ করেন। সেখানেও ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করেন। ২০১২ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারি এই দিনে না ফেরার দেশে পাড়ি জমান হুমায়ুন ফরীদি। শোবিজে প্রতিনিয়তই অনেক অভিনেতা আসছেন। আগামীদিনেও আসবেন। কিন্তু ফরীদির মতো দাপুটে অভিনেতা খুব কমই পাওয়া যায়। কালের সাক্ষী হয়ে ফরীদি বেঁচে থাকবেন ভক্তদের হৃদয়ে।