বৃহস্পতিবার ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৯ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

শ্রমিক বেচাকেনার হাট জমজমাট

টাঙ্গাইলের ধনবাড়ীতে সকালের সূর্য ওঠার সঙ্গে-সঙ্গে পৌর শহরের চৌরাস্তায় চোখে পড়ে শত শত মানুষের সমাগম। আর এ সমাগমই হলো ‘শ্রমিক বেচাকেনার হাট’। এ হাটে এক শ্রেণীর মানুষ আসেন ‘বিক্রি’ হতে। আরেক শ্রেণীর মানুষ আসেন ‘শ্রম’ কিনতে। স্থানীয় ভাষায় এ হাটকে বলা হয় ‘কামলার হাট’। আবার অনেকে কৃষি শ্রমিকও বলে থাকে। ধনবাড়ীতে এখন চলছে মৌসুমী আগাম জাতের বোরো ধান কাটা। এর পরপরই কাটা শুরু হবে অন্যান্য জাতের বোরো ধান। এ সময় দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আসা কৃষি শ্রমিকরা ধনবাড়ী পৌর শহরের চৌরাস্তা বাজারে এসে ভিড় জমায়। ধনবাড়ী চৌরাস্তায় শ্রমিক বেচাকেনার হাট ঘুরে দেখা যায়, রাজশাহী, দিনাজপুর, রংপুর, নীলফামারী, পাবনা, সিরাজগঞ্জ, জামালপুর, শেরপুর জেলাসহ বিভিন্ন জেলার গ্রাম থেকে অভাবী লোকজন এসেছেন কাজের সন্ধানে। এ মৌসুমে ধনবাড়ীতে কৃষি শ্রমিকের চাহিদা বেশি। সকাল সাড়ে পাঁচটা থেকে আটটা পর্যন্ত চলে এ হাট। কেউ বিক্রি হন একদিনের, কেউ পাঁচদিন, আবার কেউ সাত দিনের জন্য। দূর থেকে যারা এ হাটে আসেন তারা বেশি দিনের জন্য এবং স্থানীয় শ্রমিকরা প্রতিদিনের জন্য বিক্রি হন। এ অঞ্চলে বোরো ধান কাটা শুরু হওয়ায় শ্রমিক বেচাকেনার হাট জমে উঠেছে। একজন শ্রমিক ৬০০ থেকে ৭০০ টাকায় প্রতিদিন শ্রম বিক্রি হচ্ছে। ধনবাড়ী পৌর শহরের চৌরাস্তা বাজারে শ্রমিকের হাটে কথা হয় রংপুরের শহিদুল ইসলাম, লালমনির হাটের আজিজুর ইসলাম, জামালপুরের মোহাম্মদ আলী, পাবনার ইয়াকুব আলী, সিরাজগঞ্জের মুসলিম উদ্দিনের সঙ্গে। তারা জানান, আমাদের এলাকায় এখন কাজ নেই। প্রতি পরিবারে ৮ থেকে ১০ জন সদস্যের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি। তাদের উপার্জনেই চলে সংসার। প্রতি বছরই এ সময়ে তারা এ অঞ্চলে আসেন ধান কাটার জন্য। এ সময় শ্রমিকের দাম বেশি থাকে। এক মাস কাজ করলে ১৪ থেকে ১৫ হাজার টাকা নিয়ে বাড়িতে ফিরতে পারেন। কুড়িগ্রাম থেকে আসা সাজিদুল ইসলাম জানায়, সে এবার এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছে। তার বাড়ি ভূরুঙ্গামারীর উত্তরতিলাই। বাবা-মা, ভাই-বোনসহ পরিবারের সদস্য সংখ্যা ৫ জন। তার উপার্জনেই চলে সংসার। এসএসসির রেজাল্ট ভাল হয়েছে, এবার ভর্তি হতে হবে ভাল কলেজে। ভর্তি হতেও লাগবে অনেক টাকা। একদিকে পরিবারের খরচ আরেক দিকে তার ভর্তি। এটাও তার দুঃচিন্তা। ধনবাড়ী পৌর শহরের চৌরাস্তা বাজারে শ্রমিকের হাটে শ্রম কিনতে আসা আজাহারুল ইসলাম জানান, তিনি এ বছর ১০ বিঘা জমিতে বোরো ধান আবাদ করেছেন। জমি চাষ, ধানের চারা, সার, কীটনাশক, সেচ, পরিচর্যা এবং শ্রমিকের খরচ দিয়ে চাষাবাদ এখন আর লাভজনক হয় না।

-ইফতেখারুল অনুপম, টাঙ্গাইল থেকে

শীর্ষ সংবাদ:
সিলেটে রেকর্ড বন্যা         নির্বাচনী মাঠে নামুন, কেউ ভোট কেড়ে নেবে না         আস্থার সঙ্কটে খাদের কিনারে শেয়ারবাজার         প্রথম বাংলাদেশী হিসেবে টেস্টে ৫ হাজার রান মুশফিকের         ভুল চিকিৎসায় শিশুর মৃত্যু, ডাক্তারসহ আটক ৪         রাইস ব্র্যান ও সরিষার তেল উৎপাদন বাড়ানো হবে         পর্যটকদের জন্য ব্যবস্থা থাকবে, প্রাকৃতিক সৌন্দর্য যেন নষ্ট না হয়         নিত্যপণ্যের বাজার আরও টালমাটাল হওয়ার আশঙ্কা         কান চলচ্চিত্র উৎসবে আজ দেখানো হবে ‘মুজিব’ সিনেমার ট্রেইলার         দেশের অর্থনীতিতে অস্থিতিশীল অবস্থা তৈরি হয়েছে         অপরিপক্ব লিচুতে ভরে গেছে দিনাজপুরের বাজার         মোবাইল চুরি, ছিনতাই চক্রে ব্যবসায়ী ও টেকনিশিয়ান         নির্বাচনে অংশগ্রহণ করুন, কেউ ভোটের অধিকার কেড়ে নেবে না : প্রধানমন্ত্রী         সিলেটে বন্যায় পানিবন্দি ১৫ লাখ মানুষ         বন্যায় সিলেটবাসীকে সহযোগিতা দেয়া হবে         আগামী ৩১ মে হজ ফ্লাইট শুরু নিয়ে ফের অনিশ্চয়তা         নন-ব্যাংক আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে শৃঙ্খলার মধ্যে আনতে হবে : শিল্পমন্ত্রী         হজযাত্রী নিবন্ধনের সময় বাড়লো         আগামী ৫ জুন বাজেট অধিবেশন শুরু         বাংলাদেশ ব্যাংক কর্মকর্তাদের বিদেশ ভ্রমণ বাতিল