শুক্রবার ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৭ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

যার পরামর্শে ইন্দিরা গান্ধী ব্যাংক জাতীয়করণ করেন

আইনজীবী ও কূটনীতিক পরমেশ্বর নারায়ণ হাকসার ১৯৬৭ সালের ৬ মে ভারতের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর সচিবের দায়িত্ব গ্রহণ করেন। সহকর্মীদের কাছে তিনি হাকসার সাহেব বা পিএনএইচ নামে পরিচিত ছিলেন। ইন্দিরার লেখা নোট থেকে জানা যায়, অর্থনীতির রাজনীতির চালচিত্র বদলে দিতে হাকসারের পরামর্শ কাজে লেগেছিল। হাকসার ১৯৬৭ সালের মে থেকে ১৯৭৩ সালের জানুয়ারি পর্যন্ত ইন্দিরা গান্ধীর সচিব ছিলেন। অর্থনৈতিক সঙ্কটে সরকার যখন কঠিন অবস্থায় তখন ইন্দিরা তার মতো অনুযায়ী বিভিন্ন পদক্ষেপ নেন। তিনি ছিলেন যেন ইন্দিরা সরকারের ‘আদর্শিক ও নৈতিক দিক নির্দেশক’। তারই পরামর্শে ইন্দিরা ব্যাংক, কয়লাখনি ও তেল শোধনাগার জাতীয়করণ করেন। এমনকি ১৯৭১ সালে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ জয়লাভ, বাংলাদেশের স্বাধীনতা অর্জন ও পরবর্তীতে কয়েকটি গুরুত্ব চুক্তি সম্পাদনের ক্ষেত্রেও তার পরামর্শ কাজে লেগেছিল বলে ধারণা করা হয়। জয়রাম রমেশের লেখা ‘ইন্টারওয়াইন্ড লাইভস: পি এন হাকসার এ্যান্ড ইন্দিরা গান্ধী’ বইটিতে তাদের দুজনের সম্পর্কের নানা দিক উঠে এসেছে। ১৯৬৯ সালের জুলাই ছিল প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ইন্দিরার জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ সময়। তিনি ৯ জুলাই ব্যাঙ্গালুরু এক অনুষ্ঠানে নতুন অর্থনৈতিক পরিকল্পনা তুলে ধরেন। ওই পরিকল্পনাকে ভারতের অর্থনীতির রাজনীতি ইতিহাসে একটি গুরুত্বপূর্ণ দলিল গণ্য করা হয়। পরিকল্পনার নথিতে হাকসার লেখেন, এখন সময় এসেছে আমাদের সামাজিক লক্ষ্যগুলো পূরণের জন্য অর্থনৈতিক সংস্কারের উদ্যোগ গ্রহণের। প্রয়োজনে কঠিন পদক্ষেপ গ্রহণের ইচ্ছা আমাদের আছে কি না এ বিষয়ে জনমনে সংশয় তৈরির আশঙ্কা আছে। এ আশঙ্কা দূর করার জন্য আমাদের এখন কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে হবে।’ ওই পরিকল্পনায় তিনি সম্ভাব্য রাজনৈতিক ও সামাজিক বিবাদ এড়ানোর জন্য ভূমি সংস্কারের ওপরও গুরুত্ব আরোপ করেন। এক কথায় এটি কম গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নয়, এ বিষয়ে বিলম্ব করা হলে গুরুতর রাজনৈতিক ও সামাজিক সমস্যার জন্ম হতে পারে। হাকসার ইন্দিরাকে সমাজবাদী দৃষ্টিভঙ্গি গ্রহণের জন্য অনুপ্রাণিত করেন। তিনি মনে করতেন যেখানে কোটি কোটি মানুষ শিক্ষা, চিকিৎসা ও কর্মসংস্থানের মতো মৌলিক চাহিদা থেকে বঞ্চিত সেখানে বাজার অর্থনীতি একটি ধনিক শ্রেণী তৈরি করবে। সমাজে অতি ধনী ও অতি দরিদ্র শ্রেণীর মধ্যে বৈষম্য বাড়বে এবং দ্বন্দ্ব সংঘাত বেড়ে যাওয়ার অবস্থা তৈরি হবে। এসব কারণে ১৯৬৯ সালের ৯ জুলাই ব্যাংক ব্যাঙ্গালুরু অল ইন্ডিয়া কংগ্রেস কনফারেন্সে ব্যাংক জাতীয়করণের সুপারিশ। তার সুপারিশ অনুযায়ী ১০ দিনের মধ্যে ১৪টি ব্যাংক জাতীয়করণ করা হয়। ওই পরিকল্পনা পরবর্তী সময়ে ইন্দিরার ‘বিভ্রান্তিকর চিন্তা’ নামে পরিচিতি অর্জন করে। -দ্য হিন্দু

শীর্ষ সংবাদ:
রোহিঙ্গাদের ফেরাতে এশিয়ার দেশগুলোর সহযোগিতা চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী         আমাদের নিজস্ব পলিসি আছে এবং পলিসি অনুযায়ী দেশ চলে : এলজিআরডি মন্ত্রী         বিশ্বমানের ক্যানসার চিকিৎসা মিলবে গণস্বাস্থ্যে         ভারত ও বাংলাদেশ দুই আদালতে পিকে হালদারের বিচার হবে ॥ দুদক কমিশনার         সীমান্তে মাদক ও মানবপাচার রোধে কাজ করছে বিজিবি ॥ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী         পি কে হালদারসহ ৫ জন ফের ১১ দিনের জেল হেফাজতে         করোনা : দেশে আজও মৃত্যু নেই, শনাক্ত ২৩         খাদ্য সংকট দূর করতে পুতিনের প্রস্তাব         বিএনপি নেতাদের মাথা নষ্ট হয়ে গেছে ॥ সেতুমন্ত্রী         আখাউড়ায় আশ্রয়ণ ঘরের গুণগত মান দেখলেন আইনমন্ত্রী         বাজারে ডিমসহ বেড়েছে আটা, সবজি ও মুরগির দাম         প্রতীক পেলেন কুসিকের প্রার্থীরা         আমাদের সময়ে দলমত নির্বিশেষে শিক্ষক নিয়োগ হয়েছে ॥ আনোয়ারুল্লাহ         ঢাকা টেস্টে শ্রীলঙ্কা জিতেছে ১০ উইকেটে         টম ক্রুজকে দেখে নায়ক হয়েছেন রিয়াজ         অভিনেত্রী মঞ্জুষা নিয়োগীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার         নীলফামারীতে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাস খাদে, আহত ৩২         সাবেক মন্ত্রী গৌতম চক্রবর্তী মারা গেছেন         অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র ব্যবস্থার অন্যতম স্বপ্নদ্রষ্টা স্বামী বিবেকানন্দ ॥ গোপাল এমপি         সিলেটের এমসি কলেজের ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার