বুধবার ৬ মাঘ ১৪২৮, ১৯ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

আবার গেইল ঝড়ে পাঞ্জাবের জয়

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ আবার ঝড়ো ব্যাটিংয়ে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবকে জেতালেন ক্রিস গেইল। কলকাতা নাইট রাইডার্সকে ৯ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারাল তার দল। ঘরের মাঠ ইডেন গার্ডেন্সে ৭ উইকেটে ১৯১ রান সংগ্রহ করে কলকাতা। জবাবে পাঞ্জাব যখন ৮.২ ওভারে বিনা উইকেটে ৯৬ রান তুলে নেয় তখনই বৃষ্টি নামে। পরে খেলা শুরু হলে জয়ের জন্য ১৩ ওভারে ১২৫ রানের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারিত হয়। গেইল-রাহুলের ব্যাটিং তা-বে ১১.১ ওভারেই ১ উইকেট হারিয়ে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় পাঞ্জাব। ২৭ বলে ৯ চার ও ২ ছক্কায় ৬০ রান করে রাহুল আউট হলেও ৩৮ বলে ৫ চার ও ৬ ছক্কায় ৬২ রানে অপরাজিত থেকে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়েন গেইল।

সুযোগ পাওয়ার পর প্রতিপক্ষ বোলারদের ওপর স্টিম রোলার চালিয়ে যাচ্ছেন গেইল। শনিবার নাইট রাইডার্সের বিপক্ষেও বড় রান তাড়া করতে তার ব্যাটের দিকে তাকিয়ে ছিল প্রীতি জিনতার মালিকানাধীন দলটি। বৃষ্টি-বাধার আগে সঙ্গী লোকেশ রাহুলকে নিয়ে সেটাই করেছিলেন তিনি। গেইল ঝড়ে মাত্র ৮.২ ওভার ব্যাট করে বিনা উইকেটে ৯৬ রান তুলে ফেলে কিংস ইলেভেন।

প্রথম দুই ম্যাচ বেঞ্চে বসে কাটানো গেইল টানা তৃতীয় ম্যাচের মতো প্রমাণ করলেন এখনও ফুরিয়ে যাননি। বৃষ্টি নামার আগে মাত্র ২৭ বলে ৪৯ রান করে অপরাজিত ছিলেন গেইল, আর রাহুল ৪৬ রানে। টানা দুই ম্যাচ বাইরে থাকার পর পাঞ্জাবের তৃতীয় ম্যাচে একাদশে সুযোগ পেয়েছিলেন ক্রিস গেইল। চেন্নাই সুপার কিংসের বিপক্ষে সেই ম্যাচে মাত্র ৩৩ বলে ৬৩ রানের ইনিংস খেলেন।

আর চতুর্থ ম্যাচে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিপক্ষে হাঁকান চলতি মৌসুমের প্রথম সেঞ্চুরি। ১০৪ রানের অপরাজিত সেঞ্চুরিতে ১টি চারের পাশে ১১টি ছক্কা হাঁকান ক্যারিবীয় এই দানব। অথচ চলতি আইপিএলের নিলামে সুলভ মূল্যে পেয়েও ক্রিস গেইলকে কিনতে আগ্রহ দেখায়নি কোন দল। সেই জেদটাই হয়তো তিনি মেটাচ্ছেন পাঞ্জাবের হয়ে ব্যাট করার সুযোগ পেয়ে। টানা তৃতীয় ম্যাচে গেইল ঝড়ে মাতে আইপিএল। এর আগে ঘরের মাঠ ইডেন গার্ডেন্সে ক্রিস লিন আর অধিনায়ক দিনেশ কার্তিকের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে গেইলদের ১৯২ রানের টার্গেট দেয় কলকাতা। দলীয় ৬ রানে সুনীল নারাইনকে (১) হারালেও অপর ওপেনার ক্রিস লিন দাঁড়িয়ে যান। প্রতিপক্ষ বোলারদের শাসন করে ৪১ বলে ৭৪ রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলেন তিনি। মেরেছেন ৬টি বাউন্ডারি আর ৪টি ওভার বাউন্ডরি। স্কোর বড় করার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন তিন নম্বরে নামা রবিন উত্থাপা। কিন্তু ২৩ বলে ৩৪ রান করে তিনি শিকার হন রবিচন্দ্রন অশ্বিনের। এরপর দলের হাল ধরেন অধিনায়ক দিনেশ কার্তিক। মারকাটারি ব্যাটিংয়ে ২৮ বলে ৬ ছক্কায় ৪৩ রানের ইনিংস উপহার দেন তিনি।

এছাড়া আন্দ্রে রাসেলের ৭ বলে ১০ আর শুভমান গিলের ৮ বলে ১৪ রানের ইনিংসে ভর করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ১৯১ রান তোলে কলকাতা। বল হাতে দুটি করে উইকেট নেন বারিন্দার স্রান আর এ্যান্ড্রু টাই। আফগান তারকা মুজিব আর অশ্বিন ১টি করে উইকেট নেন।

শীর্ষ সংবাদ:
একদিনে করোনায় ১২ মৃত্যু, শনাক্ত ৯৫০০         আগামীকাল থেকে উপজেলাতেও ওএমএসে চাল-আটা বিক্রি         বাংলাদেশ ব্যাংকের ৪ কর্মকর্তাকে দুদকে তলব         করোনার সংক্রমণের উচ্চ ঝুঁকিতে ১২ জেলা         আপাতত বাড়ছে না ভোজ্যতেলের দাম         শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের নির্দেশনা চেয়ে রিট         ঢাকায় সেফুদার আনুষ্ঠানিক বিচার শুরু         ‘বাংলাদেশের অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রা কেউ থামাতে পারবে না’         দখলদারদের উচ্ছেদ ও অবৈধ ইটভাটা বন্ধে ডিসিদের নির্দেশ         পরিবহন শ্রমিকদের টিকা দেওয়া শুরু         শিমুকে হত্যার পর নিখোঁজের জিডি করেন স্বামী         বিশ্বজুড়ে করোনায় আরও ৯৬৬৯ মৃত্যু         ফুটপাতে নির্মাণসামগ্রী ॥ মেয়র আতিকের ক্ষোভ প্রকাশ         আমিরাতে হুতিদের ড্রোন হামলায় বাংলাদেশের নিন্দা         সুপ্রিম কোর্টে ভার্চ্যুয়াল বিচার কাজ শুরু         কেউ যেন হয়রানি না হয় ॥ সেবামুখী জনপ্রশাসন গড়তে আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ         দাম্পত্য কলহেই চিত্রনায়িকা শিমু খুন         ইসি সার্চ কমিটিতেই         করোনা শনাক্তের হার আশঙ্কাজনক বাড়ছে         ব্যাপক তুষারপাত ॥ শীতে নাকাল আমেরিকা ইউরোপ