বৃহস্পতিবার ১৬ আশ্বিন ১৪২৭, ০১ অক্টোবর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

অবৈধ দখলদারদের কবলে টাঙ্গাইল গালা হাট

  • রাজস্ব হারাচ্ছে সরকার

নিজস্ব সংবাদদাতা, টাঙ্গাইল, ২৩ মার্চ ॥ সদর উপজেলার গালা হাটের কোটি টাকা মূল্যের জায়গা যুগ যুগ ধরে অবৈধ দখলে রেখেছে স্থানীয় কয়েকজন প্রভাবশালী ব্যক্তি। এতে করে তাদের ভাগ্যের উন্নয়ন হলেও হাটের উন্নয়ন হয়নি দীর্ঘ অর্ধশত বছরেও। এই অবৈধ দখলবাজদের কারণে প্রতিবছর সরকার হারাচ্ছে মোটা অংকের রাজস্ব। ১৯৬০ সালে গালা হাটটি প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর থেকেই অবৈধ দখলদারদের কবলে পড়ে। বর্তমানে ঐতিহ্যবাহী হাটটি অস্তিত্ব সঙ্কটে পড়েছে। এ নিয়ে স্থানীয়দের মাঝে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করলেও প্রতিবাদ করার সাহস পাচ্ছে না তারা।

সম্প্রতি সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, গালা হাটের পেরিফেরিভুক্ত জায়গায় অন্তত ৩০/৩৫টি কাঁচাপাকা অবৈধ স্থাপনা রয়েছে। এসব স্থাপনায় কেউ কেউ নিজেরা ব্যবসা পরিচালনা করছেন। আবার অনেকে দোকান করে ভাড়া দিয়েছেন। অনেকে আবার স্থাপনা নির্মাণ করে তা বিক্রিও করে দিয়েছেন। এদের মধ্যে জনতা বহুমুখী সমবায় সমিতির নামেই রয়েছে ১০ থেকে ১২ শতাংশ জায়গা। যার পুরোটাই হাটের পেরিফেরিভুক্ত। এ জায়গার মধ্যে জনতা বহুমুখী সমবায় সমিতির চারটি অবৈধ স্থাপনা রয়েছে প্রায় ২৫ বছর ধরে।

শহরের উপকণ্ঠে অবস্থিত গুরুত্বপূর্ণ একটি হাট। হাজী ছাবাই উদ্দিন তালুকদার, মালু সেখ, রোস্তম আলী, আতোয়ার আলী সরকার, কোহাছেক আলী গালা এলাকার কয়েকজন সমাজসেবী ১৯৬০ সালে এই হাটটি প্রতিষ্ঠা করেন। বর্তমানে হাটটি অবৈধ দখলদারদের কবলে পরে একদিকে যেমন হারিয়ে ফেলেছে তার অস্তিত্ব। অন্যদিকে সরকার হারাচ্ছে বিপুল পরিমাণ রাজস্ব। ইতিপূর্বে এসব অবৈধ দখলদারদের চিহ্নিত করে বণিক সমিতি অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ চেয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্যসহ জনপ্রতিনিধি এবং জেলা প্রশাসকসহ বিভিন্ন সরকারী দফতরে আবেদন করেও কোন ফল পায়নি। সর্বশেষ গত ২০১৭ সালের ৯ এপ্রিল অবৈধ দখলদারদের চিহ্নিত করে টাঙ্গাইল-৫ আসনের এমপি ছানোয়ার হোসেনের কাছে বণিক সমিতির পক্ষে একটি তালিকা প্রেরণ করা হয়। এমপি জেলা প্রশাসককে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য সুপারিশও করেন।

বিগত ২০১৫ সালের ৫ মার্চ অতিরিক্ত জেলা প্রশাসকের স্মারক মূলে সরকার এবং স্থানীয় কর্তৃপক্ষ ভূমি ও ইমারত (দখল পুনরুদ্ধার) অধ্যাদেশ, ১৯৭০ এর ৫(১) ধারা অনুযায়ী ৭ (সাত) দিনের মধ্যে অবৈধ দখল/স্থাপনা সরিয়ে নেয়ার নির্দেশ দেন। তারও আগে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইসরাত জাহান গালা হাটের পেরিফেরিভুক্ত জায়গায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করার নির্দেশ প্রদান করেন। কিন্তু প্রভাবশালীদের কবল থেকে আজও পর্যন্ত কোটি কোটি টাকা মুল্যের এই জায়গা উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। এরও আগে ২০১২ সালের ১৩ মে এবং তার দুই বছর পর ২০১৫ সালের ২১ মে গালা হাটের পেরিফেরিভুক্ত জায়গায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করার নোটিস প্রদান করা হয়। কিন্তু অজানা অলৌকিক কারণে অদ্যাবধি এই অবৈধ দখলদার ও তাদের নির্মিত অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ হয়নি।

এলাকাবাসী জানান, অন্তুত চারবার উচ্ছেদের নোটিস দেয়া হয়েছে। কিন্তু অজানা কারণে উচ্ছেদ করা হয়নি পেরিফেরির অবৈধ ঘরগুলো। ব্যবসায়ীরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে রাস্তার দুইপাশে বসে ব্যবসা পরিচালনা করছে।

এ বিষয়ে সদর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুখময় সরকার বলেন, আমরা এই হাটের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের লক্ষ্যে অবৈধ স্থাপনা চিহ্নিত করে সেগুলো মার্কিং, সীমানা নির্ধারণ, উচ্ছেদ নথি তৈরি করে নথি জেলা প্রশাসকের কাছে অনুমোদনের জন্য প্রেরণ করেছি। জেলা প্রশাসক সেটি অনুমোদনও দিয়েছেন। আমরা আমাদের কাজ যথাযথভাবে সম্পন্ন করেছি। এখন উচ্ছেদ কার্যক্রম পরিচালনার দায়িত্ব জেলা প্রশাসকের।

শীর্ষ সংবাদ:
চিনিশিল্পকে নতুন করে সাজানোর উদ্যোগ নিয়েছে এই সরকার : শিল্পমন্ত্রী         করোনায় প্রাণ গেল বিএসএমএমইউ অধ্যাপকের         করোনায় কেউ না খেয়ে মারা না গেলেও থালায় ভাতের পরিমাণ কমে যাচ্ছে ॥ মেনন         নতুন জলাধার সৃষ্টি ও বিদ্যমানগুলোর ধারণক্ষমতা বাড়ানোর তাগিদ প্রধানমন্ত্রীর         করোনা ভাইরাসে আরও ২১ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১৫০৮         আগামী এক বছরের মধ্যে ডিএনসিসির সকল তার অপসারণ করা হবে ॥ আতিক         এমসিতে গণধর্ষণ ॥ ৬ আসামির ডিএনএ নমুনা সংগ্রহ         ঝুঁকি বীমা না থাকলে মোটরযান বা মালিকের বিরুদ্ধে নতুন সড়ক আইনে মামলার সুযোগ নেই- বিআরটিএ         ছুটি বাড়ল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের         জীববৈচিত্র্য রক্ষায় চারটি পদক্ষেপ নিতে বিশ্বনেতাদের প্রতি আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর         পা হারানো রাসেলকে আরও ২০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেবে গ্রিনলাইন         প্রথম আলো সম্পাদকসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন শুনানির দিন ধার্য         ‘সংসদ নিয়ে টিআইবি’র প্রতিবেদন সঠিক ও নির্ভরযোগ্য তথ্যভিত্তিক নয়’         যুক্তরাষ্ট্রে শেষকৃত্যানুষ্ঠানে বন্দুকধারীর হামলা ॥ গুলিবিদ্ধ ৭         মিন্নিসহ ৬ জনের ফাঁসি ॥ বরগুনায় চাঞ্চল্যকর রিফাত হত্যা মামলা         ট্রাম্প-বাইডেন প্রথম নির্বাচনী বিতর্কে তিক্ততা, বিশৃঙ্খলা         সরকার দেশের স্বার্থে ব্যবসায়ীদের সুবিধা দিচ্ছে ॥ অর্থমন্ত্রী         শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি আরও বাড়ছে         কোমল পানীয়ের নামে আমরা কী খাচ্ছি?         আলোচনার শীর্ষে টিলাগড় ॥ দুই আসামি রিমান্ডে