বৃহস্পতিবার ১৪ মাঘ ১৪২৮, ২৭ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

সাতক্ষীরায় গৃহবধূকে গণধর্ষণ

স্টাফ রিপোর্টার, সাতক্ষীরা ॥ সাতক্ষীরায় এক গৃহবধূকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণের অভিযোগে পাঁচ ধর্ষককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার দিনব্যাপী জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এর আগে রবিবার রাতে সদর উপজেলার ছয়ঘরিয়ার জনৈক সিরাজুল ইসলামের ইটভাঁটিতে ওই গৃহবধূকে গণধর্ষণ করা হয়। রাতে ধর্ষিতার চিৎকারে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ এক ধর্ষককে আটক করে এবং গৃহবধূকে উদ্ধার করে।

গ্রেফতারকৃতরা হলো, সদর উপজেলার দেবনগর গ্রামের জামের আলির ছেলে তরিকুল ইসলাম (২৫), একই গ্রামের করিম বক্সের ছেলে ইদ্রিস আলি (২০), বাঁশঘাটা গ্রামের কোরবান আলির ছেলে আলামিন (২২), বেতলা গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে কবিরুল ইসলাম (২৭) ও দেবনগর গ্রামের রঞ্জনের ছেলে সঞ্জয় (২৫)। মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, উত্তর দেবনগরের মৃত আলিমুজ্জামানের স্ত্রী ফেরি করে মনোহারির মালামাল বিক্রি করেন। মালামাল বিক্রয়ের সূত্র ধরে দেবনগর গ্রামের তরিকুল ইসলামের কাছে তার এক হাজার টাকা পাওনা ছিল। কিন্তু তরিকুল সেই পাওনা টাকা দিতে বিভিন্ন সময় টালবাহানা করত। একপর্যায়ে রবিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে তরিকুল ওই গৃহবধূকে টাকা দেয়ার কথা বলে মোবাইল ফোনে কদমতলা ব্রিজের কাছে ডেকে নিয়ে যায়। সেখান থেকে তাকে ছয়ঘরিয়ার সিরাজের ইটভাঁটির কাছে যেতে বলে সেখানে তাকে জোরপূর্বক সিরাজের ভাঁটির একটি রুমে নিয়ে তরিকুল, ইদ্রিস আলি, আলামিন, কবিরুল, সঞ্জয় ও বাঁশঘাটার আব্দুল গফফারের ছেলে পলাতক আসামি কবির তাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। রাত সাড়ে ১০টার দিকে ওই গৃহবধূর আর্তচিৎকার শুনে টহলরত পুলিশ তাকে উদ্ধার করে এবং কবিরুল নামে একজনকে ঘটনাস্থলকে আটক করে। তার স্বীকারোক্তি মোতাবেক আরও ৪ জনকে আটক করা হয়। এ ঘটনায় নির্যাতিতা ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে সোমবার সদর থানায় ১০ জনের নামে একটি মামলা দায়ের করেন।

এ ব্যাপারে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মারুফ আহমেদ জানান, এ ঘটনায় ঘটনাস্থল থেকে একজনসহ পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে ইদ্রিস আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দিয়েছে।

শীর্ষ সংবাদ:
অবশেষে অনশন ভঙ্গ ॥ শাহজালালের ঘটনায় কিছুটা স্বস্তি         শিক্ষার্থীদের সব দাবি বাস্তবায়নের আশ্বাস শিক্ষামন্ত্রীর         দেশ অপ্রতিরোধ্য গতিতে উন্নয়নের পথে এগিয়ে যাচ্ছে         বিএনপি ৮ লবিস্ট নিয়োগ দিয়েছিল         ওমিক্রন মোকাবেলায় আসছে নতুন গাইডলাইন         রাজধানীসহ কোন কোন এলাকায় ভারি বৃষ্টি, জনদুর্ভোগ         অপরাধ দমনে কাজের স্বীকৃতি পেল পুলিশের বিভিন্ন ইউনিট         অর্থ পাচার রোধে দক্ষিণ কোরিয়ার মতো কঠোর আইন প্রয়োজন         এগিয়ে চলাকে স্তব্ধ করতে নানা ষড়যন্ত্র চলছে         অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে আরও তিন বছর লাগবে         তদন্ত এগোনোর পর এখনও এজাহার জটিলতার নেপথ্যে -         বগুড়ায় বাসের ধাক্কায় অটোরিক্সার ৫ যাত্রী নিহত         আসছে নতুন শিক্ষাক্রম, সময়মতো চালুর বিষয়ে শঙ্কা         নগ্ন ছবি, ভিডিও ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে টাকা দাবি         বাংলাদেশের গ্রামীণ হাসপাতাল পেল বিশ্ব সেরার স্বীকৃতি         ওমিক্রনরোধে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নতুন গাইডলাইন         শাবিপ্রবি সংকট : শিক্ষার্থীদের সব দাবি বাস্তবায়ন হবে ॥ শিক্ষামন্ত্রী         জামিন পেলেন শাবিপ্রবির সাবেক ৫ শিক্ষার্থী         করোনা : গত ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু ১৭, শনাক্ত ১৫৫২৭         ‘শাবির ঘটনায় পুলিশের দায় থাকলে ব্যবস্থা’