ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৩ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

মুস্তাফিজদের আরও উন্নতির চেষ্টায় ওয়ালশ

প্রকাশিত: ০৭:৫৪, ২৬ জুলাই ২০১৭

মুস্তাফিজদের আরও উন্নতির চেষ্টায় ওয়ালশ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ দুইদিন আগে পেসার কামরুল ইসলাম রাব্বি বলেছিলেন, ‘আমার বোলিং অনেকটা ব্যালেন্স হয়েছে। আমি আগে ইনসুইং পারতাম না, এখন পারি।’ কথাগুলো শুনে মনে হয়েছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজের কিংবদন্তি পেসার ও বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশের ‘বিশেষ ক্লাস’ দারুণ চলছে। পেসাররা দারুণ উন্নতি করছেন। কিন্তু মঙ্গলবার ওয়ালশ নিজে যা বললেন, তাতে মনে হচ্ছে, পেসারদের এখনও অনেকটা পথ বাকি। ওয়ালশ বলেন, ‘দুঃখজনক হলেও সত্যি, আমি এখনও ওদের বোলিংয়ে খুব বেশি উন্নতি দেখিনি। ওরা এখনও তেমন ধারাবাহিক নয়।’ বোঝাই যাচ্ছে, পেসাররা ঠিক রিদমে নেই। মুস্তাফিজদের উন্নতির চেষ্টাই তাই করে চলেছেন ওয়ালশ। গত বছর সেপ্টেম্বরে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের বোলিং কোচের দায়িত্ব নিয়েছেন ওয়ালশ। সেই থেকে শুধু সিরিজই খেলেছেন ক্রিকেটাররা। আলাদাভাবে যে পেসারদের নিয়ে ‘বিশেষ ক্লাস বা ক্যাম্প’ করবেন, সেই সুযোগটিই পাননি। এবার চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি শেষে অনেকটা দিন কোন আন্তর্জাতিক খেলা না থাকায় সেই সুযোগ মিলেছে। এমনকি এই সময়টিতে নেই কোন ঘরোয়া ক্রিকেট খেলাও। তাই ওয়ালশ পেসারদের নিয়ে ‘বিশেষ ক্যাম্প’ করছেন। যা চলবে ২৮ জুলাই পর্যন্ত। ১৭ জুলাই থেকে যে ক্যাম্প শুরু করেছেন ওয়ালশ তা এখনও ভালভাবেই চলছে। ফিটনেস ক্যাম্প শেষে পেসাররা আলাদাভাবে ওয়ালশের ক্লাসে যোগ দিচ্ছেন। কিন্তু সেইভাবে আসলে এখনও উন্নতি চোখে পড়ছে না ওয়ালশের। হাতে আছে আর তিনদিন। এই তিনদিনেই তাই যতটা উন্নতি করা যায় সেই চেষ্টাই চলবে। কারণ ২৮ জুলাই ফিটনেস ক্যাম্প শেষে শুরু হবে ব্যাটিং-বোলিং-ফিল্ডিং অনুশীলন। সেই অনুশীলনে কী আর আলাদাভাবে, বিশেষভাবে পেসারদের নিয়ে কিছু করা সম্ভব? এরপরও অস্ট্রেলিয়া যদি আসে সেই সিরিজ শুরু হওয়ার আগে আরও উন্নতির সম্ভাবনা আছে। যা পেসারদের জন্য অনেক কাজে দিবে। ওয়ালশ তাই বলেছেন, ‘বাংলাদেশে আসার পর এবারই আমি ওদের নিয়ে ঠিকভাবে কাজ করার সুযোগ পাচ্ছি। আমি যোগ দেয়ার পরই ছেলেরা খেলার মধ্যে ছিল। ওদের নিয়ে কাজ করতে এই ক্যাম্পটি বেশ কাজে দিচ্ছে। যতটুকু সম্ভব ওদের উন্নতি নিয়ে কাজ করছি।’ চলতি ক্যাম্পটি বোলারদের জন্য অনেক বড় একটি সুযোগ বলে মনে করছেন কোচ ওয়ালশ ও বোলাররা। তবে দায়িত্ব নেয়ার পর থেকে যা দেখছেন ওয়ালশ তা থেকে ধারণা জন্মেছে, বাংলাদেশের বোলাররা ধারাবাহিক নয়। বাংলাদেশের পেস বোলিং বিভাগে উল্লেখ করার মতো কোন উন্নতি এখনও চোখে পড়েনি ক্যারিবিয়ান ওয়ালশের। পেসারদের যতটুকু কাছে পেয়েছেন সেটুকু সময়ে তাদের যা শেখাতে চেয়েছেন তা ঠিকভাবে নিতে পারেননি তার শিষ্যরা। তাই বলেতো আর কোচ আশা ছেড়ে দিতে পারেন না। অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজকে সামনে রেখে যে ক্যাম্প চলছে সেই ফিটনেস ক্যাম্পের পর বোলারদের নিয়ে বেশ ঘাম ঝরাচ্ছেন তিনি। মুস্তাফিজদের দুর্বল জায়গাগুলো নিয়ে বেশ অনেকটা সময় কাজ করে যাচ্ছেন। বিশেষ করে মুস্তাফিজকে নিয়েই কাজ করছেন ওয়ালশ। এ পেসার আগের সেই ধারাবাহিকতায় নেই। ছন্দ যেন হারিয়ে ফেলেছেন। খুব অল্প সময়ে যে জৌলুস ছড়িয়েছেন তা এ মুহূর্তে ধরে রাখতে পারছেন না। অস্ত্রোপচারের পর যেন ঝিমিয়ে পড়েছেন। মুস্তাফিজকে পুরনো ছন্দে ফেরাতে অনেক চেষ্টা করছেন। ভিডিও দেখিয়ে মুস্তাফিজকে ভুলগুলো ধরিয়ে দিচ্ছেন। মুস্তাফিজকে নিয়ে ওয়ালশ বলেছেন, ‘এই মুহূর্তে এটাই বলতে পারি সে অনুশীলনে খুব ভাল করছে। উইকেটের কাছাকাছি বল করার অনুশীলনটাই বেশি করাচ্ছি।
monarchmart
monarchmart